happy new year 2017

প্রকাশ:| রবিবার, ১ জানুয়ারি , ২০১৭ সময় ১২:২১ পূর্বাহ্ণ

শুভ নববর্ষ। নতুন বছর ২০১৭ তে পা দিয়েছে সমগ্র বিশ্ব। প্রতিদিনের মত আজও উঠছে সূর্য, তবে অন্য যে কোন দিনের চাইতে আজকের ভোরের আলো যেন নতুন স্বপ্নের কথা বলছে। বলছে, সামনের দিনগুলোতে অনিশ্চয়তা কেটে গিয়ে শুভময়তা ছড়িয়ে যাবে দেশে, পৃথিবীতে। বলছে, পুরনো দিনের গ্লানি ভুলে নতুন বছরে নতুন করে বিশ্বকে দেখার।

রাজনৈতিক সহিংসতা, নানা দুর্যোগ-দুর্ঘটনা আর ঘটনা প্রবাহের মধ্য দিয়ে শেষ হলো ইংরেজি ২০১৫ সাল। মহাকালে মিলিয়ে গেল আরেকটি ঘটনাবহুল বছর। সেইন্ট গ্রেগরি প্রবর্তিত ক্যালেন্ডারের হিসাবে ২০১৬ সাল শেষ হয়ে রাত বারোটার পর শুরু হয়েছে ২০১৬ সাল। সারা বিশ্বের মানুষ আনন্দ-উল্লাস করে পালন করছে এই নতুন বছরের শুরুর ক্ষণটিকে। বাংলাদেশেও ২০১৭ সালকে স্বাগত জানিয়েছে সব বয়সের মানুষ।

বাংলাদেশে ইংরেজি নতুন বছর মানেই শীতের কুয়াশাভেদ করে আসা নতুন সূর্যকে বরণ করে নেওয়া। উঠোনে বসে নতুন আসা নরম রোদকে সঙ্গী করে পিঠা উৎসবে মেতে উঠা। নতুন বছর মানেই ঘর ভর্তি নতুন বইয়ের গন্ধ। নতুন ক্লাসে ওঠার আনন্দ। নতুন বইয়ের মলাট বাঁধার আনন্দ। আর নতুন করে শিক্ষার্থীদের স্বপ্ন দেখা, এবার ভালো করবই।

নববর্ষ উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবাইকে নববর্ষের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি তার বার্তায় বলেন, বিগত বছরের সকল অকল্যাণ ও ব্যর্থতার গ্লানি মুছে নতুন বছর সবার জন্য বয়ে আনুক সমৃদ্ধি ও বিজয়ের বাণী-এ কামনা করি। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে দেশবাসী, প্রবাসী বাঙালিসহ বিশ্ববাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়ে মুক্তিযুদ্ধের আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র্যমুক্ত, অসাম্প্রদায়িক, সমৃদ্ধ ও শান্তিপূর্ণ বাংলাদেশ গড়ে তোলার আহবান জানিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও খ্রিস্টীয় নববর্ষের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ এবং বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। পৃথক পৃথক বাণীতে শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি নতুন বছর সবার জীবনে অনাবিল সুখ শান্তি সমৃদ্ধি, আনন্দ ও কল্যাণ বয়ে আনবে বলেও প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন তারা।