Disaster Risk Reduction and Climate Change Adaptation শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত

প্রকাশ:| বুধবার, ২৭ নভেম্বর , ২০১৩ সময় ০৬:৫৯ অপরাহ্ণ

প্রেস বিজ্ঞপ্তি>>isdeযে কোন প্রাকৃতি বিপর্যয়ে দুযোর্গ ঝুকি হ্রাস ও জলবায়ুর উষ্ণতায় ক্ষয় ক্ষতি মোকাবেলায় স্থানীয় জনগোষ্ঠির সক্ষমতা বাড়ানো এবং স্থানীয় উদ্যোগে জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে সহনশীল কৃষি, খাদ্য নিরাপত্তা, জীবন জীবিকায়ন, আয় ও কর্মসংস্থান, স্বাস্থ্য, নিরাপদ সুপেয় পানির নিশ্চয়তা বিধান ছাড়া এ অবস্থা থেকে পরিত্রানের উপায় নেই। সেজন্য প্রয়োজন জলবায়ু পরিবর্তন জনিত কারন ও প্রতিকারের উপায় নিয়ে তৃনমুলে সচেতনতা সৃষ্ঠি ও এর প্রতিকারে স্থানীয় জনগনের সমন্বিত উদ্যোগ। ২৭ নভেম্বর বুধবার চকরিয়া উপজেলা মিলনায়তন ‘‘মোহনায়” চকরিয়া উপজেলা প্রশাসন ও আইএসডিই বাংলাদেশ এর যৌথ উদ্যোগে কনসার্ন ইউনিভার্সেল’র সহযোগিতায় আয়োজিত Disaster Risk Reduction and Climate Change Adaptation শীর্ষক উপজেলা পর্যায়ের কর্মশালায় বিভিন্ন বক্তাগন উপরোক্ত মন্তব্য করেন।

কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান এস এম জাহাঙ্গীর আলম বুলবুল। প্রধান অতিথি ছিলেন চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনোয়ারা বেগম। আলোচনায় অংশনেন চকরিয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার হাজী আবু মোহাম্মদ বশিরুল আলম, কাপ্তাই উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক সাহাব উদ্দিন মাহমুদ, বরইতলী ইউপি চেয়ারম্যান এটিএম জিয়াউদ্দিন চৌধুরী জিয়া, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ আকিব উল্লাহ, উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ সাইফুর রহমান, কোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যন দিদারুল আলম, চিরিঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, বি.এম.চর ইউপি চেয়ারম্যান বদিউল আলম, সাংবাদিক মিজবাউল হক, ন্যাকম ক্রেল প্রোগ্রামের সাইড অফিসার আব্দুল কাইয়ুম, টিআইবির উপজেলা ব্যবস্থাপক মামুনুর রশীদ, মাতামুহুরী আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহসিন বাবুল, সার্ভ বাংলাদেশের প্রতিনিধি রাজেশ খান্না শর্মা, চকরিয়া উপজেলা নারী উদ্যোক্তা পরিষদ সভাপতি উম্মে কুলসুম মিনু, উপজেলা শিক্ষা অফিসার ইকরাম উল্লাহ চৌধুরী, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা অরুপ চাক্মা, ব্লাাষ্ট প্রতিনিধি রফিক আহমদ, জাতীয় মহিলা সংস্থার প্রতিনিধি জান্নাতুল বকেয়া রেখা প্রমূখ।

কর্মশালায় জলবায়ু পরিবর্তন ও হ্রাসে করনীয় শীর্ষক পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে মুল বক্তব্য উপস্থাপন করেন আইএসডিই বাংলাদেশ চকরিয়ার আঞ্চলিক অফিস প্রধান মোঃ গিয়াস উদ্দিন ও অনুষ্ঠান কর্মশালা সঞ্চালনা করেন আইএসডিই বাংলাদেশের কর্মসূচী কর্মকর্তা শেখ আজাদ কামাল টিপু।

বক্তরা অভিমত রাখেন বাংলাদেশের জলবায়ু পরিবর্তনে উপকূলীয় ঝুঁকিপূর্ণ জেলা সমূহের মধ্যে ককসবাজার জেলা অন্যতম। জেলায় অত্যন্ত স্পর্শকাতর এলাকা হিসাবে চকরিয়াকে দূর্যোগের ঝুঁকি থেকে বাঁচাতে জলবায়ু পরিবর্তনের কারনগুলো চিহ্নিত করে তা উত্তরণের পথ বেছে নিতে স্থানীয় উদ্যোগ গুলিকে পৃষ্ঠপোষকতা প্রদানে সরকারী বেসরকারী ও ধনাঢ্য ব্যাক্তিদেরকে এগিয়ে আসতে হবে। একই সাথে তৃনমুলের জনগনের সক্ষমতা বৃদ্ধিতে আরো উদ্যোগ নিতে হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনোয়ারা বেগম বলেন, সমগ্র দুনিয়ায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব সম্পর্কে আন্দোলন চলছে। আমরাও ঐ আন্দোলনে একাকার হয়ে চকরিয়ার গ্রামীণ জনগোষ্ঠীকে সচেতন করে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে সরকারী উদ্যেগের পাশপাশি বেসরকারী জনহিকর প্রতিষ্ঠান ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিগনও এগিয়ে আসতে পারে। উপজেলা প্রশাসন স্থানীয় যে কোন উদ্যোগের সাথে থাকবে। কর্মশালায় সরকারী কর্মকর্তা, ইউপি চেয়ারম্যান, সদস্য রাজনৈতিক দলের নেতা, এনজিও প্রতিনিধি, সাংবাদিক, নারী প্রতিনিধি, শিক্ষক, সমাজ কর্মীসহ বিভিন্ন্ শ্রেনী পেশার ৭০জন অংশগ্রহন করেন।