শিরোনাম
You are here: প্রচ্ছদ / বিনোদন

বিভাগ: বিনোদন

Feed Subscription

হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত ডিপজল, নেওয়া হচ্ছে সিঙ্গাপুর

ঢালিউডের আলোচিত অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়েছেন। তার ফুসফুসে পানি জমেছে।

আজ বিকেলে ডিপজলকে সিঙ্গাপুর নেওয়া হচ্ছে।

বুধবার তিনটায় ডিপজলকে নিয়ে এয়ার অ্যাম্বুলেন্স রওনা দেবে। তাকে সিঙ্গাপুরে মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে ভর্তি করা হবে। ডিপজলের সঙ্গে সিঙ্গাপুরে যাচ্ছেন স্ত্রী জবা ও মেয়ে অলিজা মনোয়ার।

গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বাসায় অসুস্থ হয়ে পড়েন ডিপজল। এরপর তাকে দ্রুত রাজধানীর ল্যাবএইড হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটিতে (সিসিইউ)  ভর্তি কর হয়। তিনি ডা. বরেণ চক্রবর্তীর তত্ত্বাবধানে চিকিৎসাধীন।

আমি নিজে বুঝলাম না, কি করে এমন গুজব

‘আমি নিজে বুঝলাম না, কি করে এমন গুজব ছড়াতে পারে। কারা আমার পিছু লেগেছে। ডিভোর্সের খবরটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। আপনারা এসব কথায় কান দিবেন না।’ ডিভোর্স প্রসঙ্গে জানতে চাইলে এভাবেই ক্ষোভ ও অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন পপ গায়িকা মিলা।

এর আগে সোমবার (১৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় বৈমানিক পারভেজ সানজারি ও মিলার মধ্যে ডিভোর্স হয়েছে বলে বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়।

তবে এই ধরনের খবরকে তুড়ি মেরে উড়িয়ে দিয়ে মিলা বলেন, ‘পারভেজের সঙ্গে আমার ডিভোর্সের কোনো ঘটনা ঘটেনি। সংসার করতে গেলে টুকটাক খুনসুটি হতেই পারে। তার মানে এই নয়, যে এটি ডিভোর্সে গড়িয়েছে। তাই এসব খবরে কান না দেওয়ার অনুরোধ করছি।’

২ মে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ে হয় মিলা ও বৈমানিক পারভেজ সানজারির। টানা ১০ বছর প্রেমের পর বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তারা।

চার শিল্পীর সংগীতানুষ্ঠান ‘এ আমার স্বপ্ন সাধনা’ বুধবার

 

সাংস্কৃতিক চর্চা কেন্দ্র রংধনু’র আয়োজনে স্বনামধন্য চার শিল্পীর বিশেষ সংগীতানুষ্ঠান বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় নগরীর থিয়েটার ইনস্টিটিউট (টিআইসি) মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে। ‘এ আমার স্বপ্ন সাধনা’ শিরোনামে সংগীতানুষ্ঠানে শিল্পী পীযুষ নাগ, রঞ্জন চৌধুরী, নিখিলেশ বড়–য়া ও শম্পা চৌধুরী সংগীত পরিবেশন করবেন।

স্বনামধন্য শিল্পীদের এ সংগীতানুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মনোজ সেনগুপ্ত। বিশেষ অতিথি থাকবেন চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মহসিন চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার জন্য সকল শ্রোতাদের অনুরোধ জানিয়েছেন রংধনু’র সভাপতি সাইফুল্লাহ মুহম্মদ সালাউদ্দিন দুলু।

সংগীতানুষ্ঠানে যন্ত্রাণুষঙ্গে থাকবেন কি-বোর্ডে নিখিলেশ বড়–য়া, কাঞ্চন চন্দ্র দাশ, লিংকন বড়–য়া, অক্টোপ্যাডে রনী চৌধুরী, তবলায় প্রীতম আচার্য্য, লিড গিটারে বিজয় দাশ, একস্টিক গিটারে মো. আসিফুল আলম, বেইজ গিটারে তন্ময় বড়ুয়া। শব্দ নিয়ন্ত্রণে থাকবেন রুবেল বড়ুয়া ও মো. মোক্তার হোসেন। বিজ্ঞপ্তি

১০ দিনেই ৫০ লাখ ছাড়িয়ে ‘বড় ছেলে’

এবার ইউটিউবেও রেকর্ড গড়ল ‘বড় ছেলে’ নাটকটি। গত ৫ সেপ্টেম্বর সিডি চয়েসের ইউটিউব চ্যানেল ‘সিডি চয়েস ড্রামা’য় নাটকটি উন্মুক্ত হবার পর মাত্র ১০ দিনের মধ্যেই  ৫০ লাখেরও বেশি ভিউয়ার পূর্ণ করেছে।

 

এর আগে বাংলাদেশের ইতিহাসে ইউটিউবে ৫০ লাখ ভিউয়ার কোনো নাটক পায়নি। নাটকটি দেখে লাইক দিয়েছে দেড় লাখ মানুষ। আর এতে কমেন্ট পড়েছে প্রায় ৩০ হাজার।

উল্লেখ্য ঈদে চ্যানেল নাইনে প্রচারের পর সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায় মিজানুর রহমান আরিয়ান পরিচালিত ‘বড় ছেলে’। ‘বড় ছেলে’র প্রধান দুটি চরিত্রে অভিনয় করেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও মেহজাবিন চৌধুরী।

 

ফের অক্ষয়ের সঙ্গে মাধুরীর অন্তরঙ্গদৃশ্য ভাইরাল!(ভিডিও)

৯০ দশকে বলিউডের হার্টথ্রব অভিনেত্রীদের মধ্যে একজন মাধুরী দীক্ষিত। এখনো তাঁর এক হাসিতেই মাত হয়ে যায় গোটা ভারত।

তাঁর চোখের ইশারায় সম্মোহন খোঁজে বহু পুরুষ হৃদয়। তিনি বলিউডের ধাক ধাক গার্ল । বলিউডের একের পর এক ছবিতে তাঁর অভিনয় ও নাচ দিয়ে মুগ্ধতা ছড়িয়েছেন তিনি।

১৯৮৪ সালে ‘অবোধ’ সিনেমার মধ্যে দিয়ে চলচ্চিত্রে পদার্পণ। তারপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। তার ক্যারিয়ারের সফল বা ব্লকবাস্টার হিট ছবির নাম লিখতে গেলে বিশাল তালিকা হয়ে যাবে। এরই মধ্যে আলাদাভাবে রাম লক্ষণ, পরিন্দা, দিল, সাজন, বেটা, খলনায়ক, হাম আপকে হ্যায় কৌন, দিল তো পাগল হ্যায়, দেবদাস এর মতো ছবিগুলোর নাম হয়তো তিনি নিজেই মনে করতে চাইবেন বারবার। ভারতীয় চলচ্চিত্রাঙ্গনে বিশেষ অবদানের জন্য ২০০৮ সালে সম্মানসূচক পদ্মশ্রী পুরস্কার লাভ করেন তিনি।

মিষ্টি হাসির জন্য বিখ্যাত এই নায়িকা সমালোচনারও শিকার হয়েছেন বেশ কিছু দৃশ্যে অভিনয়ের কারণে। সম্প্রতি তেমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ভিডিওটি মাধুরী অভিনীত কোন সিনেমার। যাতে তার বিপরীতে ছিলেন অক্ষয় কুমার। দেখুন মাধুরীর অজানা কিছু তথ্য এবং ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিও-

রোহিঙ্গা সংকট সমাধান চেয়ে আজমি-জাভেদসহ ছয়জনের স্বাক্ষর

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের হস্তক্ষেপ চেয়ে লেখা চিঠিতে আরও ছয় বিশিষ্ট বিশ্ব ব্যক্তিত্ব স্বাক্ষর করেছেন। চিঠিতে নতুন স্বাক্ষরকারীরা হলেন সঙ্গীততারকা বুনো, মানবাধিকার কর্মী রিচার্ড কার্টিস, শিক্ষাবিদ ও খান একাডেমির প্রতিষ্ঠাতা সালমান খান, মানবাধিকার কর্মী আসমা জাহাঙ্গীর ভারতীয় অভিনেত্রী ও মানবাধিকার কর্মী শাবানা আজমি এবং কবি ও গীতিকার জাভেদ আখতার।

১৩ সেপ্টেম্বর লেখা ওই খোলা চিঠিটি লিখেন ১২ নোবেল জয়ীসহ ৩০ জন বিশিষ্ট বিশ্ব ব্যক্তিত্ব। চিঠিতে মিয়ানমার থেকে শরণার্থী প্রবাহ বন্ধ ও তাদের ফিরিয়ে নেওয়া, রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব প্রদান, জাতিসংঘের ট্রানজিট ক্যাম্প স্থাপন ও পীড়িত এলাকা পরিদর্শনসহ সাত দফা সুপারিশ তুলে ধরা হয়।

খোলা চিঠিতে স্বাক্ষর করেন নোবেল জয়ী অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইউনূস, বেটি উইলিয়াম্স, মেইরিড মাগুইর, আর্চবিশপ ডেসমন্ড টুটু, অসকার আরিয়াস সানচেজ, জোডি উইলিয়ামস, শিরিন এবাদী, লেইমাহ বোয়ি, তাওয়াক্কল কারমান, মালালা ইউসুফজাই, স্যার রিচার্ড জে. রবার্টস ও এলিজাবেথ ব্ল্যাকবার্ন।

ওই ১২ নোবেলজয়ীর সঙ্গে আরও স্বাক্ষর করেন মালয়েশিয়ার প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সাইয়েদ হামিদ আলবার, ইতালির প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী, এমা বোনিনো, ব্যবসায়ী নেতা ও সমাজসেবী স্যার রিচার্ড ব্র্যানসন, নরওয়ের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী গ্রো হারলেম ব্রান্ড্টল্যান্ড, উদ্যোক্তা ও সমাজসেবী মো ইব্রাহীম, মানবাধিকার কর্মী কেরি কেনেডি, লিবীয় নারী অধিকার প্রবক্তা, এসডিজি সমর্থক আলা মুরাবিত, ব্যবসায়ী নেতা নারায়ণ মুর্তি,  থাইল্যান্ডের প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাসিত পিরোমিয়া, আসিয়ানের প্রাক্তন মহাসচিব সুরিন পিটসুয়ান, ব্যবসায়ী নেতা, এসডিজি সমর্থক পল পোলম্যান, আয়ারল্যান্ডের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ম্যারি রবিনসন,জাতি সংঘ সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট সলিউশান্স নেটওয়ার্ক পরিচালক জেফরে ডি. সাচ, অভিনেতা ফরেস্ট হুইটেকার, এবং ব্যবসায়ী নেতা ও সমাজসেবী জোকেন জাইটজ।

মাহি…

অনেকদিন ধরেই পর্দায় নেই অভিনেত্রী মাহিয়া মাহি। তবে বিভিন্ন ছবির শুটিংয়ে ব্যস্ত রয়েছেন এই অভিনেত্রী। মাহি অভিনীত সবশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত ছবির নাম ‘অনেক দামে কেনা’। জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত এ ছবিটি গত বছরের এপ্রিলে মুক্তি পায়। আর আসছে ৬ই অক্টোবর মুক্তি পাবে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিটি। দীপংকর দিপনের পরিচালনায় এ ছবিতে মাহির নায়ক আরিফিন শুভ। প্রায় দেড় বছর পর মাহির মুখ বড় পর্দায় দেখবেন দর্শক। এ প্রসঙ্গে মাহি মানবজমিনকে বলেন, গত বছর বিয়ের পর কিছুটা বিরতি নিয়ে আমি আবারো কাজ শুরু করি। আমি এরমধ্যে বেশকিছু ছবির কাজও শেষ করেছি। ‘ঢাকা অ্যাটাক’ ছবিটি অক্টোবরে মুক্তি পাবে। এখানে সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করেছি আমি। আর এরমধ্যে শাহনেওয়াজ শানুর ‘পলকে পলকে তোমাকে চাই’ ও মোস্তাফিজুর রহমান মানিকের ‘জান্নাত’ ছবির কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। আমি আমার মতো করে কাজ করে যাচ্ছি। শিগগিরই এ ছবিগুলো মুক্তি পাবে। এদিকে, মাহি ‘পলকে পলকে তোমাকে চাই’ ছবিতে একজন সুপার মডেলের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। তার চরিত্রের নাম বন্যা। বান্দরবানে বর্তমানে এ ছবির গানের দৃশ্যায়ন চলছে। এ ছবিতে তার নায়ক হিসেবে বাপ্পিকে দেখা যাবে। রোমান্টিক, অ্যাকশন ঘরানার এই ছবি ছাড়াও মাহি কলকাতার অভিনেতা বনির বিপরীতে ‘মনে রেখো’ ছবির বেশকিছু অংশের কাজ শেষ হয়েছে। ছবিটি পরিচালনা করছেন ওয়াজেদ আলী সুমন। এছাড়া কলকাতার আরেক অভিনেতা সোহমের বিপরীতে যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘তুই শুধু আমার’ ছবির কাজও শেষ করেছেন মাহি। কলকাতার পরিচালক জয়দ্বীপের পাশাপাশি বাংলাদেশ অংশের পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন অনন্য মামুন। তাই সবকিছু মিলে পর্দায় লম্বা বিরতি থাকলেও খুব শিগগিরই বেশকিছু নতুন ছবি নিয়ে দর্শকের সামনে হাজির হতে যাচ্ছেন মাহি।

ব্যস্ত সময় পার করছেন

বর্তমানে অভিনয় নিয়ে বেশ ব্যস্ত সময় পার করছেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী সারিকা। গেলো ঈদে তার করা বেশকিছু নাটক ছিল দর্শকপ্রিয়তায়। বিশেষ করে এটিএন বাংলায় হানিফ সংকেতের রচনা ও পরিচালনায় ‘ভুল কারো না, ভুল ধারণা’ নাটকে তার অভিনয় নজর কেড়েছে দর্শকদের। তারই ধারবাাহিকতায় বেশকিছু নাটকের কাজ নিয়ে এখন ব্যস্ত সারিকা। তবে ধারাবাহিকে নয়, খণ্ড নাটকেই তার ব্যস্ততা বেশি। আর কয়েকটি নাটকের জন্যই বর্তমানে ইন্দোনেশিয়ায় অবস্থান করছেন তিনি। গতকাল থেকে তিনি সেখানে শুটিং করছেন শাখাওয়াত মানিকের নতুন একটি নাটকের। নাম ‘আকাশ গঙ্গা’। শুটিংয়ে অংশ নিতে ৯ই সেপ্টেম্বর ঢাকা ছাড়ে শুটিং ইউনিট। শুটিং শেষ করে আগামী সপ্তাহে ঢাকায় ফিরবেন বলে  জানান সারিকা। এ নাটকে সারিকার বিপরীতে রয়েছেন নিলয়। সারিকা বলেন, ইন্দোনেশিয়ায় এখন ‘আকাশ গঙ্গা’ নাটকের শুটিং করছি। এ নাটকের পর একই পরিচালকের আরো কয়েকটি নাটকের শুটিং করার কথা রয়েছে সারিকার। ইন্দোনেশিয়ায় শুটিং দারুণ উপভোগ করছেন এ অভিনেত্রী। কারণ, অনেক দিন পর ইন্দোনেশিয়ায় শুটিং করতে গিয়েছেন তিনি। সেখানে নিলয়ের সঙ্গে শুটিংয়ের একটি ছবিও তিনি পোস্ট করেছেন নিজের ফেসবুক ওয়ালে। সবমিলিয়ে বেশ ফুরফুরে মেজাজে সেখানে কাজ করছেন সারিকা। এ বিষয়ে এ অভিনেত্রী বলেন, এ নাটক ছাড়াও সাখাওয়াৎ মানিক ভাই পরিচালিত আরো কয়েকটি নাটকের শুটিং এখানে করা হবে। প্রতিটি নাটকের গল্পেই ভিন্নতা রয়েছে। আমার চরিত্রও চ্যালেঞ্জিং। সব মিলিয়ে বেশ ভালোভাবে শুটিং করছি। কয়েকটি নাটকের শুটিং শেষে সামনের সপ্তাহেই দেশে ফিরবো। শুটিংয়ের ফাঁকে ঘোরাঘুরি করছি সময় পেলেই। সবমিলিয়ে অন্যরকম সময় পার করছি। দেশে ফিরেই আবার ব্যস্ত হতে হবে। কারণ বেশ কয়েকটি নাটকের স্ক্রিপ্ট আমার হাতে রয়েছে। সেগুলো দেখে সিদ্ধান্ত নেবো কোনটা কোনটা করবো। দোয়া করবেন যেন ইন্দোনেশয়ায় শুটিং করে ভালোভাবে দেশে ফিরতে পারি।

ইন্দোনেশিয়াতে ‘আকাশ গঙ্গা’

হাল প্রজন্মের ছোট পর্দার দুই জনপ্রিয় তারকা নিলয় ও সারিকা। সম্প্রতি জুটি হয়ে ‘আকাশ গঙ্গা’ নামের একটি নাটকে কাজ করেছেন তারা।

আর তারই সুবাদে রোমান্টিক প্রেমের গল্পের শুটিংয়ে বর্তমানে ইন্দোনেশিয়াতে রয়েছেন এই তারকা জুটি।

দয়াল সাহার রচনায় নাটকটি পরিচালনা করেছেন সাখাওয়াৎ মানিক। এ প্রসঙ্গে নির্মতা মানিক জানালেন, ‘দর্শকদের ভিন্ন স্বাদের একটি গল্পে নাটকের বিনোদন দিতে এই নাটকটি নির্মাণ করেছি। এখানে গল্প ও নির্মাণের মুন্সিয়ানা পাবেন তারা। নিলয় ও সারিকা খুব ভালো কাজ করেছেন। তাদের ভক্তরা উপভোগ করবেন বলেই বিশ্বাস। ’

জানা গেছে, ‘আকাশ গঙ্গা’ নাটকে নিলয়কে দেখা যাবে একজন চিত্রশিল্পীর ভূমিকায়। বাংলাদেশের বিখ্যাত আঁকিয়ে অরিন। হেনা ইন্দোনেশিয়ার ক্যাপিটালে বসবাসরত আইনজীবী। বেশ কয়েক বছর ধরেই দু’জনের পরিচয় ও নিয়মিত আলাপ চলে। একদিন হঠাৎ করেই জাকার্তার এক পর্যটন কটেজে ঘুরতে আসে অরিন। সেখানকার পরিবেশে বিমুগ্ধ হয়ে নিজের ক্যানভাসে একে ফেলে কোনো এক অচেনা সুন্দরীর মুখ। ক্রমেই অরিনকে চমকে দিয়ে পেছন থেকে উঁকি দেয় ক্যানভাসে আঁকা সেই মুখটি। মেয়েটির নাম এনিসা। তবে এরই মাঝে সবাইকে চমকে দিয়ে সেখানে হাজির হয় হেনাও। এভাবেই এগিয়ে চলে গল্প।

ফের বিয়ে করলেন হৃদয় খান!

আবারও বিয়ে করলেন সংগীতশিল্পী হৃদয় খান। একটি ঘরে পাঞ্জাবি পরিহিত হৃদয় খান এবং তার সঙ্গে বধূ সাজে এক নারীর ছবি ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়ার পর থেকে চারদিকে তার বিয়ের খবর ছড়িয়ে পড়েছে।

 

যদিও এ বিষয়ে একাধিকবার হৃদয় খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি। ফলে প্রতিক্রিয়া না পাওয়ায় ভাইরাল হওয়া বিয়ের খবরের সত্য-মিথ্যা যাচাই করা যায়নি। তারপরও নিশ্চিত হওয়ার জন্য হৃদয় খানের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা চলছে।

তবে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত শনিবার গায়ে হলুদের পর রবিবার বিয়ের পর্ব সারেন হৃদয় খান। নববধূর নাম হুমায়রা। তিনি মালয়েশিয়া থাকেন। পারিবারিকভাবে বিয়ে হলেও জানা গেছে, অনেকদিন ধরেই প্রেমের পর তাদের ভালোবাসা রূপ নিয়েছে পরিণয়ে।

হৃদয় খানের এটা তৃতীয় বিয়ে। এর আগে, ২০১০ সালের শুরুর দিকে পূর্ণিমা আকতার নামের এক নারীকে বিয়ে করেছিলেন এই সংগীতশিল্পী। তবে ৬ মাস পার হওয়ার আগেই ভেঙে যায় তাদের সেই সংসার। এরপর ২০১৪ সালে ভালোবেসে মডেল সুজানাকে বিয়ে করেন হৃদয় খান। তার সেই দ্বিতীয় বিয়ে স্থায়ী হয়েছিল আরও কম। মাত্র চার মাস।

Scroll To Top