শিরোনাম
You are here: প্রচ্ছদ / আইন আদালত

বিভাগ: আইন আদালত

Feed Subscription

অপহরণের পর খুনের দায়ে তিন জনকে যাবজ্জীবন

চট্টগ্রাম নগরীর চাঁন্দগাও এলাকা থেকে এক যুবককে অপহরণের পর খুনের দায়ে তিন জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

 

বুধবার দুপুরে চট্টগ্রামের চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ নুরুল ইসলামের আদালত এ রায় দেন। যাবজ্জীবন প্রাপ্ত আসামিরা হলেন- নিজাম উদ্দিন, মোজাম্মেল হোসেন ও দিদারুল আলম।

 

বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত মহানগর পিপি আবু জাফর বলেন, ১২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য শেষে আদালত এ রায় ঘোষণা করেন। একই সাথে প্রত্যেককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরোও এক বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেন। রায় দেয়ার সময় তিন আসামিই আদালতে উপস্থিত ছিলেন বলেও জানান তিনি।

 

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০২ সালের ১০ এপ্রিল পূর্ব শত্রুতার জেরে চট্টগ্রাম নগরীর চাঁন্দগাও থানাধীন খাজা রোড এলাকা থেকে আবু বকর নামের এক যুবককে অপহরণ করে আসামিরা। ঘটনার দুইদিন পর পুলিশ ওই এলাকার একটি পুকুর থেকে অপহৃত আবু বকরের মরদেহ উদ্ধার করে। এঘটনায় আবুল বকরের বাবা আবুল হাশেম বাদি হয়ে চাঁন্দগাও থানায় একটি হত্যা মামলা করেন।

ঝালকাঠিতে কৃষক হত্যা: ৩ জনের ফাঁসি

ঝালকাঠির নলছিটিতে কৃষক মুনছুর আলী খান হত্যা মামলায় তিনজনকে ফাঁসির রায় দিয়েছেন আদালত। বুধবার দুপুরে ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মুহাম্মদ বজলুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- নলছিটি পৌর এলাকার নাঙ্গুলী গ্রামের জামাল খান, খলিলুর রহমান ও সোহরাব হোসেন।

এছাড়া অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় নাঙ্গুলী গ্রামের রুস্তুম খান ও জাকির হোসেনকে খালাস দেয়া হয়েছে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ২০০০ সালের ২২ অক্টোবর রাত দুইটার দিকে ঝালকাঠির নলছিটি পৌর এলাকার নাঙ্গুলী গ্রামের কৃষক মুনছুর আলী খানের বাড়িতে হামলা চালায় প্রতিপক্ষরা।

এ সময় তারা ঘরের ভেতরে প্রবেশ করে কৃষক মুনছুর আলী খানকে গলাকেটে হত্যা করে। পাশাপাশি মুনছুর আলীর ছেলে আবদুল মজিদ খান ও মেয়ে নিলুফা বেগমকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে।

ঘটনার পর দিন নিহতের ছেলে আবদুল মজিদ খান বাদী হয়ে ৭ জনকে আসামি করে নলছিটি থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে সিআইডির পরিদর্শক আবুল খায়ের মামলাটি তদন্ত করে ২০১৪ সালের ২৪ নভেম্বর আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

এরপর ২০১৫ সালের ২৫ আগস্ট আদালত ৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে। আদালত ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আজ এ রায় ঘোষণা করলেন। রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতের আপিল করা হবে বলে জানিয়েছেন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা।

২৪ ঘণ্টার মধ্যে সিটিসেল চালু করে দিতে নির্দেশ

সিটিসেলের বন্ধ করা স্পেকট্রাম ২৪ ঘণ্টার মধ্যে চালু করে দিতে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) নির্দেশ দিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

এছাড়া স্পেকট্রাম বরাদ্দের লাইসেন্স বাতিলের সিদ্ধান্তও সংস্থাটিকে প্রত্যাহার করতে বলেছেন আদালত।

মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দিয়েছেন।

আদালত অবমাননার অভিযোগে সিটিসেলের এক আবেদনে ওই আদেশ দেয়া হয়।

এই শুনানিতে সিটিসেলের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী রোকনউদ্দিন মাহমুদ ও আহসানুল করিম। আর অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, কামরুল হক সিদ্দিক ও রেজা-ই রাব্বী খন্দকার ছিলেন বিটিআরসির পক্ষে।

পুড়িয়ে নারী হত্যায় ৮ জনের যাবজ্জীবন

চট্টগ্রামের মিরসরাই উপজেলায় ঘরে আগুন দিয়ে এক নারীকে হত্যার অভিযোগে ১৫ বছর আগের এক মামলায় আট আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত।

চট্টগ্রামের পঞ্চম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ মো. নূরে আলম সোমবার এ রায় ঘোষণা করেন।

দণ্ডিতরা হলেন- মো. সোবহান, তার ছেলে মোশাররফ, মো. জব্বার, মো. সেলিম, নূর হোসেন, দুই ভাই আবু তাহের ও জাফর এবং রফিক মাস্টার।

দণ্ডিতরা সবাই মিরসরাই উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের ভবানি গ্রামের বাসিন্দা।

আদালতের অতিরিক্ত পিপি লোকমান হোসেন চৌধুরী বলেন, ঘরে আগুন দিয়ে মর্জিনা বেগম নামের একজনকে হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত আটজনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন।

“পাশাপাশি প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা এবং অনাদায়ে আরও এক বছর করে সাজার আদেশ দেন।”

অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় সাহাব মিয়া ও সুফী মিয়া নামে মামলার অন্য দুই আসামি খালাস পেয়েছেন বলে জানান তিনি।

দণ্ডিতদের মধ্যে আবু তাহের, জাফর ও রফিক মাস্টার ঘটনার পর থেকেই পলাতক। অন্য পাঁচজন জামিন নিয়ে পলাতক হন বলে জানান অতিরিক্ত পিপি লোকমান হোসেন চৌধুরী।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০২ সালের ৬ জুলাই ভবানি গ্রামে নিজ বাড়িতে রাতের খাওয়া শেষে ঘুমাতে যান মর্জিনা বেগমের পরিবারের সদস্যরা। রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঘরের চারপাশে আগুন দিলে পরিবারের অন্য সদস্যরা ঘর থেকে বের হতে সক্ষম হন।

তবে মর্জিনা বেগম ও তার খালাতো ভাই শাহজাহান (শিশু) আগুনে দগ্ধ হন। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে মর্জিনাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক।

২০০২ সালের ৮ জুলাই নিহত মর্জিনার মা নূরজাহান বেগম বাদী হয়ে ১০ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন।

এ মামলায় ২০০৩ সালের ৭ জুন অভিযোগপত্র দেওয়া হয়। ১০ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয় ২০০৬ সালের ২ মে।

অতিরিক্ত জেলা পিপি লোকমান হোসেন চৌধুরী বলেন, ভবানি গ্রামে একটি খামারের জমি নিয়ে বিরোধের জেরে নুরজাহান বেগমের বাড়িতে আগুন দেওয়া হয়েছিল।

“মামলায় আট জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে সোমবার আদালত এ রায় দেন।”

৪৪ জনকে On the Spot রেজিস্ট্রেশন লাইসেন্স

চট্টগ্রাম নগরীর পাহাড়তলীতে BRTA কর্তৃক ৪৪ জনকে “On the Spot” মোটরযান রেজিস্ট্রেশন বিতরণ করা হয়।
অনুষ্ঠানে সেবাপ্রার্থীদের মাঝে লাইসেন্স বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো: মমিনুর রশীদ।
আরো উপস্থিত ছিলেন উপ-পরিচালক মোহাম্মদ শহীদুল্লাহ, সহকারী পরিচালক, কে.এম মাহবুব কবীর, সহকারী পরিচালক(মেট্রো সার্কেল-১) তৌহিদুল হোসেন।

লাইসেন্স বিতরণ চলাকালীন সময়ে সেবাপ্রার্থীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা দেখা যায়। জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের তত্ত্বাবধানে BRTA,চট্টগ্রাম কর্তৃক ভ্রাম্যমাণ রেজিস্ট্রেশন বিতরণ কার্যক্রম নিয়মিত করার জন্য অনেক সেবাপ্রার্থী অনুভূতি ব্যক্ত করেন।স্বল্প সময়ে মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন বিতরণে উপস্থিত প্রধান অতিথি সেবাপ্রার্থীদের মোটরযান অধ্যাদেশ-১৯৮৩ তে বর্ণিত আচরণমালা ও আইন মেনে চলতে আহ্বান জানান। এছাড়া তিনি নিরাপদ সড়ক ও পরিবহণ ব্যবস্থা সম্পর্কে আলোকপাত করেন।

চাল পাচারকালে আটক ৫ খাদ্য কর্মকর্তা রিমান্ডে

চট্টগ্রাম নগরীতে ১৫৫ মেট্রিকটন সরকারি চাল পাচার এবং পাচারের সাথে জড়িত আটক পাঁচ খাদ্য কর্মকর্তাকে একদিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দিয়েছেন আদালত। রবিবার দুপুরে চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম হারুনুর রশিদের আদালত এ নির্দেশ দেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী জানান, সরকারি চাল পাচারের অভিযোগে খাদ্য অধিদপ্তরের এক কর্মকর্তাসহ আটক পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। পরে আদালত শুনানি শেষে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, ১৭ জুলাই (সোমবার) রাত থেকে মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত নগরীর হালিশহর সিএসডি গোডাউন ও সিটি গেইট সংলগ্ন অপর একটি বেসরকারি গুদামে অভিযান চালিয়ে সাত ট্রাক ভর্তি ১৫৫ মেট্রিক টন (৩ হাজার ৯৬ বস্তা) সরকারি চাল পাচারেরকালে জব্দ করে র‌্যাব। পাচারের কাজে জড়িত থাকায় পাঁচ খাদ্য কর্মকর্তাকে আটক করা হয়। তারা হলেন-ম্যানেজার প্রণয়ন চাকমা (৪৭), শামসুল হুদা (৪৮), মিজান (২২), শফি আলম (২৭) ও মো, ওসমান (৪৫)।

এ ঘটনায় র‌্যাব-৭ এর নায়েক সুবেদার জহির উদ্দিন বাদী হয়ে নগরীর হালিশহর থানায় একটি মামলা করেন।

৩ চলচ্চিত্রে শাকিবের কাজ করতে বাধা নেই

চিত্রনায়ক শাকিব খানের সঙ্গে কাজ না করার বিষয়ে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবারের এক সিদ্ধান্ত তিনটি চলচ্চিত্র নির্মাণের ক্ষেত্রে স্থগিত করেছে হাইকোর্ট। একটি চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের পক্ষে দায়ের করা রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের বেঞ্চ রোববার রুলসহ এ আদেশ দেয়।

এই আদেশের ফলে ওই তিন চলচ্চিত্রে শাকিবের কাজ করায় কোনো আইনি বাধা থাকলো না বলে রিটকারী পক্ষের আইনজীবীদের দাবি। ওই তিন চলচ্চিত্র হলো—আমি নেতা হবো, মামলা হামলা ঝামেলা ও কথা দিয়ে কেউ কথা রাখে না। এগুলি নির্মাণ করছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়া।

চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট ১৮টি সংগঠনের জোট বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার গত ১৮ জুলাই শাকিবকে বয়কটের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে ওই বিজ্ঞপ্তিটি জারি করে। তিনটি চলচ্চিত্র নির্মাণের ক্ষেত্রে ওই প্রেস বিজ্ঞপ্তির কার‌্যকারিতা স্থগিত চেয়ে আবেদনটি করেন শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার মো. সেলিম খান।

আদালতে রিট আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ। সঙ্গে ছিলেন ব্যারিস্টার এম মনিরুজ্জামান আসাদ। পরে মনিরুজ্জামান বলেন, শাপলা মিডিয়ার তিনটি চলচ্চিত্রে ওই বিজ্ঞপ্তির স্থগিত করায় সেগুলোর নির্মাণের কাজ শুরুতে আইনি বাধা নেই। ওই তিনটির মধ্যে একটি চলচ্চিত্রের নির্মাণকাজ ২৫ জুলাই থেকে শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

বার কাউন্সিল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ১১৮৪৬

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সনদ নিয়ে আইন পেশা শুরু করার জন্য আইনজীবী তালিকাভুক্তির নৈর্ব্যক্তিক (এমসিকিউ) পরীক্ষায় ১১ হাজার ৮শ ৪৬ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। শনিবার বার কাউন্সিল সচিব মোহাম্মদ আনিসুর রহমান স্বাক্ষরিত এই ফল প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে। এর আগে শুক্রবার ঢাকায় এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

বার কাউন্সিল সূত্র অনুযায়ী এবার প্রায় ৩৪ হাজার ২শ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছিল। এর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১১ হাজার ৮শ ৪৬ জন। গত বছর কোনো পরীক্ষা অনুষ্ঠিত না হওয়ায় এবার পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের আইনজীবী তালিকাভুক্তির পরীক্ষা তিন ধাপে হয়ে থাকে। প্রথম ধাপে একজন শিক্ষার্থীকে প্রিলিমিনারি তথা নৈর্ব্যক্তিক পরীক্ষা দিতে হয়।নৈর্ব্যক্তিকে যারা পাস করেন তারা লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেন। লিখিত পরীক্ষায় যারা পাস করেন তারা মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেন। মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণের পর আইনজীবী তালিকাভুক্তির চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করা হয়।

‘অতি উৎসাহী’ সাময়িক বহিষ্কার

ইউএনও’র বিরুদ্ধে মামলাকাণ্ডে বরিশালের ‘অতি উৎসাহী’ সেই নেতাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

শুক্রবার আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ বলেন, অতি উৎসাহী হয়ে ইউএনওর বিরুদ্ধে মামলা করেছে সাজু। এ কারণে তাকে সাময়িক বহিষ্কারের এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

তিনি আরো জানিয়েছেন, ওবায়েদ উল্লাহ সাজুকে কেনো স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না তা জানতে চেয়ে নোটিস দেয়ার সিদ্ধান্তও হয়েছে।

এর আগে বঙ্গবন্ধুর ছবি কার্ডে ছাপানো নিয়ে ‘অতি উৎসাহী হয়ে’ ইউএনও বিরুদ্ধে মামলা করেন বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক ওবায়েদ উল্লাহ সাজু।

সাজুর করা মামলায় বরিশালের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তারিক সালমানের কয়েক ঘণ্টা হাজতবাস ও হেনস্তা নিয়ে সারা দেশে সমালোচনার মধ্যে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের এই সিদ্ধান্ত এল।

গতকাল ১৪টি আটক ও ১৮৯টি গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা

যানবাহনের অনিয়ম বন্ধে মঙ্গলবার থেকে পাঁচদিনব্যাপী বিশেষ অভিযান শুরু করে ট্রাফিক বিভাগ। অভিযানের দ্বিতীয় দিনে গতকাল নগরীতে ১৪টি গাড়ি আটক ও ১৮৯টি গাড়ির বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।
গাড়ির রেজিস্ট্রেশন, ফিটনেস ও রুট পারমিটবিহীন বাস চলাচল বন্ধে এবং জনজীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ট্রাফিক বিভাগ অভিযান শুরু করলে আটক, মামলা ও জরিমানা এড়াতে গতকালও সকাল থেকেই বাস মিনিবাস ও টেম্পো শূন্য হয়ে পড়ে নগরী। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েন গণপরিবহনের যাত্রীরা। বিশেষ করে সকালে অফিসগামী ও বিকেলে অফিস ফেরত লোকজন ও স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা অবর্ণনীয় দুর্ভোগে পড়েন।
সকালের দিকে নগরীতে বড় বাস চলাচল একেবারেই কমে যায়। এ সময় কিছুসংখ্যক মিনিবাস, হিউম্যান হলার, টেম্পো ও সিএনজি চলাচল করতে দেখা যায়। তবে তা ছিল প্রয়োজনের তুলনায় খুব কম। সে কারণে ঠেলাঠেলি করে এমনকি ঝুঁকি নিয়েও অনেককে গাড়িতে ঝুলে যাতায়াত করতে দেখা গেছে। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগে পড়েন শহরতলী থেকে নগরীতে আসা লোকজন। আটক ও মামলা এড়াতে অধিকাংশ গাড়িই শহরে না ঢুকে প্রবেশমুখ থেকে গাড়ি ফিরিয়ে নেন।
ভাটিয়ারি থেকে শহরে আসা-যাওয়া করে প্রতিদিন অফিস করেন শাহাবুদ্দিন নামের এক ব্যক্তি। তিনি বলেন, আধ ঘণ্টা অপেক্ষা করে যা-ও একটি হিউম্যান হলার পাই সেটি সিটি গেট পর্যন্ত এসে যাত্রীদের নামিয়ে দেয়। সেখান থেকে দেওয়ানহাট যেতে অনেক কাঠখড় পোড়াতে হয়। বাদুরঝোলা হয়ে কিছুদূর টেম্পোতে এবং বাকি পথ রিকশায় যেতে বাধ্য হই।
জিইসি মোড়ে গাড়ির অপেক্ষায় এদিক ওদিক ছুটে চলা এক গৃহবধূ বলেন, ছেলেকে নিয়ে কলেজিয়েট স্কুলে যাচ্ছি। কিছুক্ষণের মধ্যেই তার পরীক্ষা। কিন্তু কোন গাড়ি পাচ্ছি না। মাঝে মধ্যে যে দু’একটা বাস আসছে সেগুলোতে ওঠাই যাচ্ছে না। রিকশায় যেতে চাচ্ছি, ভাড়া দাবি করছে দ্বিগুণ।
বিশেষ অভিযানের কারণে রাস্তা থেকে গাড়ি উধাও হয়ে যাওয়ার কারণ কি জানতে চাইলে মেট্রো পরিবহণ মালিক গ্রুপের মহাসচিব বেলায়েত হোসেন বেলাল বলেন, রাস্তায় গণপরিবহণের কোন সংকট ছিল না। সকালে অফিস যাওয়া-আসার সময় আগের মতোই কিছু গাড়ি রিজার্ভ ভাড়ায় চলে যাওয়ায় এই সময়ে গাড়ির কিছুটা সংকট দেখা দেয়। সেটি তো আগে থেকেই ছিল।
তবে নগর পরিবহণ মালিকদের ছয় সংগঠনের জোট চট্টগ্রাম সিটি সড়ক পরিবহন মালিক ফেডারেশনের মহাসচিব অধ্যাপক এস এম তৈয়ব বলেন, হঠাৎ করে কোন পূর্ব ঘোষণা ছাড়া ঢালাওভাবে অভিযান চালিয়ে শত শত গাড়ি আটক দেশের ইতিহাসে নজিরবিহীন। মালিকরা এতে আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে পড়ে রাস্তায় গাড়ি নামানো বন্ধ করে দিয়েছেন। তাই গতকাল ৮০ শতাংশ নগর গণপরিবহনই রাস্তায় নামেনি। প্রশাসনের পদক্ষেপের প্রতি সম্মান দেখিয়েই আমরা আগামী রবিবার পর্যন্ত অভিযান বন্ধ রাখার অনুরোধ জানাচ্ছি। তিনি বলেন, রবিবার পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে আমরা (পরিবহন মালিকরা) চলমান পরিস্থিতি নিয়ে বসবো।
নগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) দেবদাস ভট্টাচার্য জানান, গাড়ির ফিটনেস, রেজিস্ট্রেশন, রুট পারমিট, ইন্সুরেন্সসহ পরিবহনে শৃঙ্খলা বাড়াতে অভিযান চলছে। মোটরযান অধ্যাদেশ অনুযায়ী মঙ্গলবার থেকে শুরু হওয়া অভিযান আগামী ২২ জুলাই পর্যন্ত চলবে বলে জানান তিনি।

Scroll To Top