৩ ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

প্রকাশ:| রবিবার, ২৮ জুলাই , ২০১৩ সময় ০৮:০৯ অপরাহ্ণ

বন্দরনগরী চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে নৈতিক অবক্ষয়ের দায়ে চাকরি হারানো পুলিশ সদস্যসহ তিন ctg centaikare-policeছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তারা ভূয়া পুলিশের পরিচয় দিয়ে ছিনতাই করতো।

শনিবার রাতে ও রোববার সকালে নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে এই তিন ছিনতাইকারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, আবদুল হাকিম ওরফে হাকিম পুলিশ (৩৮), মো. একরাম (৩৫) ও সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালক মো. শফিউল্লাহ (৩৫)।

প‍ুলিশ সূত্র জানায়, আটক তিন ছিনতাইকারীর কাছ থেকে এক জোড়া হ্যান্ডক্যাপ সেট, দু’রাউন্ড কার্তুজ, একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়। ছিনতাই কাজে ব্যবহৃত সিএনজি চালিত অটোরিকশাও উদ্ধার করে পুলিশ। এ ব্যাপারে কোতোয়ালী থানায় দু’টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মহিউদ্দিন সেলিম বলেন,‘গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে প্রথমে হাকিমকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাকি দু’জনের একজনকে পাঁচলাইশ ও আরেকজনকে সিআরবি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’

তিনি জানান, শনিবার রাতে নগরীর মিসকিন শাহ (রহ.) মাজার মসজিদে তারাবির নামাজ পড়ে বাসায় যাচ্ছিলেন হোসাইন মোহাম্মদ সাজ্জাদ। গণি বেকারীর মোড়ে হাকিমের নেতৃত্বে ছিনতাইকারীর দল সিএনজিচালিত অটোরিকশা নিয়ে এসে সাজ্জাদের পথ রোধ করে। তাকে ডিবি অফিসে যাওয়ার জন্য অটোরিকশায় উঠতে বলেন।

কিন্তু তাদের আচরণ সন্দেহজনক হওয়ায় সাজ্জাদ চিৎকার শুরু করেন। তার চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ছুটে আসেন এবং হাকিমকে আটক করে। এসময় অন্যরা পালিয় যেতে সক্ষম হয়। পরে হাকিমকে পুলিশে সোপর্দ করেন লোকজন।

এদিকে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ছিনতাইকারী দলের প্রধান হাকিমের বিরুদ্ধে নগরীর তিন থানায় আরও পাঁচটি মামলা রয়েছে। হাকিম প্রায় ১২ বছর আগে পুলিশ বাহিনীতে চাকরি করলেও নৈতিক অবক্ষয়ের জন্য তাকে চাকরিচ্যূত করা হয়।

এরপর থেকে তিনি নগরী ও চট্টগ্রাম জেলার বিভিন্ন এলাকায় ভূয়া পুলিশ পরিচয় দিয়ে ছিনতাই, অপহরণ ও ডাকাতি করে আসছেন।