‘লুকিয়ে থাকা সুপ্ত প্রতিভা-সম্ভাবনাকে শক্তিতে রূপান্তরের মাধ্যম হচ্ছে শিক্ষা’

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| রবিবার, ৫ আগস্ট , ২০১৮ সময় ০৬:৫৫ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত ৬টি স্কুল ও কলেজের পরিচালনা কমিটির এক সভা চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কনফারেন্স হলে আজ রবিবার সকালে অনুষ্ঠিত হয়। স্কুল ও কলেজ পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান সিটি মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন সভায় সভাপতিত্ব করেন। সভায় সংশ্লিস্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগণ এবং স্কুল ও কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় অর্পণা চরন সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজ এর গভর্নিংবডির অভিভাবক সদস্য বিশিষ্ট সমাজসেবক এ এ এম সাইফুদ্দিন, মো. ওমর আলী ফয়সল, মিসেস শাহীন আকতার, শিক্ষক প্রতিনিধি আজমেরী বেগম, দীপেন কান্তি চৌধুরী, অধ্যক্ষ জারেকা বেগম, কেবিএ এইচ সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য একরামুল হক, এসকান্দর মিয়া, মিসেস রুনা লায়লা, শিক্ষক প্রতিনিধি মো. জাফর উল্লাহ প্রধান শিক্ষক(ভারপ্রাপ্ত)আবদুস সালাম, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন মিউনিসিপ্যাল মডেল স্কুল এন্ড কলেজ এর অভিভাবক প্রতিনিধি মুহাম্মদ সাদেক হোসেন, শিক্ষক প্রতিনিধি মুহাম্মদ আব্দুল হক, এস এম জহিরুল ইসলাম সিদ্দিকী, ইসরাত ফারহানা, ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সাহেদুল কবির চৌধুরী, আয়ুব বিবি সিটি কর্পোরেশন স্কুল ও কলেজ এর অভিভাবক প্রতিনিধি এম এ মারুফ, শিক্ষক প্রতিনিধি শ্যামা প্রসাদ বিশ্বাস, মুহাম্মদ রেজাউল করিম, ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মাহফুজুর রহমান, পূর্ব বাকলিয়া সিটি কর্পোরেশন গার্লস হাই স্কুল এন্ড কলেজ এর অভিভাবক প্রতিনিধি আলহাজ্ব হারুন উর রশিদ, আলহাজ্ব আব্দুল করিম, কাজী শাহিনা সুলতানা, শিক্ষক প্রতিনিধি সাগর কান্তি দে, সদস্য সচিব ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মোহাম্মদ আবু তালেব, পাথরঘাটা মেনকা সিটি কর্পোরেশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় এর অভিভাবক প্রতিনিধি মিসেস শিউলি চক্রবর্তী, এম ইকবাল বাহার, সদস্য মিসেস ফাতেমা বেগম, মো. জসিম উদ্দিন, সদস্য সচিব হরিনারাফা ভট্টচার্য্য প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভাপতি সিটি মেয়র এই সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো শিক্ষক স্বল্পতা,প্রয়োজনীয় অবকাঠামোর অভাব ও বিভিন্ন সমস্যার কথা মনযোগ দিয়ে শুনেন। তিনি অচিরেই এই সমস্ত সমস্যা নিরসনের আশ্বাস দেন। সিটি মেয়র বলেন শিক্ষা অতীত সংস্কৃতির বাহক, বর্তমান সভ্যতার পৃষ্ঠপোষক এবং ভবিষ্যৎ প্র্রগতির ধারক। মানুষের ভিতরে যে সুপ্ত প্রতিভা, সম্ভাবনা লুকিয়ে থাকে তা শক্তিতে রূপান্তরের মাধ্যম হচ্ছে শিক্ষা। সিটি মেয়র আরো বলেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে শিক্ষা কার্যক্রম একটি ঐতিহাসিক উদ্যোগ। বহুকাল পূর্ব থেকে এ শিক্ষা ব্যবস্থা চলমান ছিল। এই উদ্যোগ সর্বাগ্রে যাঁর নাম উচ্চারিত হয় তিনি হলেন মরহুম নুর আহম্মদ চেয়ারম্যান। পরবর্তীকালে প্রশাসক-মেয়রগণ তাঁর স্বপ্নকে আরো বেগবান ও সৃমদ্ধ করেছেন। বর্তমানে চসিক ৯০ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছে। এই খাতে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন প্রায় ৪৩ কোটি টাকা ভূর্তকী দিচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। মেয়র আগামী সভা থেকে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর মাসওয়ারী আয়-ব্যয়ের হিসাব নিকাশ সঠিক ও যথোপযুক্তভাবে উপস্থাপনের জন্য আহবান জানান। সংশ্লিষ্ট শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানগণ বিগত সভার কার্যবিববরণী মেয়র বরাবরে উপস্থাপন করলে তা পরিচালনা পর্ষদের সকল সদস্যের সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।