রোহিঙ্গাদের অস্থায়ীভাবে ভাসানচরে নিয়ে যাওয়া হবে

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১২ জুন , ২০১৮ সময় ১০:১৯ অপরাহ্ণ

উখিয়ায় প্রধানমন্ত্রীর ঈদ শুভেচ্ছা বিতরণকালে মায়া
কায়সার হামিদ মানিক,উখিয়া।
‘বলপ্রয়োগে বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের রোহিঙ্গা নাগরিকদের অস্থায়ীভাবে ভাসানচরে নিয়ে যাওয়া হবে। তাদের অবশ্যই সন্মানের সঙ্গে মিয়ানমার ফিরিয়ে নেবে।’ মঙ্গলবার সকালে উখিয়া বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজ মাঠ প্রাঙ্গণে উখিয়ার ১২ হাজার ৫০০ পরিবারের মাঝে প্রধানমন্ত্রীর পাঠানো উপহার সামগ্রী বিতরণের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধনকালে দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম এ কথা বলেন। এ সময় ত্রাণমন্ত্রী মায়া আরও বলেন, উখিয়া টেকনাফের স্থানীয়রা যেভাবে নিজেদের জায়গা, জমি, ঘরবাড়ি মিয়ানমারের বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা নাগরিকদের জন্য উৎসর্গ করেছে সে কথা প্রধানমন্ত্রী ভোলেননি। তাই স্থানীয়দের কথা চিন্তা করে তিনি কক্সবাজার জেলাবাসীর জন্য ১০ কোটি টাকার বিশেষ বরাদ্দ প্রদান করেছেন। মায়া বলেন সেই টাকা বন্টনের জন্য দূর্যোগ মোকাবেলা করে এখানে উপস্থিত হয়েছেন। এ টাকা পর্যায়ক্রমে কক্সবাজারের ৮ উপজেলার ৩৩ হাজার ৩৩৪টি পরিবারের মাঝে তুলে দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে পাঠানো এসব উপহার সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে নগদ ২ হাজার টাকা, ২ কেজি পোলাউ চাল,১ কেজি চিনি, ৫শ গ্রাম গুড়া দুধ, ৪ প্যাকেট লাচ্ছা সেমাই, ১ লিটার তেল ও ১টি রুহ আফজা সরবত। আর তা পর্যায়ক্রমে কক্সবাজারের ৮ উপজেলার ৩৩ হাজার ৩৩৪টি পরিবারের মাঝে তুলে দেওয়া হবে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ত্রাণ সচিব শাহ কামাল, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মোঃ আব্দুল মান্নান, শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোঃ আবুল কালাম, জেলা পুলিশ সুপার ড. এ এইস এম ইকবাল হোসেন, উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিকারুজ্জামান চৌধুরী,উখিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী,সাধারণ সম্পাদক ও রাজাপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী প্রমুখ।


আরোও সংবাদ