৭টিতে সবার মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে বৈধ

প্রকাশ:| শনিবার, ৫ ডিসেম্বর , ২০১৫ সময় ১০:৪৮ অপরাহ্ণ

পৌরসভা নির্বাচনচট্টগ্রামের ১০ পৌরসভায় শনিবার ৭টিতে ৩১ মেয়র প্রার্থীর সবার মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে বৈধ ঘোষিত হয়েছে। কাউন্সিলর পদে বাছাইয়ে বাদ পড়েছেন চারজন। স্থগিত রাখা হয়েছে পাঁচজন কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র। বাকি তিনটি (সীতাকুণ্ড, মিরসরাই এবং বারইয়ারহাট) পৌরসভায় মনোনয়নপত্র বাছাই রোববার ঘোষণা করা হবে। উল্লেখ্য, চট্টগ্রামের ১০ পৌরসভায় মেয়র পদে ৪৬ জন এবং সংরক্ষিত ও সাধারণ মিলিয়ে কাউন্সিলর পদে ৪৭৩ মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন।
শনিবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত স্ব-স্ব পৌরসভার উপজেলা সদরে রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হয়। যে সাতটি পৌরসভায় বাছাই কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে সেগুলো হচ্ছে রাউজান, রাঙ্গুনিয়া, বাঁশখালী, পটিয়া, চন্দনাইশ, সাতকানিয়া এবং সন্দ্বীপ।
চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আব্দুল বাতেন বলেছেন, ১০ পৌরসভার মধ্যে ৭টি বাছাই শেষে রিটার্নিং অফিসার প্রার্থীদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন। বাকিগুলোতে রোববার বাছাই হবে। এরপর সমন্বিত তালিকা প্রকাশ করা হবে।
রাউজানে মেয়র পদে ৬ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ১৩ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে পাঁচজন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছিলেন। শনিবার মেয়র ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদের মনোনয়নপত্র বাছাই শেষে সবাইকে বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।
রাঙ্গুনিয়ায় মেয়র পদে ৮ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪০ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১২ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। কারও মনোনয়নপত্রে ত্রুটি পাওয়া যায়নি।
সন্দ্বীপে মেয়র পদে ২ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৭ জন মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছিলেন। এর মধ্যে সংরক্ষিত একজন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে চারজনের বাছাইয়ের ফলাফল ঘোষণা স্থগিত রেখেছেন রিটার্নিং অফিসার। পুলিশের কাছ থেকে মামলার তথ্যপ্রাপ্তি সাপেক্ষে সেগুলো রোববার ঘোষণা করা হবে।
সাতকানিয়ায় মেয়র পদে ৩ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪০ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৬ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। এর মধ্যে ছয় নম্বর ওয়ার্ডের এনামুল হক নামের একজন কাউন্সিলর প্রার্থীর হলফলামায় অসম্পূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে মামলা আছে বলে একজন লিখিত অভিযোগ করেছেন। সেজন্য মনোনয়ন=পত্রটি বাতিল করা হয়েছে।
চন্দনাইশে মেয়র পদে ৪ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪৫ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৫ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। সব প্রার্থী বৈধ।
বাঁশখালীতে মেয়র পদে ৩ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৯ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১১ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। এর মধ্যে একজন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল হয়েছে।
পটিয়ায় মেয়র পদে ৫ জন, সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪৫ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ১০ জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। এর মধ্যে একজন সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিল করা হয়েছে। –


আরোও সংবাদ