৫ জানুয়ারি মার্কা নির্বাচনের জন্য সার্চ কমিটি

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৭ জানুয়ারি , ২০১৭ সময় ১১:১৯ অপরাহ্ণ

বিএনপি’র কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান বলেছেন, আওয়ামীলীগ ৫ জানুয়ারি মার্কা আরেকটি নির্বাচন করার জন্য বর্তমান সার্চ কমিটি গঠন করেছে। এই সার্চ কমিটি দেখে জনগণ হতাশ ও ক্ষুব্ধ। গণতন্ত্রকে বিসর্জন দিয়ে ২০১৪ সালে আওয়ামীলীগ একতরফা ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে যে নির্বাচন করেছিল ঠিক একই কায়দায় আরেকটি নির্বাচন করার জন্য জনগণকে হতাশায় ডুবিয়ে আরেকটি দলীয় সার্চ কমিটি গঠন করা হয়েছে। ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে আবারও ক্ষমতায় আসতে সরকার আগামি নির্বাচনকেও কলুষিত করবে। তিনি আরো বলেন, বিএনপি একটি নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠু নির্বাচন এবং জনগণের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে আন্দোলন করছে। বিএনপি মনে করে একটি নিরপেক্ষ নির্বাচনকালীন সরকারের মাধ্যমে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব। আওয়ামীলীগ জনগণের ভোটে বিশ্বাসী নয়, এজন্য তারা নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে ষড়যন্ত্র করছে। বিএনপি’র ভাইস চেয়ারম্যান মো. শাহজাহান বলেন, দক্ষ সংগঠক আসলাম চৌধুরী তার সাংগঠনিক পরিচয় ইতিমধ্যে দিয়েছে। এজন্য সরকার ষড়যন্ত্র করে তাকে কারাগারে আটকে রেখেছে। তিনি নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে আসলাম চৌধুরীর মুক্তির দাবিতে গণআন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান। বিএনপি’র কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান অদ্য ২৭ জানুয়ারি শুক্রবার বিকাল ৪টায় নাসিমন ভবন দলীয় কার্যালয়ে বিএনপি’র যুগ্ম মহাসচিব ও উত্তর জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক আসলাম চৌধুরীর মুক্তির দাবিতে উত্তর জেলা যুবদল আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন।

উত্তর জেলা যুবদলের সভাপতি কাজী মো. সালাহ উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সোলায়মান মঞ্জুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি মোহাম্মদ শাহজাহান। প্রধান বক্তা ছিলেন বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক (চট্টগ্রাম বিভাগ) মাহবুবের রহমান শামীম। বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. ফাওয়াজ হোসেন শুভ, বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক হারুন অর রশীদ আজাদ, সাবেক সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর, বিএনপি’র জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মশিউর রহমান বিপ্লব, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপি’র সাবেক সহ-সভাপতি মো. আবদুল হালিম, সহ-সভাপতি ইউনুছ চৌধুরী, চাকসু ভিপি নাজিম উদ্দিন, ইসহাক কাদের চৌধুরী, আলহাজ্ব ছালা উদ্দিন, নুরুল আমিন, সেকান্দর চৌধুরী, পেশাজীবী নেতা ডা. খুরশিদ জামিল, মিরসরাই উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আমিন, সাবেক যুগ্ম সম্পাদক আবু তাহের, আবদুল আউয়াল, সেলিম চেয়ারম্যান, মহানগর যুবদলের সভাপতি কাজী বেলাল, সাধারণ সম্পাদক মোশারফ হোসেন দ্বীপ্তি, ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, সাইফুর রহমান শপথ, কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সহ-সভাপতি সরওয়ার উদ্দিন সেলিম। এতে বক্তব্য রাখেন হাটহাজারী উপজেলা যুবদল সভাপতি জাকের হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শাহেদুল আজম, রাঙ্গুনীয়া উপজেলা যুবদল সভাপতি অধ্যাপক কুতুব উদ্দিন বাহার, সীতাকুন্ড উপজেলা যুবদল সভাপতি ফজলুল করিম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন রাজু, মিরসরাই উপজেলা যুবদল আহ্বায়ক শাহীনুল ইসলাম স্বপন, সন্দ্বীপ উপজেলা যুবদল আহ্বায়ক ফোরকান উদ্দিন রিজভী, সদস্য সচিব গাজী মো. হানিফ, সন্দ্বীপ পৌর যুবদল সভাপতি নাছির উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক শওকত তালুকদার, সীতাকুন্ড পৌর যুবদল সভাপতি সেলিম উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক অমলেন্দু কনক, রাঙ্গুনীয়া পৌর যুবদল সভাপতি আবদুস শুক্কুর, সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল আলম, বারইয়ার হাট পৌর যুবদল সম্পাদক নুরুল আবছার মিয়াজী, মো. মুজিব, জেলা যুবদলের প্রচার সম্পাদক একরামুল্লাহ নয়ন, যুবদল নেতা জি.এম সাইফুল, আলাউদ্দিন আহমেদ, খোরশেদ আলম, একরামুল হক, সেলিম মাহমুদ, মো. ইউসুফ,মো. শাহাদাত হোসেন, ইফতেখার মাহমুদ জিপসন, মো. মোবিন উদ্দিন, আবু নোমান, সাইফুল, প্রমুখ। প্রেস রিলিজ