৪০টি রেস্তোরাঁ অংশ নিচ্ছে ভোজনরসিকদের মেলায়

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি , ২০১৮ সময় ১২:২৯ পূর্বাহ্ণ

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের ফুড লাভারস গ্রুপ ‘ফুড মনস্টারস’র আয়োজনে নগরীর স্বাধীনতা কমপ্লেক্সে বসেছে ভোজনরসিকদের মেলা।

হুইজ কমিউনিকেশনসের ব্যবস্থাপনায় শুক্রবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) শুরু হয়েছে দুই দিনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উৎসব। এ উৎসবে চট্টগ্রামের ৪০টি রেস্তোরাঁ অংশ নিচ্ছে।

সন্ধ্যা ছয়টায় উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ট্রাফিক) কুসুম দেওয়ান।

অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন স্পিকার্স কাউন্সিলের প্রধান নির্বাহী ইমরান আহমেদ, চট্টগ্রাম জুনিয়র চেম্বারের সভাপতি মাসফিক আহমেদ রুশাদ ও  দৃষ্টি চট্টগ্রামের সভাপতি মাসুদ বকুল। অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন হুইজ কমিউনিকেশন পরিচালক (প্রশাসন) কাজী আরফাত ও ফুড মনস্টারস’র প্রধান অ্যাডমিন বৃষ্টি ইসলাম।

কুসুম দেওয়ান বলেন, ফুড মনস্টারস বর্তমানে শুধু একটি ফেসবুক গ্রুপ নয়, এটি একটি প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। একটি মেলবন্ধন তৈরি করছে তারা, যার মাধ্যমে শুধু ভোজনরসিক ও রেস্তোরাঁ মালিকদের যোগসূত্র তৈরি হচ্ছে না বরং নতুন উদ্যোক্তা তৈরি হচ্ছে, যা ভবিষ্যৎ বাংলাদেশের জন্য অনেক বেশি আশা সঞ্চার করে।

ইমরান আহমেদ বলেন, বর্তমানে খাবার নিয়ে মানুষ অনেক বেশি সংবেদনশীল। তারা শুধু খেতে চায় না, তারা চায় খাবারের ভালো মান ও আসল স্বাদ।

দৃষ্টি চট্টগ্রামের সভাপতি মাসুদ বকুল বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের ডিজিটালাইজেশনের একটি রূপরেখা হলো তরুণদের বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সম্পৃক্ত করা ও এর মাধ্যমে উন্নয়ন ধারায় অবদান রাখা। ফুড মনস্টারস তরুণদের সম্পৃক্ত করে একটি শক্তিশালী কমিউনিটি তৈরি করেছে যার মাধ্যমে তরুণরা তাদের মতামত প্রকাশ করছে ও গঠনমূলক সমালোচনার মাধ্যমে উন্নয়ন ধারায় যুক্ত হচ্ছে।

প্রথম দিনের অনুষ্ঠান সূচিতে ছিল দৃষ্টি চট্টগ্রামের পরিবেশনায় মূকাভিনয়, ইউএসটিসির শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও দৃষ্টি চট্টগ্রামের বিতার্কিকদের অংশগ্রহণে রম্য বিতর্ক। এছাড়াও ব্যান্ডদল ‘অধ্যায়’ তাদের সংগীতের মূর্ছনায় মাতিয়েছে উৎসব মঞ্চ।

সকালে মেলার উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন খালেদ।

শনিবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় শুরু হবে উৎসবের কার্যক্রম। বিকেলে দৃষ্টি চট্টগ্রাম পরিবেশন করবে রম্য বিতর্ক। আবৃত্তি অঞ্চল চৌধুরী, মিলি চৌধুরী, রাশেদ হাসান, হাসান জাহাঙ্গীর, বনকুসুম বড়ুয়া, মুজাহিদুল ইসলাম, শ্রাবণী দাশ ও শ্রুতি। সংগীত মূর্ছনায় মাতাবে ব্যান্ডদল ‘আনসার্টেইন’ ও

‘ব্যান্ড নাম্বার ১৬/৭১’। এ থাকবে স্ট্যান্ডআপ কমেডি, গেইম শো ও ডিজে।সন্ধ্যা ছয়টায় সমাপনী আয়োজনে সম্মাননা প্রদান করা হবে চট্টগ্রামের ৩টি ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠান গনি বেকারি, লিবার্টি আইসক্রিম, রয়েল হাট রেস্টুরেন্টকে। প্রধান অতিথি থাকবেন দৈনিক পূর্বকোণ’র ব্যবস্থাপনা সম্পাদক জসিম উদ্দিন চৌধুরী। বিশেষ অতিথি থাকবেন বিশিষ্ট শিশুসংগঠক তৌহিদুল আনোয়ার, চসিক কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, বারকোড ক্যাফে গ্রুপের স্বত্বাধিকারি মঞ্জুরুল হক।