৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদের কেন্দ্রে পৌঁছার আহবান

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| রবিবার, ১ এপ্রিল , ২০১৮ সময় ১১:৫৯ অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে উচ্চ মাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষায় এবার ২৫৩ প্রতিষ্ঠানের ৯৭ হাজার ৬৮৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। মহানগরীসহ, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার ও তিন পাবর্ত্য জেলার ১০০টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

চট্টগ্রামসহ সারাদেশে একযোগে সোমবার (২ এপ্রিল) বাংলা প্রথম পত্রের মধ্য দিয়ে এ পরীক্ষা শুরু হয়ে চলবে ১৩ মে পর্যন্ত। পরবর্তীতে নির্ধারিত তারিখ অনুসারে ব্যবহারিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এদিকে, শিক্ষাবোর্ড কর্তৃপক্ষ সোমবার থেকে শুরু হওয়া এ পরীক্ষায় ৩০ মিনিট আগে কেন্দ্রে পৌঁছার আহবান জানিয়েছে।

স্ব স্ব কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীদের ৩০ মিনিট আগে পৌঁছানোর আহবান জানিয়ে চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মাহবুব হাসান, ‘সারাদেশে একযোগে সোমবার থেকে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হবে। এবার চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে ২৫৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৯৭ হাজার ৬৮৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। ইতিমধ্যে পরীক্ষার্থীদের হাতে প্রবেশপত্র ও কেন্দ্র সচিবদের পরীক্ষার্ যাবতীয় কাগজপত্র পৌঁছে দেয়া হয়েছে। ১০০টি কেন্দ্রে পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনে গঠন করা হয়েছে ১০টি বিশেষ টিম ও ৪০টি সাধারণ টিম। এছাড়াও নেয়া হয়েছে সকল ধরনের প্রস্তুতি।’

শিক্ষাবোর্ড সূত্রে জানা যায়, চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের অধীনে গতবছর থেকে ১৫টি বেড়ে এবার এইচএসসিতে ২৫৩টি কলেজের ৯৭ হাজার ৬৮৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। এর মধ্যে ৪৮ হাজার ১১ জন ছাত্র এবং ৪৯ হাজার ৬৭৩ জন ছাত্রী।

বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এবছর অংশ নেবে ২০ হাজার ৬৫৪ জন (ছাত্র ১১ হাজার ৬৭৯ ও ছাত্রী ৮ হাজার ৯৭৫ জন)। ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে অংশ নেবে ৩৮ হাজার ৮৩৬ জন (ছাত্র ২১ হাজার ২৩১ ও ছাত্রী ১৭ হাজার ৬০৫ জন)। মানবিক বিভাগ থেকে অংশ নেবে ৩৮ হাজার ১৮৬ জন (ছাত্র ১৫ হাজার ১০১ ও ছাত্রী ২৩ হাজার ৮৫ জন)।

গতবছর ৯৮টি কেন্দ্রে এইচএসসিতে ২৩৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৮৩ হাজার ২২৭ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিয়েছিল। এর মধ্যে ৪১ হাজার ৯৬১ জন ছাত্র এবং ৪১ হাজার ২৬৬ জন ছাত্রী।

এবার মোট পরীক্ষার্থীর মধ্যে নিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭৩ হাজার ৭০৩ জন। এরমধ্যে ছাত্রের সংখ্যা ৩৪ হাজার ৯৮৭ এবং ছাত্রী ৩৮ হাজার ৭১৬ জন। অনিয়মিত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২২ হাজার ৩৭১, মানোন্নয়নে ১ হাজার ৪২৭ এবং প্রাইভেট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১৮৩ জন।

মহানগরীসহ চট্টগ্রাম জেলায় এবার ৬৩টি কেন্দ্রে, কক্সবাজার জেলার ১৪টি কেন্দ্রে, রাঙামাটি জেলার ১০টি কেন্দ্রে, খাগড়াছড়ি জেলার ৯টি কেন্দ্রে, এবং বান্দরবান জেলার ৪টি কেন্দ্রে এ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক আরও বলেন, ‘নির্দেশনা অনুযায়ী গতবারের ন্যায় এবারও প্রথমে বহুনির্বাচনী (এমসিকিউ) ও পরে সৃজনশীল বা রচনামূলক (তত্ত্বীয়) অংশের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার্থীরা ৩০ নম্বরের এমসিকিউ পরীক্ষার ক্ষেত্রে ৩০ মিনিট এবং ৭০ নম্বরের সৃজনশীল পরীক্ষার ক্ষেত্রে আড়াই ঘণ্টা সময় পাবে। তবে ব্যবহারিক বিষয়ের এমসিকিউ পরীক্ষার ক্ষেত্রে ২৫ নম্বরের জন্য ২৫ মিনিট এবং ৫০ নম্বরের সৃজনশীল পরীক্ষার ক্ষেত্রে ২ ঘণ্টা ৩৫ মিনিট সময় পাবে।’