২৫ জেলার দুই লাখ পাঁচ হাজার কৃষককে বীজ ও সার প্রদান করা হবে

প্রকাশ:| রবিবার, ১২ অক্টোবর , ২০১৪ সময় ১১:৩১ অপরাহ্ণ

কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ২৫ জেলার দুই লাখ পাঁচ হাজার কৃষককে বীজ ও সার প্রদান করা হবে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী। উত্তরাঞ্চলে পুনর্বাসন এবং দক্ষিণাঞ্চলে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে।

রবিবার কৃষি মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, দুই লাখ পাঁচ হাজার কৃষককে বোরো ধান, গম, ভুট্টা, সরিষা, খেসারির বীজ ও সার প্রদান করা হবে। এই প্রকল্পে ব্যয় হবে ৩০ কোটি ৯৭ লাখ টাকা। এতে বোরো চাল উৎপাদন হবে ১৫ হাজার ৭৭৮ মেট্রিক টন, গম ৩৩ হাজার ৬৯ মে. টন, ভুট্টা ২৩ হাজার ৮৫৮ মে. টন, সরিষা ৩ হাজার ৪৫৬ মে. টন, খেসারি ১ হাজার ৭৯২ মে. টন, ফেলন ডাল উৎপাদন হবে ১ হাজার ২৪২ মে. টন, যার আর্থিক মূল্য হবে একশ ৮৯ কোটি ৩৭ লাখ টাকা।

মন্ত্রী বলেন, উজান থেকে নেমে আসা ঢলে ১৩ জেলার ৩ লাখ ৭ হাজার ৮০৩ হেক্টর জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অর্থের হিসাবে এই ক্ষতির পরিমাণ ৬৯৫ কোটি টাকা।

মতিয়া চৌধুরী বলেন, উত্তরের টাঙ্গাইল, ময়মনসিংহ, জামালপুর, শেরপুর, নেত্রকোনা, সিলেট, সুনামগঞ্জ, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, রংপুর, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম লালমনিরহাট ও নীলফামারী জেলার ৮৬ হাজার ৪৭৫ কৃষককে সহায়তা দেওয়া হবে।

অন্যদিকে, দক্ষিণাঞ্চলে কৃষকদের ফসল উৎপাদনে উৎসাহিত করার জন্য যশোর, নড়াইল, খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পিরোজপুর, পটুয়াখালী, বরগুনা, ভোলা ও গোপালগঞ্জ জেলার ১ লাখ ১৮ হাজার ৫৪০ জন কৃষককে সার ও বীজ দেওয়া হবে।

মন্ত্রী বলেন, এই সহায়তা হয়ত অনেক বেশি নয়। সবটা সরকার করতে পারে না। আমরা কৃষকের কাছে আছি, পাশে আছি। এটা জানান দিচ্ছি।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ হয়। অন্যরা এলে ঘাটতি হয়। এমন তো নয় যে, জমিজমা সব আকাশে উঠে যায়।

মন্ত্রী বলেন, প্লিজ, কৃষককে ছোট করবেন না। তারা আমাদের খাওয়ায়। আপনাদের যত খুশি, আমাকে নিয়ে লেখেন। আমাকে ডাম্পিং করেন। আল্লাহর রহমত আর কৃষকের মেহনতে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. এসএম নাজমুল ইসলাম, অতিরিক্ত সচিব আনোয়ার প্রমুখ।