২৪ অক্টোবরের পরও সংসদ চলতে বাধা নেই-প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ:| রবিবার, ১৩ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ১১:৫৮ অপরাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাপ্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘২৪ তারিখের (অক্টোবর) পর সংসদ চলতে পারবে না, এটা সংবিধানের কোথাও লেখা নেই। কেবল নির্বাচনকালীন সংসদ অধিবেশন বসার ক্ষেত্রে ৬০ দিনের বাধ্যবাধকতা নেই।’

সেই সঙ্গে বিরোধী দলের বিরোধিতা সত্ত্বেও সংসদের চলতি অধিবেশন চালিয়ে নেয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি।

রোববার গণভবনে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনের ফলে এখন সংসদের মেয়াদ শেষের আগের ৯০ দিনের মধ্যে অর্থাৎ ২৫ অক্টোবর থেকে ২৪ জানুয়ারির মধ্যে আগামী সংসদ নির্বাচন হবে। এই সময়ে সরকারে থাকবে আওয়ামী লীগ এবং সংসদও বহাল থাকবে।’

বিরোধী দল বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ২৪ অক্টোবরের কর্মসূচির ঘোষণা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘বিরোধী দলের নেতা (খালেদা জিয়া) বলছেন, ২৪ অক্টোবরের পর রোজ কেয়ামত নেমে আসবে। আপনি (খালেদা) রোজ কেয়ামত নামিয়ে আনবেন? আমরা জনগণকে রক্ষায় অতীতে যা করেছি তা-ই করবো।’

এসময় বৈঠকে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, ওবায়দুল কাদেরসহ সিনিয়র নোতারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২ সেপ্টেম্বর সচিবালয়ে সচিবদের সঙ্গে বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সংবিধান অনুযায়ী আগামী ২৪ অক্টোবর বর্তমান সরকারের মেয়াদ শেষ। এরপর অন্তর্বর্তীকালীন সরকার দায়িত্ব নেবে। এরপরে মন্ত্রিসভা রুটিন কার্যক্রম পরিচালনার বাইরে নীতিনির্ধারণী কোনো সিদ্ধান্ত নেবে না।

সংবিধানের পঞ্চদশ সংশোধনী অনুযায়ী, সরকারের মেয়াদ শেষের আগে ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সে এ সরকারের মেয়াদ শেষ হবে ২৪ জানুয়ারি। সে হিসাবে ২৪ অক্টোবর থেকে ২৪ জানুয়ারির মধ্যে সংসদ নির্বাচন করতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী, এসময় বর্তমান সরকার অনেকটা অন্তর্বর্তী সরকারের ভূমিকায় থাকবে।