২হাজার ২শত লিটার চোলাই মদসহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক

প্রকাশ:| সোমবার, ২৮ আগস্ট , ২০১৭ সময় ১০:৫৬ অপরাহ্ণ

শফিউল আলম, রাউজান ঃ রাউজান থানা পুলিশের ২হাজার ২শত লিটার পাহাড়ী চোলাই মদ সহ তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে । তিন মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্বে মাদক দ্রব্য আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে বলে পুলিশ জানায় । তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গতকাল পুলিশ আদালতে সোর্পদ করে । পাহাড়ী চেলাই মদ ভর্তি করে নেওয়া ট্রাক রাউজান থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে । রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্ল্যাহ বলেন, গতকাল রাতে রাউজান থানা পুলিশের একটি দল চট্টগ্রাম রাঙ্গামাটি সড়কে ডিউটি করার সময়ে রাত ২ টার সময় চট্ট মেট্রো ন- ১১-৪৭৬০ নম্বরের একটি ট্রাক রাঙ্গামাটি থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখে আসার সময়ে পুলিশ ট্রাকটি থামানোর জন্য সিগনাল দেয় । পুলিশের সিগনাল অমান্য করে ট্রাকটি দ্রুত গতিতে রাঙ্গামাটি সড়ক হয়ে হাফেজ বজলুর রহমান সড়ক দিয়ে রাউজান নোয়াপাড়া সড়ক দিয়ে দ্রুত গতিতে পালিয়ে যাওয়ার সময়ে পুলিশ ধাওয়া করে । পুলিশ পুর্ব গুজরা পুলিশ তদন্ত ফাড়ির পুলিশকে ট্রাকটি আটক করার জন্য সংবাদ প্রেরন করেন । পুর্ব গুজরা পুলিশ তদন্ত ফাড়ির ইনচার্জ এস আই মহসিন রেজা সহ পুলিশ এলাকার লোকজন পুর্ব গুজরা অলি মিয়ার হাট এলাকায় সড়কের ব্যরিকেড দেয় ট্রাকটি আটক করার জন্য মদ ভর্তি ট্রাকটি ব্যরিকেড উপছে ফেলে পালিয়ে যাওয়ার সময়ে পুর্ব গুজরা অলিমিয়ার হাটের দক্ষিনে নির্মানাধীন পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র ভবনের সামনে নোয়াপাড়া থেকে রাউজান থানার ওসি কেপায়েত উল্ল্যাহ আসার সময়ে সড়কে ব্যরিকেড দিয়ে রাউজান থানার এস আই সাইমুল, পুর্ব গুজরা পুলিশ তদন্ত ফাড়ির ইনচার্জ এস আই মহসিন রেজা, এস আই টুটুন মজুমদার ও এ এস আই ছোটনের নেতৃত্বে পুলিশ ট্রাকটি আটক করে । ট্রাকের মধ্যে তল্লাসী চালিয়ে ২ হাজার ২শত লিটার পাহাড়ী চেলাই মদ উদ্বার করে । মদ ভর্তি ট্রাক থেকে তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে । আটক করা তিন মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন রাঙ্গামাটি জেলার ভেদভেদী এলাকার আবুল কালামের পুত্র আনোয়ার হোসেন (২২) একই এলাকার সাধন ভট্টচায্যের পুত্র যিশু ভট্টচার্য্য (২২) ও মানিক বড়–য়ার পুত্র সাধন বড়–য়া (২২) । তিন মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্বে মাদক দ্রব্য আইনে মামলা রুজু করার পর তাদেরকে গতকাল আদালতে সোর্পদ করা হয়েছে বলে পুলিশ জানায়


আরোও সংবাদ