১৭ মে “নিরাপদ পথচলা দিবস” ঘোষণা করেছে ছাত্রদল

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বুধবার, ১৬ মে , ২০১৮ সময় ০৯:২৭ অপরাহ্ণ

বেপরোয়া ড্রাইভিংয়ে বাংলাদেশ হারিয়েছে একজন মেধাবী ছাত্রনেতাকে

জাতীয়বাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সদস্য ও চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক জালাল উদ্দিন সোহেল এর অকাল মৃত্যুর জন্য সড়কের অব্যবস্থাপনা ও সরকারী কর্তৃপক্ষের দায়িত্বহীনতাকে দায়ী করে চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপিত ডা.শাহাদাত হোসেন বলেন ২০১৭ সালের ১৭ মে নগরীর বাদশা মিয়া রোডে এক মর্মান্তিক সড়ক দূর্ঘটনায় ঘাতক ট্রাক কেড়ে নিল জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সূর্যসন্তানকে। বেপরোয়া ড্রাইভার ও ফিটনেসবিহীন গাড়ীর আঘাতে সোহেলের মৃত্যুতে যে ক্ষতি হয়েছে তা অপুরণীয়। ঘাতক ট্রাক একজন মেধাবী ছাত্রনেতার প্রাণ কেড়ে নিলেও আজ অবধি তার বিচার হয়নি। শুধু সোহেল কেন, বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় প্রতিটি রাস্তায় এইভাবে নাম না জানা আরো অনেক সোহেলকে প্রাণ হারাতে হচ্ছে, যা আমাদেরকে গভীরভাবে ভাবিয়ে তুলছে। পত্রিকার পাতা খুলে বা টেলিভিশন স্ক্রলে দেখা যায় সড়ক দূর্ঘটনায় মৃত্যুর খবর। আমরা এই অকাল মৃত্যুর খবর আর শুনতে চাই না। আমরা নিরাপদ সড়ক চাই । জনগণ যেন নির্বিঘেœ পথ চলতে পারে সেই জন্য আমাদের কাজ করতে হবে। গাড়ী চালকদের আরো দক্ষ ও প্রশিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে। ফিটনেসবিহীন গাড়ী গুলো সড়কে না নামার ব্যবস্থা করতে হবে। আমরা লক্ষ্য করছি কর্তৃপক্ষ এসকল বিষয় সম্পর্কে অবগত থাকা সত্ত্বেও তারা কোন ব্যবস্থা নেন না। মূলত তাদের অব্যবস্থাপনা ও দায়িত্বহীনতার কারণেই আমাদের অসংখ্য নাগরিকদের সড়কে দূর্ঘটনার শিকার হতে হয়। তাই আমি কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলতে চাই, আপনারা জনগণের সেবায় কাজ করুন। যাবতীয় অনিয়ম বন্ধ করে জনগণের নিরাপদ পথচলা নিশ্চিত করুন, না হয় জনগণ রাস্তায় নেমে আসবে। চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি গাজী মোহাম্মদ সিরাজ উল্লাহ’র সভাপতিত্বে মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক জালাল উদ্দিন সোহেলের ১ম মৃত্যুবার্ষিকীতে মহানগর ছাত্রদল আয়োজিত স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন। উক্ত স্মরণ সভায় মরহুম জালাল উদ্দিন সোহেলের পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। মরহুম জালাল উদ্দিন সোহেলের বড় ভাই জামাল উদ্দিন বাবু এসময় সোহেলের স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। উক্ত স্মরণ সভা থেকে ১৭মে কে “নিরাপদ পথচলা দিবস” হিসেবে ঘোষণা করা হয় এবং আগামী বছর থেকে এ দিবসটিকে যথাযথ সাংগঠনিক মর্যাদায় পালনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন ছাত্রদল নেতৃবৃন্দ। মরহুম সোহেলের রুহের মাগফেরাত কামনা করে এবং তার প্রতি সম্মান প্রদর্শন করে উক্ত স্মরণ সভায় ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন চৌধুরীর সঞ্চালনায় উক্ত স্মরণ সভায় আরো বক্তব্য রাখেন জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সাবেক সহ-সভাপতি এম.এ হাশেম রাজু, চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক আর.ইউ চৌধুরী শাহিন, সাংগঠনিক সম্পাদক কামরুল ইসলাম, কোতোয়ালী থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক দপ্তর সম্পাদক তুহিদুস সালাম নিশাত, মহানগর ছাত্রদলের সহ-সভাপতি জিয়াউর রহমান জিয়া, আকবর শাহ্ থানা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইফতিখার উদ্দিন নিবলু প্রমুখ।


আরোও সংবাদ