১৫ আগস্ট ও ৩ নভেম্বরের খুনিদের দেখতে আয়নার সামনে দাঁড়ান

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৪ নভেম্বর , ২০১৪ সময় ০৩:১৩ অপরাহ্ণ

১৫ আগস্ট ও ৩ নভেম্বরের খুনিদের দেখতে আওয়ামী লীগ নেতাদের আয়নার সামনে দাঁড়াতে বললেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে যুবদল আয়োজিত এক যুবসমাবেশে তিনি এ কথা বলেন।

সোমবার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে দেয়া আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং স্থানীয় সরকার, পল্লীউন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফের বক্তব্যের জবাবে এমন কথা বলেন রিজভী।

রিজভী বলেন, ‘১৫ আগস্টসহ অন্যান্য খুনের জন্য বিএনপিকে দায়ি না করে নিজেরা আয়নার সামনে দাঁড়ান, তাহলে দেখবেন কাদের চেহারা ভেসে উঠে। তারা আপনাদের সঙ্গেই আছে। বরং আমরা বলতে পারি জিয়াউর রহমানকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই হত্যা করেছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘হাসিনা দেশকে বসবাসের তিক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করে ময়ূরের সিংহাসনে বসে থাকতে চান। তিনি জানেন না বর্ষাকালে এ দেশের মাটি নরম হয়।’

আয়োজক সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন- বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বরকত উল্লাহ বুলু, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম নীরব, যুবদলের ঢাকা মহানগর উত্তরের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

যুবদলের সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ সকল নেতাকর্মীর নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে এ যুবসমাবেশের আয়োজন করা হয়।

উল্লেখ্য, গতকাল সোমবার জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ূামী লীগ আয়োজিত সমাবেশে সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, ‘৩ নভেম্বরের জেলহত্যা কোনো বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। ১৫ আগস্ট ও ৩ নভেম্বরের ঘটনা একই সূত্রে গাঁথা। মোস্তাক-জিয়া এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। তারাই এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।’

আশরাফ আরো বলেন বলেন, ‘জিয়া, মোস্তাক ও খালেদা সরকার ৩ নভেম্বর ও ১৫ আগস্টের খুনীদের বিচার করেননি বরং হত্যাকারীদের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা নিয়ে তাদের বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে রক্ষা করেছেন।


আরোও সংবাদ