১২-১৩ অর্থ বছরে প্রবাসীদের আয় নতুন রেকর্ড ছুঁয়ে ১৪৪৬ কোটি ডলার

প্রকাশ:| বুধবার, ৩ জুলাই , ২০১৩ সময় ০৬:২৭ অপরাহ্ণ

সদ্য সমাপ্ত ২০১২-১৩ অর্থ বছরে প্রবাসীদের আয় নতুন রেকর্ড ছুঁয়েছে। যা স্বাধীনতার পর এ যাবতকালের সর্বোচ্চ। বাংলাদেশ 2ব্যাংক সূত্র জানায়, সমাপ্ত ২০১২-১৩ অর্থ বছরে প্রবাসীরা মোট ১ হাজার ৪৪৬ কোটি ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন।  যা এর আগের অর্থ বছরের তুলনায় প্রায় সাড়ে বারো শতাংশ বেশি।

জানতে চাইলে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী মুখপাত্র এএফএম আসাদুজ্জামান বাংলানিউজকে বলেন, সমাপ্ত বছরের জুলাই-জুন মেয়াদে প্রবাসী আয় নতুন মাত্রা পেয়েছে। যা স্বাধীনতার পর কোনো একক বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি।

জানা গেছে, এর আগে ২০১১-১২ অর্থ বছরে প্রবাসী আয়ের পরিমাণ ছিলো ১ হাজার ২৮৪ কোটি ডলার। তার আগে ২০১০-১১ অর্থ বছরে ছিল ১ হাজার ১৬৫ কোটি ডলার।

সূত্র জানায়, তবে এপ্রিল মাস থেকে প্রবাসী আয় নেতিবাচক ধারায় রয়েছে। এপ্রিল থেকে জুন এ তিন মাসেই ধারবাহিক ভাবে প্রবাসী আয় কমেছে।

সূত্র মতে, জুনে প্রবাসী বাংলাদেশিরা মোট ১০৫ কোটি ডলার দেশি পাঠিয়েছেন। এর আগে, মে মাসে এর পরিমাণ ছিলো ১০৮ কোটি ডলার, এপ্রিলে ১১৯ কোটি ডলার, মার্চে ১২২ কোটি ডলার, ফেব্রুয়ারিতে ১১৬ কোটি ডলার, জানুয়ারিতে ১৩২ কোটি ডলার দেশে পাঠিয়েছেন।

জানা গেছে, চলতি অর্থ বছরের ডিসেম্বর মাসে দেশে আসে ১৩২ কোটি ডলার, নভেম্বর মাসে ১১০ কোটি ডলার।স্বাধীনতার পর একক মাসে সবচেয়ে বেশি রেমিট্যান্স আসে অক্টোবর মাসে। ওই মাসে মোট ১৪৫ কোটি ডলার প্রবাসীরা তাদের কষ্টার্জিত অর্থ দেশে পাঠায়। তার আগে আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসে ১১৭ কোটি ডলার এবং অর্থ বছরের প্রথম মাস ছিলো ১২০ কোটি ডলার।

এদিকে, প্রবাসী আয়ের সন্তোষজনক ধারায় কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ নতুন মাত্রা পেয়েছে। যা বর্তমানে দেড় হাজার কোটি ডলার।

সূত্র মতে, আমাদের দেশে আমদানী ও রপ্তানী ব্যয়ে যে ঘাটতি থাকে তার জন্য সহায়ক হিসেবে কাজ করে প্রবাসী আয়। পরিসংখ্যান থেকে দেখা যায়, প্রতি বছরই রপ্তানীর থেকে আমদানি বেশি হয়। সেই ঘাটতির অর্থায়নে যায় প্রবাসীদের অর্থ।