বাংলাদেশের নির্বাচনকে সব দেশের কাছে গ্রহণ যোগ্য করে তুলুক

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ২৭ আগস্ট , ২০১৩ সময় ০২:২২ অপরাহ্ণ

ambeআগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সবদলের অংশগ্রহণে শান্তিপূর্ণ নির্বাচনের তাগিদ দিয়েছেন জাতিসংঘের প্রতিনিধিসহ কূটনীতিকেরা।

নির্বাচন কমিশনও শান্তিপূর্ণ ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের পক্ষে একমত পোষণ করেন।

মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে বিদেশি কূটনীতিকরা নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে এক বৈঠকে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

বৈঠক শেষে বাংলাদেশে নিযুক্ত জাতিসংঘের আবাসিক প্রধান নীল ওয়াকার বলেন, আমরা চাই বাংলাদেশের সব রাজনৈতিক দল আগামী নির্বাচনে অংশ নিয়ে নির্বাচনকে সব দেশের কাছে গ্রহণ যোগ্য করে তুলুক।

তিনি আরও বলেন, আমরা চাই অবাধ, নিরপেক্ষ, শান্তিপূর্ণ ও একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচন। এর জন্য সবধরনের কারিগরি সহায়তা দিতে আমরা কমিশনের নিকট প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

বৈঠক শেষে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী রকিব উদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, উন্নয়ন সহযোগীরা সব সময় সহায়তা করে আসছে। আমাদের প্রয়োজনে আমরাও তাদের থেকে সহায়তা চাই। এরই ধারাবাহিকতায় আজকে বিদেশি সংস্থা ও বিভিন্ন দাতা দেশগুলোর সঙ্গে আমাদের বৈঠক হয়েছে।

তিনি বলেন, তারা আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। আমরাও তাদের সঙ্গে একমত পোষণ করেছি।

উপকরণ সরবরাহের ব্যাপারে সিইসি বলেন, দাতা দেশগুলোসহ বিভিন্ন সংস্থা কারিগরিসহ বিভিন্ন সহায়তা করে থাকে। এবারও তারা আমাদের সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। গত নির্বাচনের মতো এবারও স্বচ্ছ ব্যালট বাক্স ও অমোচনীয় কালি সরবরাহের জন্য অনুরোধ করেছি।

তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কেন্দ্রেগুলোতে দুষ্ট লোকের উপদ্রব পর্যবেক্ষণের জন্য আমরা কিছু ভিডিও ক্যামেরা সরবরাহের কথা বলেছি।

রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলোচনার জন্য কূটনীতিকেরা কোনো পরামর্শ দিয়েছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তারা এ ব্যাপারে কোনো পরামর্শ দেননি। আজকের বৈঠকে শুধুমাত্র কারিগরি সহায়তার বিষয়টি গুরুত্ব পেয়েছে।

বৈঠকে জাতিসংঘ, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা, ডেনমার্ক, জার্মানি, জাপান, নেদারল্যান্ড, নরওয়ে, কোরিয়া, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।


আরোও সংবাদ