১১ বছরের শিশু ধর্ষণের শিকার

প্রকাশ:| বুধবার, ৩০ ডিসেম্বর , ২০১৫ সময় ১১:৩২ অপরাহ্ণ

হাটহাজারীতে পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ১১ বছরের কণ্যা শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে। গত ২৫ ডিসেম্বর পৌরসভার পশ্চিম দেওয়ান নগরস্থ আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের (কৃষি ফার্ম) লিচু বাগানে এ ঘটনা ঘটে। ওই বাগানের মৌসুমী শ্রমিক তাজুল ইসলাম(২১) এ ঘটনা ঘটান। সে আলীপুর গ্রামের ইয়াছিন সওদাগর বাড়ীর মোঃ আবুল কাশেমের পুত্র। এ ঘটনায় গতকাল বুধবার রাতে ওই ছাত্রীর বাবা মোঃ দিদারুল আলম বাদী হয়ে হাটহাজারী মডেল থানায় মায়লা দায়ের করেছেন। ঘটনার পর থেকে তাজুল পলাতক রয়েছে।

শিশু ধর্ষণসূত্র জানায়, সন্দ্বীপ পাড়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের থেকে অংশগ্রহণ করা পিএসসি পরীক্ষার্থী ওই মেয়েসহ কয়েকজন ছেলেমেয়ে গত ২৫ ডিসেম্বর দুপুর ২ টার কৃষি ফার্মের লিচু বাগানে শুকনো পাতা কুঁড়াতে যায়। পৌণে ৩টার দিকে কৃষি ফার্মের মৌসুমী শ্রমিক তাজুল ইসলাম তাদেরকে ধর ধর বলে ধাওয়া দেয়। একপর্যায়ে দৌঁড়ানোরত অবস্থায় ওই মেয়েকে মুখ চেপে ধরে পাশ্ববর্তী জঙ্গলে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে পালিয়ে যায় তাজুল। পরে মেয়েটি কাঁদতে কাঁদতে বাড়িতে ফেরে। শরীর থেকে রক্তক্ষরণ হলে পরিবারের সদস্যরা তাকে হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে প্রেরণ করা হয়। সেখানে ওই ছাত্রী তিনদিন চিকিৎসা নেয়।

১১ বছরের শিশুর বাবা মোঃ দিদারুল আলম জানান, ‘আমার মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেছে তাজুল। আমি তাকে গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।’
হাটহাজারী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ ইসমাইল পিপিএম বার জানান, ‘থানায় একটি ধর্ষণ মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। তাজুলকে আটক করতে কাজ করছে পুলিশ।’