‘১০ ট্রাক অস্ত্র চোরাচালানের সঙ্গে হাওয়া ভবন জড়িত’ প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৪ ফেব্রুয়ারি , ২০১৪ সময় ১১:২৪ অপরাহ্ণ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘১০ ট্রাক অস্ত্র চোরাচালানের সঙ্গে হাওয়া ভবন জড়িত।’

তিনি বলেন, ‘মামলার শুনানিতে এসেছে হাওয়া ভবন এর সঙ্গে জড়িত। শুধু তাই নয় এর সঙ্গে বিএনপি নেত্রীর নামও চলে আসে।’

মঙ্গলবার ১০ম জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনের দ্বিতীয় কার্যদিবসে মৌখিক প্রশ্ন ও উত্তরের প্রথম পর্বের শেষে দশ ট্রাক অস্ত্র মামলার ওপর বক্তব্য রাখার সময় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘এর বিচার শেষ হয়েছে। কিন্তু অস্ত্র চোরাচালানের ষড়যন্ত্র কারা করেছে তা নিয়ে একটি তদন্ত হওয়া দরকার। তাদের বিচার করা দরকার। বাংলাদেশকে ব্যবহার করে কাউকে সন্ত্রাসী কাজ করতে দেয়া হবে না।’

সংসদে দশ ট্রাক অস্ত্র মামলার প্রসঙ্গটি আলোচনায় নিয়ে আসেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ সেলিম। এই আলোচনায় আরো অংশ নেন, আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী, এম এ মান্নান, মঈনুদ্দিন খান বাদল প্রমুখ।

এই মামলার বিষয়ে রাখা বক্তব্যে শেখ হাসিনা আরো বলেন, ‘এই অস্ত্র চোরাচালানের সঙ্গে এনএসআই, ডিজিএফআই জড়িত ছিল। তখনকার দায়িত্বশীল প্রধানমন্ত্রীকে এটি জানানো হয়েছিল। কিন্তু তিনি নিরব ছিলেন।’

এরপর স্পিকার ড. শিরীন শারমিনের উপস্থিতিতে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কে ধন্যবাদ প্রস্তাবের উপর আলোচনার মধ্য দিয়ে রাত পৌনে ৯ টা থেকে বুধবার বিকাল ৪টা পর্যন্ত সংসদ মুলতবি করেন।

উল্লেখ্য, চাঞ্চল্যকর দশ ট্রাক অস্ত্র মামলায় জামায়াতে ইসলামীর আমির ও সাবেক শিল্পমন্ত্রী মতিউর রহমান নিজামী, চারদলীয় জোট সরকারের সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবর, উলফা নেতা পরেশ বড়ুয়াসহ ১৪ জনের মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন বিচারিক আদালত।

রায় ঘোষণার ৫ দিন পর মঙ্গলবার পূর্ণাঙ্গ রায়ও প্রকাশ করেছেন আদালত। অস্ত্র আটক মামলার রায়ের পৃষ্ঠা সংখ্যা ২৫৪ ও চোরাচালান মামলায় দেওয়া হয়েছে ২৬০ পৃষ্ঠার রায়। আদালত একই সঙ্গে ১৬ পৃষ্ঠার পর্যবেক্ষণও তুলে ধরেছেন। রায় প্রদানকারী চট্টগ্রামের স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক এস এম মুজিবুর রহমান মঙ্গলবার দুপুরে পূর্ণাঙ্গ রায়ে স্বাক্ষর করেন।


আরোও সংবাদ