১ম বারের মতো নাজিরহাট যাচ্ছে রেলের বড় লোকমোটিভ

প্রকাশ:| বুধবার, ৯ ডিসেম্বর , ২০১৫ সময় ০৯:৫৭ অপরাহ্ণ

মির্জা ইমতিয়াজ শাওন::Lokamotive
যাত্রীদের সেবার মান, নিরাপত্তা ও সচেতনতা বৃদ্ধিসহ ১৯টি সেবার অঙ্গীকার নিয়ে রেলওয়ে সপ্তাহ এর সমাপ্তি ঘটছে ১০ ডিসেম্বর। আর সেবা সপ্তাহের শেষ দিনে ১ম বারের মতো নাজিরহাট যাচ্ছে রেলের বড় লোকমোটিভ।

রেল সূত্রে জানা গেছে ১০ ডিসেম্বর সকাল ১০টা ৪৫মিনিটে বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক মফিজুর রহমান এর নেতৃত্বে একটি টিম রেলের বড় লোকমোটিভ নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে নাজিরহাট যাবেন এবং এ রেল সড়কে বড় ইন্জিন চলাচল এর সম্ভাবত্যা যাচায় করবেন। এ টিমে রেলের পক্ষ থেকে আরো উপস্তিত থাকবেন বিভাগীয় রেলওয়ে মেকানিক্যাল ইন্জিয়ার সাইফুল ইসলাম, বিভাগীয় রেলওয়ে পরিবহন কর্মকর্তা ফিরোজ ইফতিখারসহ বেশ কজন উদ্ধতন কর্মকর্তা।

সংস্লিষ্ট সূত্র আরো জানিয়েছে এর আগে এ রেল সড়কের উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করা হয়েছে, এরই ধারাবাহীকতায় চলাচলরত ট্রেন সমূহের গতিও বেড়েছে। রেলের বড় লোকমোটিভ চালানো গেলে এ লাইনে রেলের যাত্রী ও মালামাল পরিবহনে সক্ষমতা বাড়বে বহুলাংশে।

পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মোহাম্মদ মকবুল আহম্মদ নিউজচিটাগাংকে বলেন, যাত্রী সেবার মান, নিরাপত্তা ও সচেতনতা বাড়াতে প্রতিবছর রেল সপ্তাহ পালন করে আসছি। রেলওয়ে একটি সোবধর্মী প্রতিষ্ঠান। এতে যাত্রীদের সবোর্চ্চ সেবাই দেয়া হবে মূলত কাজ। আমরা প্রতিনিয়ত ভাল সেবাই দিতে আগ্রহী। এসময় যাত্রীদের কোন অভিযোগ, অনিয়মও গুরুত্বসহকারে দেখা হবে এবং সব ধরণেল সেবা পাচ্ছেন কিনা সেই বিষয়েও পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। তবে যাত্রীরা কোন ধরণের সুপারিশ থাকলে সেগুলো আমলে নিয়ে বাস্তবায়নের প্রক্রিয়া করবো।

সেবা সপ্তাহে যাত্রী সেবা নিশ্চিতে যেসব বিষয়ে বিশেষভাবে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে সেগুলো হলো স্টেশন এপ্রোচ রোড, প্লাটফরম, ওভারব্রীজ, প্যাসেঞ্জার লাউঞ্জ, ওয়েটিং রুম, রিটায়ারিং রুম ও টয়লেট পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা, স্টেশনের টাইম-টেবিল ও ভাড়ার তালিকা আপডেট করা, চলন্ত ট্রেনে পানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করা হবে। সকল কর্মচারীর কর্মস্থলে সঠিক সময়ে উপস্থিতি নিশ্চিত করা হবে। স্টেশনে প্রতারক, টিকিট কালোবাজারি ও অন্যান্য অব্যবস্থাপনা দূর করা হবে। রাত্রিকালীন যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে রেল পুলিশের তৎপরতা বাড়ানো হবে।

উল্লেখ্য গত শুক্রবার সকালে পূর্বাঞ্চলের আওতাধীন চট্টগ্রাম রেলওয়ে স্টেশনেই আনুষ্ঠানিকভাবে এ সেবা সপ্তাহ উদ্বোধন করেন পূর্বাঞ্চলের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) মোহাম্মদ মকবুল আহম্মদ। এসময় উপস্থিত ছিলেন পূর্বাঞ্চলের প্রধান পরিবহন কর্মকর্তা মিয়া জাহান, প্রধান মেকানিক্যাল প্রকৌশলী হাজি হারুনুর রশীদ, প্রধান ইলেক্ট্রনিক কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন, বিভাগীয় রেলওয়ে ব্যবস্থাপক মফিজুর রহমান, বিভাগীয় বাণিজ্য কর্মকর্তা (ডিসিও) মিজানুর রহমান, স্টেশন ম্যানেজার আবুল কালাম আজাদ, স্টেশন মাস্টার মাহবুবুল আলম খান, জিআরপির ওসি হিমাংশু দাশ গুপ্তসহ রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা।