‘হোপের’ ৫ নাবিক হাসপাতালে

প্রকাশ:| সোমবার, ৮ জুলাই , ২০১৩ সময় ০৫:৫৪ অপরাহ্ণ

আন্দামান সাগরে দুর্ঘটনা কবলিত এমভি হোপের জীবিত উদ্ধার হওয়া পাঁচ নাবিক রোববার রাতে দেশে ফেরার পর স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য সোমবার তাদের হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।'হোপের' ৫ নাবিক হাসপাতালে

তারা হলেন- ডেক ক্যাডেট মো. মোখলেছুর রহমান, চতুর্থ প্রকৌশলী মো. আবদুল হাকিম, ডেক ফিটার মোহাম্মদ রুবেল, অয়েলার ওসমান এবং জেনারেল স্টোরার সাইফুল ইসলাম।
ঘটনাস্থলে থাকা সমকাল প্রতিবেদক জানান, সোমবার সকাল ১১টার দিকে তাদের বহনকারী লাইটারেজ জাহাজটি চট্টগ্রাম বন্দরের ১৫ নম্বর জেটিতে নোঙ্গর করে। জেটি থেকে সরাসরি তাদের চট্টগ্রাম শহরের মেহেদীবাগের ন্যাশনাল হাসপাতালে নেয়া হয়।
ফিরে আসা সাইফুল ইসলাম জানান, তাদের মধ্যে দু’জন নাবিক গুরুতর অসুস্থ।
দুর্ঘটনার বিবরণ দিয়ে সাইফুল বলেন, গত বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় রাত ১২টার দিকে তাদের জাহাজটি ঝড়ের কবলে পড়ে কাত হয়ে যায়। ওই সময় জাহাজের ক্যাপ্টেন রাজীব চন্দ্র কর্মকার পরীক্ষা করে জাহাজটিকে পরিত্যক্ত ঘোষণা করলে জীবন বাঁচাতে তারা সাগরে ঝাপ দেন।
রোববার বন্দর রেডিও কন্ট্রোলের উদ্বৃতি দিয়ে বন্দর সচিব সৈয়দ ফরহাদ উদ্দিন আহমেদ জানান, এমভি হোপের উদ্ধার হওয়া পাঁচ নাবিককে নিয়ে জার্মানির মালবাহী জাহাজ এমভি বাক্সমুন রোববার রাত ৯টার পর চট্টগ্রাম বন্দরের বহির্নোঙ্গরে নোঙ্গর করে।
গত বৃহস্পতিবার থাইল্যান্ড উপকূলে ডুবে যাওয়া মালবাহী জাহাজ ‘এমভি হোপে’ ১৭ জন বাংলাদেশি নাবিক ছিলেন। তাদের মধ্যে নয়জনকে জীবিত এবং দুইজনকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।
এ দুর্ঘটনায় এখনও নিখোঁজ আছেন ছয়জন নাবিক। তাদের সন্ধানে উদ্ধার কাজ আরও দুইদিন চালিয়ে যাওয়ার অনুরোধ জানিয়েছেন স্বজনরা।
এদিকে জাহাজটির মালিক পক্ষের প্রতিনিধি ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন আবদুল কাদের জানিয়েছেন, নিখোঁজ ছয় নাবিকের সন্ধানে সোমবারও উদ্ধার কাজ চলবে।


আরোও সংবাদ