হোটেল শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে সুসংগঠিত হওয়া প্রয়োজন

প্রকাশ:| বুধবার, ৩০ নভেম্বর , ২০১৬ সময় ০৯:৪৫ অপরাহ্ণ

হোটেল এন্ড রেষ্টুরেন্ট শ্রমিকদের নিয়োগ পত্র
দেয়ার জন্য হোটেল মালিকদের প্রতি আহবান
হোটেল এন্ড রেষ্টুরেন্ট শ্রমিকদের নিয়োগ পত্রের দাবীতে বাংলাদেশ লেবার ইনস্টিটিউট (বিলস) ডিজিবি প্রজেক্ট প্রোগ্রামের আওতায় ক্যাম্পিং হিসাবে দোস্তবিল্ডিং ৩য় তলায় এডভোকেসি টিমের সদস্য চট্টগ্রাম হোটেল এন্ড রেষ্টুরেন্ট শ্রমিক দলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ রফিকুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন টি.ইউ.সির চট্টগ্রাম জেলার সাধারণ সম্পাদক ও বিলস ডিজিবি চট্টগ্রামের কো-চেয়ারম্যান তপন দত্ত। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিলস হোটেল শ্রমিক নিয়োগ পত্র বিলস প্রজেক্ট অফিসার এডভোকেট রাকিব উদ্দিন, ট্রেড ইউনিয়ন সংঘ চট্টগ্রাম জেলা সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মামুন, টি.ইউ.সি চট্টগ্রাম জেলার যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইফতেখার জামান খান, হোটেল শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মো. আবু তাহের, বাংলাদেশ হোটেল এন্ড সুইটমিট বেকারী সংঘের সাধারণ সম্পাদক মো. সাইফুল, চট্টগ্রাম হোটেল এণ্ড রেস্টুরেন্ট শ্রমিক দলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেসী টিমের সদস্য আবুল কাসেম, বাংলাদেশ হোটেল এণ্ড সুইটমিট শ্রমিক লীগ এর যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেসি টিমের সদস্য মো. আবদুর রহিম, হোটেল রেস্টুরেন্ট শ্রমিক দলের কোতোয়ালী শাখার সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. আনোয়ার হোসেন, মো. আবুল কালাম, মো. আবদুল কুদ্দুস, মো. শাহআলম প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, অবহেলিত নির্যাতিত খেটে খাওয়া হোটেল শ্রমিকদের উপর যে নির্যাতন নিপীড়ন শোষণ চলছে তার থেকে রেহাই পেতে হলে চট্টগ্রামের কর্মরত সমস্ত হোটেল শ্রমিকদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে সুসংগঠিত হওয়া এ মুহূর্তে প্রয়োজন। তাদের অধিকারের কথা যখন বলার জন্য আইনের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছেন, তখনই এদেশের কিছু প্রশাসনিক কর্মকর্তা এবং মালিক গোষ্ঠীর যোগসাজশে শ্রমিকদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করার জন্য বিভিন্ন কলা কৌশল অবলম্বন করেন। অথচ দোকান প্রতিষ্ঠান আইনে রয়েছে তাদের নিয়োগ দেয়ার সময় নিয়োগপত্র ও পরিচয় পত্র দেয়া নিয়ম রয়েছে। কিন্তু আজ তা দিচ্ছে না। শ্রমিকেরা নিজেদের অধিকার হতে বঞ্চিত হয়ে থাকেন। তাই আজ ঐ প্রতারক মালিক গোষ্ঠীর কাজ থেকে যে কোন কিছুর সংগ্রামের বিনিময় হোটেল শ্রমিকদের স্বীকৃতি আদায় করার জন্য আমরা বিলস ডিজিবির সহযোগিতা নিয়ে হোটেল শ্রমিকদেরকে এক কাতারে এনে তাদের স্বীকৃতিস্বরূপ দাবী আদায়ের জন্য যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছি, তা অচিরেই বাস্তবায়নের জন্য রাজপথে হোটেল শ্রমিকদেরকে ঐক্যবদ্ধ সংগ্রামে অবতীর্ণ হওয়ার উদাত্ত আহবান জানাচ্ছি। বক্তারা বলেন, কিছু দালাল মালিকদের পক্ষ নিয়ে অতীতে এ ধরনের আন্দোলন সংগ্রামে বাঁধার সম্মুখীন হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন। তাই এবারে ঐ দলালদেরকে চিহ্নিত করে হোটেল শ্রমিকদের দাবী আদায়ের সংগ্রাম এগিয়ে নেয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।