হেফাজত মরে নাই, আবারো জাগবেই

প্রকাশ:| বুধবার, ৬ মে , ২০১৫ সময় ০৮:৩৬ অপরাহ্ণ

হেফাজতে ইসলাম কখনো মরবে না। বরং দেশের কোটি কোটি মানুষের হৃদয়ে হেফাজতে ইসলাম জায়গা করে রয়েছে। ইসলামের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে হেফাজতে ইসলাম জাগবেই।’ এমন দাবি করেছেন সংগঠনটির নেতারা।

গেল বছরের ৫ মে ১৩ দফা দাবি আদায় করতে গিয়ে ঢাকা, নারায়ণগঞ্জসহ সারা দেশে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা নিহত হন। তাদের স্মরণে বুধবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ শহরের সলিমুল্লাহ সড়কে বাংলাদেশ হোসিয়ারী অ্যাসোসিয়েশনের মিলনায়তনে স্মরণ সভা ও দোয়ায় বক্তারা এসব কথা বলেন।

হেফাজতে ইসলামের নেতা আরো বলেন, ‘সরকারের মন্ত্রীরা হেফাজতের বিরুদ্ধে কথা বলে নিজেই নিজেদের সমালোচিত করেছেন। অহেতুক নাস্তিকদের প্ররোচণায় হেফাজতকে দোষারোপ করছে। কিন্তু এটা মনে রাখতে হবে হেফাজতের কর্মীরা ইসলামের আদর্শ বাস্তবায়ন করতে প্রয়োজনে কারাগারে যাবে, প্রয়োজনে রক্ত ঝরাবে, শহীদ হতেও কুণ্ঠাবোধ করবে না। কারণ শহীদদের প্রতিটি রক্তের ফোটা থেকে একেকজন মুজাহিদের জন্ম হবে।’

স্মরণ সভা ও দোয়ায় নিহতদের ‘শহীদ’ আখ্যা দিয়ে তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।
হেফাজত মরে নাই, আবারো জাগবেই
ওই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শায়খুল হাদিস আল্লামা আজিজুল হকের ছেলে ঢাকা মহানগর হেফাজতের যুগ্ম সচিব মাওলানা মামুনুল হক।

মামুনুল হক বলেন, ‘কওমী মাদরাসার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র চলছে। সরকারের মন্ত্রীরা কওমী মাদরাসাকে ‘ডেঞ্জারাস’ আখ্যা দিচ্ছে। কারণ এ মাদরাসার কেউ ক্যাম্পাসে নারীদের শ্লীলতাহানী করে না। প্রকৃত পক্ষে সরকার হেফাজতে ইসলামকে ভয় পায়। সরকারের এ ভয় থেকেই হেফাজতে ইসলামকে দাবিয়ে রাখার চেষ্টা করছে।’

নারায়ণগঞ্জ মহানগর হেফাজতের আহ্বায়ক মাওলানা মহিবুল্লাহর সভাপতিত্ব ও মহানগরের সদস্য সচিব মাওলানা ফেরদাউসুর রহমানের পরিচালনায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা হেফাজতের সদস্য সচিব মাওলানা আবদুল কাদের, সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক মুফতি আজিজুল হক, জেলা হেফাজত নেতা মুফতি বশিরউল্লাহ, আতাউল হক সরকার, মুফতি হারুনুর রশিদ, জসিমউদ্দিন আল হাবিব, মহিউদ্দিন খান, ফজলুল করিম কাশেমী, মুফতি ইসমাইল হোসেন সিরাজী, মুফতি আনিস আনসারী, জমিরউদ্দিন ফারুকী, দেলাওয়ার হোসাইন প্রমুখ।


আরোও সংবাদ