হুন্ডি ব্যবসা জমজমাট, নজরদারী নেই

প্রকাশ:| শুক্রবার, ২৯ জুলাই , ২০১৬ সময় ১০:৩৬ অপরাহ্ণ

 

কায়সার হামিদ মানিক, উখিয়া প্রতিনিধি
উখিয়া উপজেলায় তালিকাভূক্ত হুন্ডি ব্যবসায়ী গডফাদাররা বিকাশ এজেন্টের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করছে বলে গুরুতর অভিযোগ উঠেছে। অবৈধভাবে আসা প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকা বিতরণের নিরাপদ চ্যানেল হচ্ছে বিকাশ এজেন্ট। আইনশৃংখলা বাহিনীকে ফাঁকি দিয়ে এসব অবৈধ লেনদেন চালিয়ে যাচ্ছে তারা। ফলে সরকার বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে।
সুৃত্র জানায়, উখিয়ায় ৩০ জনের অধিক চিন্থিত হুন্ডি ব্যবসায়ী রয়েছে। তালিকাভূক্ত এসব হুন্ডি ব্যবসায়ী বর্তমানে কোটি টাকার মালিক বনে গেছে। রাতারাতি অবৈধ টাকা আয় করে বহুতল ভবন ও উখিয়া, কোটবাজার, মরিচ্যা সহ বিভিন্ন স্থানে একাধিক ভিআইপি ব্যবসা পতিষ্ঠান গড়ে তুলেছে। শুধু তাই নয় জেলার সবচেয়ে বেশি হুন্ডির মাধ্যমে আসা অবৈধ টাকা লেনদেন হয় উখিয়াতে। মিয়ানমারের সীমান্তবর্তী এলাকা হওয়ায় এবং কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প এলাকাকে টার্গেট করে মধ্যপ্রাচ্য থেকে আসা লাখ লাখ টাকা প্রতিদিন চালানীর মাধ্যমে বিতরন করা হচ্ছে। অভিযোগ রয়েছে, উত্তর পুকুরিয়ার আনোয়ার, হাজী পাড়ার মাহমুদুল হক, চাকবৈঠার একরাম, জালিয়াপালং পাইন্যাশিয়া গ্রামের হেলালের নেতৃত্বে ২০/২৫জনের একটি শক্তিশালী হুন্ডি সিন্ডিকেট রয়েছে। হুন্ডি আনোয়ারের নেতৃতে কোটবাজার ও উখিয়ায় সবচেয়ে বেশী টাকা লেনদেন হয়ে থাকে। এছাড়া কোটবাজারের চিন্থিত হুন্ডি ব্যবসায়ী মনজুরের নেতৃতে¦ কোটবাজার চৌধুরী মার্কেটের চমক ক্লথ ষ্টোরে ৪/৫ জনের একটি সিন্ডিকেট দিনে রাতে হুন্ডির টাকা বিরতন করে যাচ্ছে। এদিকে কোটবাজার চৌধুরী মার্কেটের আরেক ব্যবসায়ী একরাম সু-স্টোরের মালিক একরাম হুন্ডি জগতের একটি চিন্থিত নাম। উখিয়া থানা পুলিশকে মাসিক মাসোহারার মাধ্যমে হুন্ডির টাকা লেনদেন করছে বলে জানা গেছে একরাম। সংশ্লিষ্ট সূত্রে আরো জানা যায়, বাংলাদেশ ব্যাংকের কড়াকড়ির কারণে অস্বভাবিক লেনদেন ও অনলাইনে সন্দেহ জনক টাকা আসলে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ টাকা প্রদান করতে গড়িমসি করে। ফলে হুন্ডি ব্যবসায়ীরা অসুবিধা সম্মুখীন হয়। এ কারনে বিকাশ এজেন্ট হচ্ছে অবৈধ লেনদেনের নিরাপদ স্থান। সরজমিন পরিদর্শনে দেখা যায় কোটবাজার ফজল মার্কেটে অবস্থিত বিকাশ এজেন্ট ও উখিয়া মসজিদ মার্কেটে অবস্থিত বিকাশ এজেন্ট সহ উখিয়া, কোটবাজার ও মরিচ্যার বেশ কয়েকজন বিকাশ এজেন্টের দোকানে অস্বভাবিক লেনদেন হচ্ছে। এসব বিকাশ এজেন্টের দোকানে হুন্ডি ব্যবসার আস্তনা গড়ে উঠেছে। বিকাশ ছাড়াও উখিয়ার এসব হুন্ডি ব্যবসায়ীদের হুন্ডির টাকা সরবরাহ দিয়ে যাচ্ছে কক্সবাজারের চিন্থিত হুন্ডি ব্যবসায়ী সাইফুল। সম্প্রতি বাংলাদেশের জনপ্রিয় মোবাইল কোম্পানী সেম্পুনীর কক্সবাজারের ডিলারের দ্বায়িত্ব নিয়ে হুন্ডি সাইফুল এস,আরের মাধ্যমে উখিয়ার হুন্ডি ব্যবসায়ীদের হুন্ডির টাকা সরবরাহ দিয়ে যাচ্ছে। এ ব্যাপারে জানতে উখিয়া থানার ওসি হাবিবুর রহমানের মোবাইলে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি মোবাইল রিসিভ করেননি।