হাসিনাকে দিয়ে আলোচনা করিয়েই ছাড়বো

প্রকাশ:| রবিবার, ২৯ মার্চ , ২০১৫ সময় ০৯:৫৮ অপরাহ্ণ

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, ‘আল্লাহ যদি আমাকে বাঁচিয়ে রাখেন তাহলে আমি শেখ হাসিনাকে দিয়ে আলোচনা করিয়েই ছাড়বো। আমি লাঠি নিয়ে তার কাছে যাব না, আল্লাহর দয়ায় মানুষ নিয়ে যাব।’

রোববার রাজধানীর মতিঝিলে তার অবস্থান কর্মসূচির ৬১তম দিনে সংহতি প্রকাশ করতে আসা বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘জার্মান বাহিনী দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে এত শক্তি থাকার পরেও রাশিয়ার লেলিনগ্রাদ দখল করতে পারে নাই। তারা জার্মান বাহিনীকে ট্যাংক দিয়ে ফেরায়নি, মানুষ দিয়ে ফিরিয়েছে। আমি অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেছি, কিন্তু অস্ত্রের শক্তিকে আমি কোন শক্তিই মনে করি না। যে মানুষটা অস্ত্র চালায় সেই মানুষই হলো শক্তি।’

কাদের সিদ্দিকী বলেছেন, ‘আমি দুই মাস ফুটপাতে থেকে বুঝতে পেরেছি বাংলাদেশের সকল অশান্তির জন্য দুই নেত্রী শতভাগ দায়ী। আমার দাবি একটাই, দেশে শান্তি চাই। একজন মায়ের সামনে যদি কেউ তার সন্তানকে গলা টিপে ধরে তাহলে মায়ের চেয়ে মাসীর দরদ বেশি হবে না। এ দেশটা যুদ্ধ করে জন্ম দিয়েছি এ জন্য মাসীদের কাছে দেশে শান্তি আনার দাবি করেছি। কিন্তু তারা কেউ কথা শুনছেন না।’

তিনি আরো বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লজ্জা, বিবেক, মানবতা থাকলে এক মুহূর্ত ক্ষমতায় থাকতেন না। প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব হল দেশে শান্তি শৃঙ্খলা প্রতিষ্ঠা করা। তিনি তা না করে বিরোধী দলকে দোষারোপ করে কান্নাকাটি করে চলেছেন।’

রোববার বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর অবস্থান কর্মসূচিতে অন্যান্যের মধ্যে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার, কেন্দ্রীয় নেতা ফরিদ আহমেদ, যুবনেতা হাবিবুন নবী সোহেল, ছাত্রনেতা রিফাতুল ইসলাম দীপ, কাওসার জামান খান অবস্থান করছেন।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আলোচনায় বসে এবং বেগম খালেদা জিয়াকে অবরোধ প্রত্যাহার করে দেশ ও মানুষ বাঁচানোর দাবিতে গত ২৮ জানুয়ারি থেকে কাদের সিদ্দিকী মতিঝিলের ফুটপাথে অবস্থান চালিয়ে যাচ্ছেন।