হাসনী, জোবাইরা, নিছার প্যানেল মেয়র হচ্ছেন?

প্রকাশ:| বুধবার, ১৯ আগস্ট , ২০১৫ সময় ১০:০১ অপরাহ্ণ

শুভেচ্ছা আশির, নিউজচিটাগাং২৪.কম:: হাসনী, জোবাইরা, নিছার প্যানেল চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র হচ্ছেন বলে কাউন্সিলরদের মধ্যে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। পছন্দের কাউন্সিলরদের নিয়ে মেয়র প্যানেল গঠন করতে বৈঠক করেছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। মঙ্গলবার রাতে নগরীর চান্দগাঁও থানার মোহরা এলাকায় সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জোবাইরা নার্গিস খানের বাসায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ বৈঠকের মধ্যে দিয়ে মেয়র কার্যত তার পছন্দের প্যানেলকে জিতিয়ে আনা চুড়ান্ত করেছেন বলে কাউন্সিলরদের মধ্যে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে। ফলে এ নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মেয়র প্যানেল নির্বাচনে আগ্রহী কাউন্সিলররা।

ccc ৬ আগস্ট প্রথম সাধারণ সভায় প্যানেল মেয়র নির্বাচন করতে কারা আগ্রহী তা জানতে চান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। এ সময় ৫ জন নারী ও ৭ জন নারী কাউন্সিলর প্যানেল মেয়র হতে তাদের আগ্রহের কথা জানান।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় অনুষ্ঠিতব্য মেয়র প্যানেল নির্বাচনে নারী ও পুরুষ মিলে ১২জন কাউন্সিলর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন। ৬ আগস্ট প্রথম সাধারণ সভায় যারা প্যানেল মেয়র নির্বাচনে আগ্রহ প্রকাশ করেছিলেন- ১০নম্বর উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিছার উদ্দিন আহমেদ, ১৫ নম্বর বাগমনিরাম ওয়ার্ডের মো. গিয়াস উদ্দিন, ১৬ নম্বর চকবাজার ওয়ার্ডের সাইয়েদ গোলাম হায়দার মিন্টু, ২০নম্বর দেওয়ান বাজার ওয়ার্ডের চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, ৩২ নম্বর আন্দরকিল্লা ওয়ার্ডের জহরলাল হাজারী, ৩৪ নম্বর পাথরঘাটা ওয়ার্ডের মোহাম্মদ ইসমাইল বালি ও ৪১ নম্বর দক্ষিণ পতেঙ্গা ওয়ার্ডের ছালেহ আহমদ চৌধুরী। এদের মধ্যে ইসমাইল বালি তার নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা হলেন-জোবাইরা নার্গিস খান, মনোয়ারা বেগম মনি, আনজুমান আরা বেগম, ফারহানা জাবেদ ও আফরোজা কালাম।

কিন্তু মঙ্গলবার রাতে পছন্দের কাউন্সিলরদের নিয়ে মেয়র প্যানেল গঠন করতে বৈঠক করেছেন স্বয়ং মেয়র। বৈঠকে মেয়রের পছন্দের প্রার্থী হিসেবে ২০নম্বর দেওয়ান বাজার ওয়ার্ডের চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, ১০নম্বর উত্তর কাট্টলী ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিছার উদ্দিন আহমেদ ও সংরক্ষিত ওয়ার্ডের জোবাইরা নার্গিস খানকে নিয়ে প্যানেল মেয়র গঠন করার ব্যাপারে আলোচনা হয়েছে বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে। মেয়রও তাদেরকে নিয়ে প্যানেল গঠন করতে চান বলে বৈঠকে থাকা একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে।

নির্বাচন ঘোষণার পর কাউন্সিলরদের নিয়ে বৈঠক করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন প্যানেল মেয়র নির্বাচনে আগ্রহী কয়েকজন কাউন্সিলর।

অন্য আরেক প্রার্থী বলেন,‘সবাই চান তাদের পছন্দের মানুষকে ডানে-বামে রাখতে। মেয়রও চাইতে পারেন এটা স্বাভাবিক। কিন্তু তিনি প্রকাশ্য বলতে পারতেন। নির্বাচন ঘোষণা করার পর পছন্দের লোক ঠিক করে দেওয়া উচিত হয়নি।’

নির্বাচন করতে আগ্রহী একজন বলেন,‘মেয়রের কোন পছন্দ থাকলে আমাদের বলতে পারতেন। আমরাতো উনার কাছে জানতে চেয়েছি। তিনি নির্বাচনের কথা বলায় আমরা প্রার্থী হতে আগ্রহী হয়েছি। এখন তিনি প্রার্থী ঠিক করে দেওয়ায় আমরা বিব্রত। আমাদের লজ্জিত করা ঠিক হয়নি।’

বৈঠকের বিষয়ে ‍জানতে চাইলে জোবাইরা নার্গিস খান বলেন,‘কোন বৈঠক ছিল না। এমনিতে আমার বাসায় মেয়রসহ কাউন্সিলররা এসেছিলেন।’

সিটি কর্পোরেশন আইন ২০০৯ এর ২০(১) ধারা অনুযায়ী,‘সিটি কর্পোরেশন গঠিত হইবার পর অনুষ্ঠিত প্রথম সভার এক মাসের মধ্যে কাউন্সিলরগণ অগ্রাধিকারক্রমে তাহাদের নিজেদের মধ্য হইতে তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি মেয়রের প্যানেল নির্বাচন করিবেন। তবে শর্ত থাকে যে, নির্বাচিত তিনজনের মেয়র প্যানেলের মধ্যে একজন অবশ্যই সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর হইতে হইবে।’


আরোও সংবাদ