হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ বিদ্যুৎ নেই ৫দিন

প্রকাশ:| রবিবার, ২০ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ১১:২৭ অপরাহ্ণ

হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকার ট্রান্সফরমারটি বিকল হয়ে য়াওয়ায় ৫ দিন ধরে বিদ্যুৎ সরবরাহ না থাকায় রোগীদের চরম ভোগান্তি
HathazariHealth Complex হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স
হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এলাকার ট্রান্সফরমারটি বিকল হয়ে য়াওয়ায় ৫ দিন ধরে বিদ্যুৎ সরবরাহ না থাকায় রোগীদের চরম ভোগান্তির শিকারে পরিনত হতে হচ্ছে।
গত ১৬ অক্টোবর ঈদুল আযাহার দিন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ট্রান্সফর্মারটি নষ্ট হয়ে যায়। হাসপাতালে রোগীর সেবা নিশ্চিত করতে সার্বক্ষনিক বিদ্যুৎ সরবরাহ প্রয়োজন। কিন্তু শনিবার (২০ অক্টোবর সন্ধ্যা ৭টা) এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত ট্রান্সফর্মারটি মেরামত করা হয়নি। ফলে জরুরী সেবা নিতে আসা রোগীদের চরম ভোগান্তির শিকারে পরিনত হতে হচ্ছে।
আর এই অবস্থা চলতে থাকলে এই উপজেলায় হত-দরিদ্রদের স্বাস্থ্য সেবা হুমকির মুখে পতিত হবে। এই নিয়ে স্বাস্থ্য সেবা নিতে আসা ভোক্তভোগীলা হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের মুখোমািখ হলে তারা বিদ্যুৎ বিভাগের হেঁয়ালীপনা ও স্বেচ্ছাচারীতাকে দায়ী করছেন। অন্যদিকে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মকর্তারা বলছেন বিকল হয়ে যাওয়া ট্রান্সফরমারটি আবার পূণরায় সচল করা তাদের কাজ নয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও বিদ্যুৎ বিভাগের দলাদলিতে বিশেষ করে গর্ভবতী মায়েদের খুব বেশি বেগ পেতে হচ্ছে স্বাস্থ্য সেবা প্রাপ্তি বেলায়। কারণ হাসপাতালে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পর থেকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্ষে ডেলিভারী কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে বলে জানা গেছে।
এই ব্যাপারে হাটহাজারী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা: মো: মহিউদ্দিন এর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, ঈদুল আযাহার দিন সকাল ১১টায় আমাদের ট্রান্সফরমারটি বিকল হয়ে যায়। পরবর্তীতে ট্রান্সফরমারটি সচল অথবা অন্য কোন বিকল্প ব্যবস্থায় বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার জন্য বলা হলেও তারা কোনরূপ কর্ণপাত করেনি। তাই আমি আমাদের সাংসদ, উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলার নির্বাহী অফিসারকে দিয়ে বিদ্যুতের সংযোগ দেওয়ার জন্য বললেও তারা (বিদ্যুৎ বিভাগ) তাদের কথাকেও উপেক্ষা করেছে।
তিনি আরো জানান, বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকার কারণে হাসপাতালে রোগী ভর্তি, ডেলিভারী সহ আরো বিভিন্ন কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। এছাড়া নিমোনিয়ায় আক্রান্ত শিশুদের ও বৃদ্ধ হাপাঁনী রোগীদের বেশি দূর্ভোগে পড়তে হচ্ছে।
ট্রান্সফরমারটি সচল করার ব্যাপারে হাটহাজারী পিডিবি’র নির্বাহী প্রকৌশলী আকত আলী’র কাছে জানতে চাইলে তিনি জানাান, আসলে ট্রান্সফরমারটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নিজস্ব। তারা তাদের নিজস্ব খরচে বিকল ট্রান্সফরমারটি সচল করতে হবে। আর যদি প্রয়োজন হয় তাহলে আমাদের তাদেরকে কারগরী সহযোগীতা দিতে পারি, এর বিশি কিছু আশা করা যায় না।
এছাড়া বিকল্প ব্যবস্থা বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া যায কিনা জানতে চাইলে তিনি আরো জানান, এই রকমের কোন নিয়ম পিডিবি’তে নাই। যদি দেওয়া হয় তা অবৈধ হবে। তাই তিনি কোন অবৈধ কাজ করতে পারবে না বলে উল্লেখ করেন।