হাজীদের সুবিধার জন্য জেদ্দায় একটি প্লাজা ভাড়া করেছি- শেখ হাসিনা

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| বুধবার, ১১ জুলাই , ২০১৮ সময় ০২:৫০ অপরাহ্ণ

ইসলাম ধর্ম নিয়ে কেউ যাতে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে না পারে সে বিষয়ে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বলেছেন, ‘ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে সারাদেশে প্রায় পাঁচশটি মডেল মসজিদ নির্মাণ করা হচ্ছে। সেখানে নামাজ আদায়ের পাশাপাশি ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে কোনও বিভ্রান্তি যেন না ছড়ায় সে জন্য প্রকৃত শিক্ষাটা দেয়ার ব্যবস্থাও করা হবে। ইসলাম ধর্মের সঠিক অর্থ যেন মানুষ জানতে পারে সেদিকে লক্ষ্য রেখেই এটি করা হচ্ছে।’

বুধবার সকালে রাজধানীর আশকোনায় হজ কার্যক্রম ২০১৮ এর শুভ উদ্বোধনকালে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এসময় প্রধানমন্ত্রী দেশ ও দেশের জনসাধারণের জন্যও দোয়া চান হাজীদের কাছে।

সরকার হাজীদের বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা দিতে সাধ্য অনুযায়ী কাজ করে যাচ্ছে বলে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘হাজীদের সুবিধার জন্য জেদ্দায় ৪০ লক্ষ টাকায় একটি প্লাজা ভাড়া করেছি। এ কারণে বাংলাদেশের হজ ব্যবস্থাপনা সর্বক্ষেত্রে প্রশংসা অর্জন করেছে।’

‘হজ পালনের জন্য আমাদের হজ অফিস ছিল। মক্কা থেকে কোনও কাজের জন্য জেদ্দা পর্যন্ত যেতে হতো। আমরা সেখানে মক্কা থেকেই হজ অফিসের ব্যবস্থা করেছি। এখন হজ মিশন মক্কা শরিফেই বসে। যাতে কোনও সমস্যা হলে আপনারা জানতে পারেন সেই ব্যবস্থা করে দিয়েছি। হজ মৌসুমের সমস্ত কার্যক্রম মক্কার হজ অফিসেই করা হয়। এ কারণে এখন অনেক সুবিধা হয়েছে।’

‘এছাড়া চিকিৎসক, সেবকদল এবং সৌদিতে যারা আমাদের লোক আছে তাদেরকেও সেবক হিসেবে নিয়োগ দিয়ে থাকি। এছাড়া ভাষা শেখারও মোটামুটি ব্যবস্থা করে দিয়েছি। এর কারণ হলো হজটাকে সহজ করার চেষ্টা এবং আমাদের হাজিরা যাতে আরও সুবিধা পান সেদিকে লক্ষ্য রেখে, আপনাদের সেবাটা যাতে ঠিকমত পান, ভালোভাবে হজ পালন করে দেশে ফিরে আসতে পারেন, তার ব্যবস্থাটাও আমরা করে দিয়েছি।’

উল্লেখ্য, চলতি বছর পবিত্র হজ গমনেচ্ছুদের ফ্লাইট ১৪ জুলাই থেকে শুরু হবে। এ বছর বাংলাদেশ থেকে মোট এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ জন যাত্রী হজে যাবেন। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যাবেন ৭ হাজার ১৯৮ জন, বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যাবেন ১ লাখ ২০ হাজার জন।