হাছান মাহমুদের বিরুদ্ধে আচরনবিধি লংঘনের অভিযোগ

প্রকাশ:| সোমবার, ২০ এপ্রিল , ২০১৫ সময় ০৯:৫০ অপরাহ্ণ

মেয়র প্রার্থী আ জ ম নাছিরের পক্ষে সরকারী যানবাহন ও বিদ্যুৎ অফিস নির্বাচনী কার্যক্রমে ব্যবহার করা হচ্ছে
সরকার দলীয় মেয়র প্রার্থী আ জ ম নাছিরের পক্ষে আওয়ামী লীগ নেতা ড. হাছান মাহমুদ কর্তৃক রিক্সাচালকদের মহাসমাবেশ/ শোডাউনের আয়োজন, সরকারী যানবাহন ও বিদ্যুৎ বিভাগের অফিস নির্বাচনী কার্যক্রমে ব্যবহার সংক্রান্ত অভিযোগ করে এতদবিষয়ে আইনী ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য মেয়র প্রার্থী মনজুর আলমের পক্ষে আহ্বান জানিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন আন্দোলন।
নির্বাচন কমিশনের কাছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন আন্দোলনের দায়ের করা অভিযোগ বলা হয় সরকারী দলের নেতা ড. হাছান মাহমুদ এমপি গত রবিবার ( ১৯ এপ্রিল) নগরীর দামপাড়া ওয়াসা মোড়ে মঞ্চ স্থাপন ও ব্যস্ততম সড়ক অবরোধ করে ব্যাটারী চালিত রিক্সা চালকদের মহাসমাবেশ/ শোডাউন এর আয়োজন করেন। সে সমাবেশে সরকার দলীয় স্থানীয় ও কেন্দ্রীয় নেতারা বক্তব্য রাখেন।
সরকার দলীয় নেতা, মন্ত্রী, সংসদ সদস্য এবং সরকার দলীয় মেয়র প্রার্থী প্রতিদিন বিভিন্ন স্থানে নির্বাচনী আচরন বিধি লংঘন ও এ ব্যপারে সুনির্দিস্টভাবে অভিযোগ দায়ের করা হলেও কোন শাস্তিমূলক কোন ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না।
এধরনের ঘটনাবলী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বিধিমালা-২০১০ এর ৫ এর খ, ৬ (১) এর ক ও খ, ৬ (৪) এর খ, ৬ (১০) এর ক এবং ৬ (১৪) এর গ এর পরিস্কার লংঘন।
অভিযোগে বলা হয় উচ্চ আদালতের নির্দেশে এবং চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সহায়তায় নগরীতে ব্যাটারী চালিত রিক্সা বন্ধ করা হলেও ড. হাছান মাহমুদ “ শীঘ্রই ব্যাটারী রিক্সা চলবে নগরীতে” বলে ঘোষনা দিয়ে সরকার দলীয় প্রার্থীর পক্ষে ভোট চান। নগরীর ব্যস্ততম সড়ক বন্ধ করে সমাবেশের কারনে দীর্ঘ কয়েক ঘন্টা ধরে জনদুর্ভোগ চরমে উঠে। তিনি সেখানে চট্টগ্রাম উন্নয়ন আন্দোলনের মেয়র প্রার্থী আলহাজ¦ মনজুর আলমের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারনা চালিয়ে শ্রমিকদের উস্কানী প্রদান করেন। এ ধরনের “মহসমাবেশ” অনুষ্ঠান, মিথ্যা আশ^াস দিয়ে ভোট দেওয়ার জন্য প্রলুব্ধ করা এবং কোন প্রার্থীর বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারনা ও ব্যক্তিগত চরিত্রহনন নির্বাচনী আচরন বিধি’র সুস্পস্ট লংঘন। তিনি ইতিপূর্বেও এ ধরনের ঘটনা ও বক্তব্য দিয়ে নির্বাচনী আচরন বিধি লংঘন করলেও তার বিরুদ্ধে কার্যকর কোন আইনী ব্যবস্থা গৃহিত না হওয়ায় ক্রমশ: বেপরোয়া ও অব্যাহতভাবে আচরন বিধি লংঘন করে চলছেন।
অভিযোগে নগরীর এ কে খান গেইট এলাকায় অবস্থিত বিদ্যুৎ বিভাগের “ অভিযোগ কেন্দ্র” দখল করে সরকারদলীয় শ্রমিক সংগঠনের নেতা-কর্মীরা মেয়র প্রার্থী আ. জ. ম নাছির উদ্দিনের নির্বাচনী ক্যাম্প স্থাপন করে প্রচারনা চালাচ্ছেন। দখলকারীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের অঙ্গ সংগঠন জাতীয় শ্রমিক লীগের মহানগর ও পাহাড়তলী শাখা কমিটির আবুল কালাম আজাদ, মোহাম্মদ মোস্তফা জুয়েল, মো. আনছারুল হক, ইকবাল হোসেন ও মো. ঈসরাফিল রয়েছেন।
এছাড়া চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের সরকারী যানবাহন যার নম্বর ঢাকা মেট্রো-৬৪৭১, মিৎসুবিশি ব্রান্ডের সাদা মাইক্রোবাস সরকার দলীয় মেয়র প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচারনার জন্য সরকারী কর্মচারী হয়ে একজন প্রার্থী পক্ষে নির্বাচনী কাজে ব্যবহার করা হচ্ছে।