সড়কের একি অবস্থা, ভোগান্তির শেষ নেই

প্রকাশ:| বুধবার, ২২ জুন , ২০১৬ সময় ১০:৪৮ অপরাহ্ণ

একি সড়ক
সেলিম উদ্দিন, ঈদগাঁও প্রতিনিধি:
মাঝখান থেকে সড়কের ১ কিলোমিটার মতো বিলীন। আরও কিছু দুর এগিয়ে দেখা যায় সড়কের অর্ধেক অংশ নেই। এই চিত্র কক্সবাজার সদর উপজেলার পোকখালী ইউনিয়নের গোমাতলী সড়কের। গত ২১ মে ঘূর্ণিঝড় রোয়ানুর আঘাতে সৃষ্ট জলোচ্ছ্বেসে ভেঙে গেছে গোমাতলী সড়কটির বিভিন্ন অংশ। ব্রীজ থেকে প্রায় ২ কিলোমিটারে এখন যানবাহন চলাচল বন্ধ। সরেজমিনে দেখা গেছে, সড়কের বিভিন্ন অংশ বিচ্ছিন্ন থাকায় ইউনিয়নের গোমাতলীর অন্তত ১৫ হাজার মানুষ চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন।
জানা গেছে, টানা দুই যুগ ভোগান্তির কারণে এ ইউনিয়নের মানুষ মনে করছেন তারা অভিশপ্ত মানুষ। তাদের কোন অভিভাবক নেই। তাদের অনেকেই প্রশ্ন করেন বাংলাদেশের নাগরিক কিনা ? ফলে এপ্রিল থেকে জুলাই মাস পর্যন্ত আতংকে কাটে এখানকার মানুষের দিন। বর্ষা আসলে মনে ভর করে মুত্যু ও ঝুঁকি সত্বেও এখানকার মানুষ গুলো বেঁচে থাকার স্বপ্ন নিয়ে বসবাস করে। বর্ষাকাল ছাড়া ও জোয়ার ভাটার আতংকে এখনো চলছে তাদের কষ্টের জীবন।
স্থানিয় লোকজন জানান, সাধারণ মানুষের কষ্ট লাগবে ভাঙা সড়ক সংস্কার করতে প্রাণপণে ছুটছেন এমপি মহোদয়, রাজনৈতিক নেতা, উপজেলা প্রকৌশলীসহ জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে।
ইউনিয়ন গোমাতলী রাজঘাট এলাকার হোছাইন বলেন, অসুস্থ রোগিদের চিকিৎসক দেখানোর জন্য রোগিসহ সাধারণ লোকজন যাতায়তের সময় আহত হচ্ছে। দুর্ঘটনার শিকার হলে সড়ক সংস্কারে উর্ধ্বতন কৃর্তপক্ষের কোন উদ্যোগ নেই।
সদর উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা (ইউএনও) বলেন, ভাঙা সড়কের কারণে এলাকাবাসীর ভোগান্তির অন্তত নেই। সড়কটি দ্রুত সংস্কারের জন্য চেষ্টা চালানো হচ্ছে।