‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহারে দাবি, অন্যথায় এক দফার আন্দোলন’

প্রকাশ:| রবিবার, ১৫ মে , ২০১৬ সময় ১০:৫৯ অপরাহ্ণ

সংঘরাজবান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে ভিক্ষু হত্যাকাণ্ড নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্য আগামী বৈশাখী পূর্ণিমার (২১ মে) আগেই প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন বাংলাদেশ সংঘরাজ ভিক্ষু মহাসভার মহাসচিব ভদন্ত এস লোকজিৎ থের।

রোববার (১৫ মে) বিকেলে চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সামনে ভিক্ষু হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে আয়োজিত দীর্ঘ মানববন্ধনে তিনি এ দাবি জানান। মানববন্ধনে বিপুলসংখ্যক বৌদ্ধ ভিক্ষু ছাড়াও বৌদ্ধ ছাত্র ও তরুণদের বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যরা ব্যানার নিয়ে যোগ দেন। এ সময় রাস্তার একপাশে গাড়ি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। শনিবার (১৪ মে) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এক অনুষ্ঠানে নাইক্ষ্যংছড়ির বৌদ্ধ ভিক্ষু হত্যাকাণ্ডে স্বজনরা জড়িত থাকতে পারে বলে মন্তব্য করেছিলেন।

মানববন্ধন চলাকালে মহাসচিব বলেন, দেশে বিভিন্ন ধর্মের উপাসনালয় ও ধর্মীয় নেতাদের ওপর একের পর এক আক্রমণ হয়েছে। সর্বশেষ নাইক্ষ্যংছড়িতে নৃশংসভাবে একজন নীরিহ ভিক্ষুকে প্রাণ দিতে হলো। এ ঘটনাকে ঘিরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী যে বক্তব্য দিয়েছেন তা আমরা মেনে নিতে পারি না। এ বক্তব্য আমাদের আহত করেছে। আগামী বৈশাখী পূর্ণিমার আগেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে এ বক্তব্য প্রত্যাহার করতে হবে। নয়তো আমরা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবিতে এক দফার আন্দোলন শুরু করবো।

ভিক্ষ মহাসভার ধর্মীয় সম্পাদক ভদন্ত সুমঙ্গল মহাথেরের সভাপতিত্বে মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘের ড. বিকিরণ প্রসাদ বড়ুয়া, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালি বিভাগের সভাপতি ড. জিনবোধি ভিক্ষু, প্রকৌশলী সুভাষ বড়ুয়া, পুলক কান্তি বড়ুয়া, সুভাষ বড়ুয়া, বুড্ডিস্ট স্টুডেন্ট কাউন্সিলের সভাপতি চাইথোয়াই মারমা, ভদন্ত সুনন্দ থের, এম বোধিরতন ভিক্ষু, পূর্ণাচার ভিক্ষু সংসদের মহাসচিব ড. সংঘপ্রিয় মহাথের, লায়ন প্রশান্ত বড়ুয়া, ভদন্ত করুণানন্দ থের, স্থপতি বিজয় তালুকদার প্রমুখ।

বক্তারা ভিক্ষু হত্যাকাণ্ডের ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত এবং জড়িতদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।