‘স্থায়ী কমিটিগুলো গতিশীল হলে চসিক সেবার মান আরো বৃদ্ধি পাবে’

প্রকাশ:| রবিবার, ১০ এপ্রিল , ২০১৬ সময় ০৭:৩৫ অপরাহ্ণ

৯ম সভা

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের ৫ম নির্বাচিত পরিষদের ৯ম সাধারণ সভা ১০ এপ্রিল রবিবার, দুপুরে কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় নির্বাচিত পরিষদের সাধারণ ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর, অফিসিয়াল কাউন্সিলর, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, সচিব সহ সিটি কর্পোরেশনের বিভাগীয় প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন। চসিক সচিব মো. আবুল হোসেন এর উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত ৯ম সাধারণ সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলোয়াত ও মোনাজাত করা হয়। মোনাজাতে বিগত সাধারণ সভার পর থেকে ৯ম সাধারণ সভা পর্যন্ত সময়ে নগরীতে মৃত্যুবরণকারী নাগরিকদের আত্মার মাগফেরাত এবং চট্টগ্রাম সহ দেশ ও জাতির উন্নতি এবং সমৃদ্ধি কামনা করা হয়। সভায় ১৫ মার্চ অনুষ্ঠিত ৮ম সাধারণ সভার কার্যবিবরণী অনুমোদন, স্থায়ী কমিটি সমূহের কার্যবিবরণী আলোচনান্তে অনুমোদন করা হয়। সভায় ১৭ এপ্রিল মুজিবনগর সরকার দিবস উদযাপন, পবিত্র রমজান উপলক্ষে রমজানের পবিত্রতা সুরক্ষার্থে নগরীর বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় গতিশীলতা আনায়ন, নগরীর আলোকায়ন কার্যক্রম জোরদার করা, নালা ও খালের মাটি ও আবর্জনা উত্তোলন কার্যক্রম গতিশীল করা, সড়ক ও অবকাঠামোগত উন্নয়ন কার্যক্রমের মনিটরিং ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করা, পৌরকর পূনঃ মূল্যায়ন কার্যক্রমকে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহীতার ভিত্তিতে পরিচালনা করা, প্রশাসনে গতিশীলতা আনায়ন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত জেনারেল হাসপাতাল মাতৃসদন ও চিকিৎসা কেন্দ্রে রোগীদের সেবা বৃদ্ধি করা, ‘ক্লিন ও গ্রিন সিটি’র ভিশন সম্পর্কে সর্বস্তরের নাগরিকদের সচেতন করার কার্যক্রম আরো জোরালো করা, সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত জেনারেল হাসপাতালের চিকিৎসা’র সুবিধার্থে প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে কনসালটেন্ট অনকলে আনা, বিদ্যুৎ ও টেলিফোন বিল এর আপত্তি নিষ্পত্তি করা এবং পরিশোধের নিয়ম কানুন মেনে স্বচ্ছতার ভিত্তিতে পরিচালনা করা। সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত কলেজ সমূহে মাসিক বেতন, ফি ইত্যাদি ক্ষেত্রে নিয়ম নীতি অনুসরন করা, রাজস্ব আদায় গতিশীল করা এবং আয়বর্ধক প্রকল্পের পরিধি বৃদ্ধির প্রস্তাব সমূহ গৃহিত হয়। সভার সভাপতি সিটি মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে সিটি কর্পোরেশনকে প্রশাসািনক শৃংঙ্খলার মধ্যে আনায়ন, খালি পদ পুরন, যোগ্যদের মূল্যায়ন করার মধ্যে দিয়ে গতিশীল করা হচ্ছে। তিনি বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন ইতোমধ্যে অতীতের ব্যর্থতা ও সীমাবদ্ধতা কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হয়েছে। মেয়র আসন্ন পবিত্র রমজানে দ্রব্যমূল্য স্থিতিশীল রাখতে ব্যবসায়ীদের আহবান জানান। তিনি চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের স্থায়ী কমিটির সভাপতি, প্রেষনে পদায়িত ক্যাডার সার্ভিসের কর্মকর্তাদেরও পরিচয় করিয়ে দেন। মেয়র বলেন, স্থায়ী কমিটিগুলো গতিশীল হলে সিটি কর্পোরেশনের সেবার মান আরো বৃদ্ধি পাবে।