স্টেডিয়ামে আলোচিত অভিনেত্রী হ্যাপি

প্রকাশ:| রবিবার, ২১ জুন , ২০১৫ সময় ১১:৪০ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ দেখার পর দ্বিতীয় ওয়ানডে দেখতেও স্টেডিয়ামে আলোচিত অভিনেত্রী ও রুবেল হোসেনের সাবেক প্রেমিকা নাজনীন আক্তার হ্যাপি। এদিন তিনি হিজাব পরে মাঠে আসেন।
হ্যাপি
রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে গ্যালারিতে বসে তাকে খেলা দেখতে দেখা গেছে। এর আগে গত ১৯ জুন স্টেডিয়ামে গিয়ে প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ দেখেন হ্যাপি। অবশ্য সেদিন খেলা শেষ হওয়ার আগেই মাঠ থেকে বেরিয়ে যান তিনি।

সম্প্রতি দেশে সর্বাধিক আলোচিত চলচ্চিত্র তারকা নাজনীন আক্তার হ্যাপি ও জাতীয় ক্রিকেট দলের পেসার রুবেল হোসেনের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক, পরবর্তীতে তাদের ফোনালাপের অডিও ফাঁস হয়। যা ‘টক অফ দ্য কান্ট্রি’ হয়ে চায়ের টেবিলে ধোয়া তুলে হ্যাপি-রুবেল প্রেমকাব্য। প্রেমের সুবাদে মাকে শ্যুটিংয়ের কথা বলে রাতের পর রাত রুবেলের বাসায় হ্যাপির ‘বিছানাযাপন’, অতঃপর রুবেলের বিরুদ্ধে প্রতারণা মামলা, একে অন্যকে দোষারোপসহ দু’জনের প্রেম রসায়ন মানুষের মনে নানা প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। হ্যাপি-রুবেলের পক্ষে-বিপক্ষে মন্তব্যের ঝড় শুরু হয় সামাজিক সাইটগুলোতেও। কেউ হ্যাপির পক্ষ নিয়ে বলছেন, রুবেল ক্রিকেট তারকার খ্যাতিকে সামনে রেখে নারীদের ভোগ সামগ্রি বানিয়েছেন। তার মতো তারকার ক্ষেত্রে এটা মেনে নেওয়া যায় না। অন্যদিকে একপক্ষ রুবেলের পক্ষ নিয়ে বলছেন, হ্যাপি রুবেলকে ফাঁসানোর চেষ্টা করছেন। আর হ্যাপির বক্তব্য যদি সত্য হয় তাহলে তাকে তো নির্দোষ বলার সুযোগ নেই। তিনি কেন মায়ের কাছে মিথ্যা বলে রাতের পর রাত অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়েছেন?

অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে আয়োজিত বিশ্বকাপের ঠিক আগে গত বছরের ১৩ ডিসেম্বর রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে মিরপুর মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেন হ্যাপী।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলাটি করেন হ্যাপী। পরে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলা থেকে রুবেলের অব্যাহতি চেয়ে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছে পুলিশ।
[one_third]