স্কুল শিক্ষকের বিরুদ্ধে গৃহবধূকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ, আদালতের নির্দেশে মামলা

প্রকাশ:| রবিবার, ১৫ ফেব্রুয়ারি , ২০১৫ সময় ১১:২২ অপরাহ্ণ

মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, কুতুবদিয়া থেকে ফিরে::
কক্সবাজারের কুতুবদিয়ায় স্কুল শিক্ষকের হাতে এক গৃহবধু শ্লীলতাহানির শিকার হয়েছেন। এ ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যাপারে ভিকটিম বাদি হয়ে দুই জনকে আসামী করে গত শুক্রবার রাতে কুতুবদিয়া থানায় মামলা করেচেন। যার মামলা নং ০২/১৭। মামরার এজাহার সুত্রে জানা গেছে, কিছু দিন পূর্বে কুতুবদিয়া দ্বীপের সদর ইউনিয়নের মুরালিয়া গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে ও ফ্লাইট ল্যাপ্টেন কাইমুল হুদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নজরুল ইসলাম (৩৫) ও মৃত আবদু ছত্তারের ছেলে জহির উদ্দিন বাবুল (৪২) সহ আরো কয়েকজন লোক একই এলাকার গোলাম কুদ্দুসের বসতঘরে প্রবেশ করে তার স্ত্রীকে ধর্ষনের চেষ্টা করে। এ সময় দূর্বৃত্তরা পূর্বপরিকল্পিতভাবে ঢুকে দরজা বন্ধ করে জোরপূর্বক ভিকটিমকে গামছা দিয়ে মুখ বেধে ধর্ষনের চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে দূর্বৃত্তদের হাত থেকে ছুটে গিয়ে ভিকটিম চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে দূর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। দূর্র্বৃত্তরা ধর্ষনের চেষ্টাকালে ভিকটিমের স্পর্শকাতর স্থানে কামড় দিয়ে রক্তাক্ত গুরতর জখম করে। প্রতিবেশীরা ভিকটিমকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে কুতুবদিয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন। হাসপাতালে রোগীর অবস্থা আশংকাজনক দেখে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর সরকারি হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ভিকটিম রুবির স্বামী গোলাম কুদ্দুস মৎস্যজীবি হওয়ায় প্রায় সময় সাগরে মৎস্য কাজে নিয়োজিত থাকে। এ সুবাধে দূর্বৃত্তরা সুযোগ কাজে লাগায়।
এ ব্যাপারে মামলার বাদি রুবি আক্তার জানায়, দূর্বৃত্তরা তাকে ধর্ষণের চেষ্টা পূর্বক শ্লীলতাহানি করে। এ ঘটনায় দূর্বৃত্তদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করতে গেলে থানায় মামলা না নেয়ায় গত ২৭ জানুয়ারী ভিকটিম নিজে বাদি হয়ে কক্সবাজার জেলার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল আদালতে সিপি মামলা নং-১০৯/১৫ দায়ের করেন। আদলতের বিচারক অভিযোগটি আমলে নিয়ে কুতুবদিয়া থানাকে যথাযথ ধারায় মামলা রুজু করার জন্য নির্দেশ দেন। এরই প্রেক্ষিতে গত ১৩ ফেব্রে“য়ারী কুতুবদিয়া থানায় মামলাটি রুজু হয়েছে বলে ওসি অংসা থোয়াই নিশ্চিত করেন।
মামলার তদন্ত অফিসার (আইও) কুতুবদিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এস.আই) মোঃ কামাল হোসেনের সাথে কথা হলে তিনি মামলার তদন্তের কাজ শুরু হয়েছে বলে জানান।