সৌর বিদ্যুৎ এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি অবকাঠামো উন্নয়নে সহযোগিতা দিচ্ছে এডিবি

প্রকাশ:| সোমবার, ৭ এপ্রিল , ২০১৪ সময় ১১:৫৬ অপরাহ্ণ

অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক |
সৌর বিদ্যুৎ এবং ক্ষুদ্র ও মাঝারি অবকাঠামো উন্নয়নে সহযোগিতা দিচ্ছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। এ সংক্রান্ত প্রকল্প বাস্তবায়নে প্রায় ৮৮০ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে সংস্থাটি। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের এনইসি সম্মেলন কক্ষে গতকাল সরকারের সঙ্গে এডিবির চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। সরকারের পক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন এবং এডিবির পক্ষে ডেপুটি কান্ট্রি ডিরেক্টর ওলেগ টনকন ওজেনকোব স্বাক্ষর করেন। মেজবাহ উদ্দিন বলেন, সৌরবিদ্যুৎ দিয়ে সেচ পাম পরিচালনা করা হবে। ফলে বিদ্যুতের ওপর চাপ কমবে। ১৯৭৩ সালে এডিবির সদস্য হওয়ার পর থেকে এডিবি বাংলাদেশের অন্যতম সহযোগী হিসেবে বাংলাদেশকে ঋণ ও অনুদান সহায়তা করে আসছে। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, এ প্রকল্পে এডিবির মোট ঋণের মধ্যে ওসিআর হচ্ছে ১০ কোটি মার্কিন ডলার। এ ঋণ ৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ২৫ বছরে পরিশোধ করতে হবে। এর সুদ লন্ডন ইন্টার ব্যাংক অফার রেট (লাইবর) ভিত্তিক। এ ছাড়া প্রিমিয়াম চার্জ দিতে হবে শূন্য দশমিক ১০ শতাংশ এবং অনুত্তোলিত ঋণের ওপর বার্ষিক শূন্য দশমিক ১৫ শতাংশ। বাকি ১ কোটি মার্কিন ডলার হচ্ছে এডিএফ ঋণ। এটিও ৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ২৫ বছরে পরিশোধ করতে হবে। এর সুদের হার ২ শতাংশ। ‘সেকেন্ড পাবলিক-প্রাইভেট ইনফ্রাসট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট ফ্যাসিলিটিজ (পিপিআইডিএফ-টু)’ শীর্ষক প্রকল্পে এ অর্থ ব্যয় করা হবে। দ্বিতীয় পর্যায়ে এ প্রকল্পের মাধ্যমে ক্ষুদ্র ও মাঝারি অবকাঠামো উন্নয়ন এবং সৌর বিদ্যুৎ সিস্টেম কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হবে। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে ইনফ্রাসট্রাকচার ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি (ইডকল)। অথনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ জানায়, ২০১৩ সালের ১৪ থেকে ২২শে এপ্রিল এডিবির ফ্যাক্ট ফাউন্ডিং মিশন এবং ১ থেকে ৪ঠা জুলাই কনসালট্যান্ট মিশন কাজ করে। পরবর্তী সময়ে ২৮শে জুলাই অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা করে। এ সভায় খসড়া ঋণ চুক্তি ও অন্য দলিল চূড়ান্ত হয়। এরপর লেজিস লেটিভ ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয় থেকে ভেটিং প্রক্রিয়া শেষ হলে চুক্তি স্বাক্ষরের প্রক্রিয়া শুরু হয়।