সু-স্বাস্থ্য রক্ষায় বিশুদ্ধ পানির ব্যবহারের বিকল্প নেই-ওবায়দুল কাদের এমপি

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১৪ নভেম্বর , ২০১৩ সময় ০৭:১৮ অপরাহ্ণ

মোফাজ্জল হোসেন টিপু , নোয়াখালী>> ওবায়দুল কাদের এমপিচৌমুহনী পৌর অডিটরিয়ামে ১৩ নভেম্বর ১২টার সময় মেয়র মামুনুর রশিদ কিরন এর সভাপতিত্বে নব নির্মিত উচ্চ জলাধার ও পানি শোধানাগার উদ্ভোধনী উপলক্ষ্যে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন গণ প্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি। সু-স্বাস্থ্য রক্ষায় বিশুদ্ধ পানির ব্যবহারের বিকল্প নেই তিনি বলেন মানুষের মাঝে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ নিশ্চিত করা সরকারের দায়িত্ব। মহাজোট সরকারের প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাছিনার ও ছিল সেই অঙ্গীকার। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর চৌমুহনী পৌর নাগরিকের দীর্ঘ দিনের এই দাবী বাস্তবায়নে ২৫ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি পানির উচ্চ জলাধারসহ ৭২ কিলোমিটার পানির লাইন নির্মাণ করে পানি সরবরাহ নিশ্চিত করেছে। এই জন্য মন্ত্রী সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান। ওবায়দুল কাদের আরো বলেন জেলার পল্লী অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে সরকার ইতিমধ্যে ৪৫০ কোটি টাকার প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছেন। সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে অর্থনৈতিক জোন এর কাজ চলমান। নোয়াখালীতে একটি বিমান বন্দর করার চিন্তা বর্তমান সরকারের রয়েছে। যদি আওয়ামীলীগ সরকার আবার সরকার গঠন করতে পারে তবে বিমান বন্দর হবে জেলার প্রথম পর্যায়। কোম্পানীগঞ্জ সুন্দলপুরে গ্যাস উত্তোলন করা হয়েছে বেগমগঞ্জে গ্যাস পরীক্ষামূলক ভাবে ১১ নভেম্বর উঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন দীর্ঘ ২২ মাস সরকারের দায়িত্ব পালন করছি। আন্তরিকতার সাথে যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়নে কি করতে পেরেছি তার বিচার জনগণের কাছে ছেড়ে দিলাম। তবে আরো সময় পেলে তৃপ্তির সাথে কাজ করা সম্ভব হতো। তিনি চৌমুহনী জনগণের জন্য বলেন রাস্তা প্রশস্ত ও ফোরলেন করে কি লাভ যদি ফুট পাত দখল মুক্ত না রাখেন। ফুটপাত দখলমুক্ত সড়কে যাতায়াত করার জন্য জনগণ যাতে বাধাগ্রস্ত না হয় তার জন্য সকলকে সজাক থাকার আহ্বান জানান। তিনি বিরোধী দলকে উদ্দেশ্য করে বলেন দীর্ঘ দিন তো আপনারা মন্ত্রী পরিষদে নেই। সেই দিক চিন্তা করে প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা সর্বদলীয় সরকার গঠনে নির্বাচন কালীন গুরুত্ব দিয়েছেন। তাই আপনাদের কে মন্ত্রী পরিষদে স্থান করে দেয়ার জন্য আমরা পদত্যাগ করেছি। দেশের মানুষ শান্তি প্রিয় নির্বাচন চায়। হরতাল জালাও, পোড়াও অবরোধ এর পথ পরিহার করে সর্বদলীয় সরকারের অংশ নিন জনগণ নির্বাচনমূখী। আর নির্বাচন এর মাধ্যমে সরকারের নেতৃত্বে পরিবর্তন ঘটবে। তিনি পৌর মেয়র মামুনুর রশিদকে এই বিশ্বাস উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করায় ধন্যবাদ জানান। উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখতে আবার মহাজোট সরকারকে সহযোগিতা করার জন্য সকলের প্রতি আহ্বান জানান। মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সভায় বক্তৃতার পূর্বে ৬৮০ ঘন মিটার ক্ষমতা সম্পন্ন উচ্চ জলাধার ও ৩৮০ ঘন মিটার ক্ষমতা সম্পন্ন পানি শোধনাগার এর ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে শুভ উদ্ভোধন করেন। মেয়র মামুনুর রশিদ কিরন সভাপতির বক্তব্যে বলেন আমি দশম সংসদ নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন পত্র নিয়েছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্দেশে যাকেই মনোনয়ন দিবে দলীয় নেতা কর্মী নিয়ে আমি তার হয়ে কাজ করব। বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন সমবায় মন্ত্রণালয় যুগ্ন সচিব বেলায়েত হোসেন, প্রকৌশলী মোঃ নুরুজ্জামান প্রধান প্রকৌশলী জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তর ঢাকা, বেগমগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান ভি পি মোহাম্মদ উল্যাহ, প্রকল্প পরিচালক শাহাজাহান হোসেন, কাউন্সিলরদের পক্ষে দেলোয়ার হোসেন দেলু বক্তৃতা করেন। প্যানেল মেয়র সাহাব উদ্দিন কাজল ও চৌমুহনী পৌর সচিব আবদুল কাউয়ুম সভা পরিচালনা করেন। উপস্থিত ছিলেন নোয়াখালী নবাগত জেলা প্রশাসক সহেল ইমাম খান, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেবী চন্দ প্রমূখ। উপস্থিত ছিলেন পৌর, উপজেলা, ইউনিয়ন সর্ব দলীয় নেতৃবৃন্দ।