সুরঞ্জিত সেসগুপ্ত আল্লাহর নাম নিয়ে কটাক্ষ করেছেন -শাহ আহমদ শফী

প্রকাশ:| সোমবার, ১০ জুন , ২০১৩ সময় ০৪:০৮ অপরাহ্ণ

আওয়ামী লীগ নেতা সুরঞ্জিত সেসগুপ্ত আল্লাহর নাম নিয়ে কটাক্ষ করেছেন দাবি করে তার গ্রেফতার চেয়েছেন হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী।sofe 1

সোমবার এক বিবৃতিতে তিনি এই দাবি করেছেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, গত ৫ মে শাপলা চত্বরের সমাবেশে মধ্যরাতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পিটুনি খেয়ে হেফাজতীরা সুবহানাল্লাহ বলে পালিয়েছে বলে আওয়ামী লীগের দফতরবিহীন মন্ত্রী সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য দিয়েছেন।
তার এমন বক্তব্য ৯ জুন বিভিন্ন পত্রিকায় ছাপা হয়েছে দাবি করে বিবৃবিতে তীব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানিয়েছেন আল্লামা শফী।
তিনি বলেন, সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত মহান সৃষ্টিকর্তা আল্লাহর নাম নিয়ে কটাক্ষ করে চরম অমার্জনীয় অপরাধ করেছেন। এহেন মন্তব্য করে সে ইসলামের সাথে চরম উপহাস করেছে, যা ক্ষমার অযোগ্য অপরাধ। শতকরা ৯০ ভাগ মুসলমানের দেশে সুরঞ্জিতের ঔদ্ধত্যের খুঁটির জোর কোথায়, জনগণ তা’ জানতে চায়।
আল্লামা শফী বলেন, সুরঞ্জিত সেন আল্লাহর পবিত্র সত্ত্বা নিয়ে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করে বহুবার মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হেনেছেন। ইসলাম নিয়ে উপহাস করে মুসলমানদের অন্তরে আঘাত দিয়ে একেরপর এক নতুন বিতর্কের সৃষ্টি করেছেন। ক্ষমতাসীন দল এ ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় সুরঞ্জিতের ঔদ্ধত্য বেড়ে গেছে।
তিনি বলেন, এই সুরঞ্জিতের প্ররোচণাতেই সরকার সংবিধান থেকে আল্লাহর ওপর পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস তুলে দিয়েছে। সরকারকে তার এই ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্যের জন্য তাকে এখনই গ্রেফতার করে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে হবে।
হেফাজতে ইসলাম প্রধান বলেন, চরম ইসলামবিদ্বেষী এই মন্ত্রী রেল মন্ত্রণালয় লুটেপুটে শেষ করে এখন মুসলমানদের ঈমান লুটার ষড়যন্ত্রে  লিপ্ত হয়েছে। ৯০ ভাগ মুসলমান অধ্যুষিত দেশে বাস করে আল্লাহ তায়ালার নাম নিয়ে ব্যঙ্গ করার দুঃসাহস সে পায় কী করে?
তিনি বলেন, এই দেশে মুসলমানদের ‘আল্লাহ’কে নিয়ে ব্যঙ্গ-বিদ্রুপ করা হবে, আর মুসলমান চুপচাপ তা চেয়ে চেয়ে দেখবে, তা হতে পারে না। তাই প্রধানমন্ত্রীকেই তাকে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কার করে এ ব্যাপারে তড়িৎ ব্যবস্থা গ্রহণ করে মুসলমানদের ক্ষোভ প্রশমনে কার্যকর ব্যবস্থা নিতে হবে।