সুন্দরবনসহ জাতীয় সম্পদে সাম্রাজ্যবাদের আগ্রাসনে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে

প্রকাশ:| শুক্রবার, ১৮ আগস্ট , ২০১৭ সময় ০৯:০৪ অপরাহ্ণ

পটিয়ায় বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাজেকুজ্জমান রতন

পটিয়া প্রতিনিধি:
বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাজেকুজ্জমান রতন বলেছেন, একটি ভূখন্ড নিয়ে দেশ গঠিত হয়। ভূখন্ড পরিচিতি লাভ করে মানুষের কর্মকান্ড দিয়ে। এদেশের ভূখন্ড একেক সময়ে একেক নামে পরিচিতি অর্জন করে। এ ভূখন্ডটি আজ থেকে ২ শত বছর পূর্বে ভারতবর্ষ, ৫০ বছর পূর্বে পাকিস্তান, আর ৫শত বছর পূর্বে মোগল সা¤্রাজ্য হিসেবে পরিচিত ছিল। বর্তমানে এ ভূখন্ডটি বাংলাদেশ হিসেবে পরিচিত। বাংলাদেশের আজকের এ ভূখন্ডটি কিছু বড়মাপের মনিষীর জন্য পরিচিতি লাভ করে। তেমনি বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের সাহিত্য ও সংস্কৃতি চর্চার জন্য পরিচিতি অর্জন করে। ঠিক তদ্রুপ ব্রিটিশ সা¤্রাজ্যবাদবিরোধী আন্দোলনে মাষ্ঠারদা সূর্যসেন ও প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদারের কারনে বাংলাদেশের ভূখন্ডটির পরিচিত রয়েছে। রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের উদ্বৃতি দিয়ে তিনি বলেন, শিক্ষার উদ্দেশ্য হচ্ছে মানুষকে শেখানোর জন্য উদ্বুদ্ধ করা। মানুষ শিখলে যুক্তি করতে শেখে। পশু পাখিও শিক্ষা নেয়। তবে মানুষ আর পশুর পার্থক্য হচ্ছে বিবেকের পার্থক্য। তার জন্য মানুষকে বিবেকের শক্তিতে দাঁড়াতে হবে। সুন্দরবনসহ জাতীয় সম্পদের উপরে সা¤্রাজ্যবাদী যে আগ্রাসন চলছে মনে হয় যেন আমরা পরাধীন দেশে বসবাস করছি। সা¤্রাজ্যবাদী আগ্রাসনের বিরুদ্ধে বর্তমান সময়ে তরুণ ও যুব সমাজকে ঐক্যবদ্ধভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।
তিনি গতকাল শুক্রবার বিকেলে পটিয়া পৌর সদরের খলিলুর রহমান কলেজ মিলনায়তনে চারন সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ও বিদ্রোহী কবি নজরুলের জন্ম ও মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তৃতায় উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন।
চারন সাংস্কৃতিক কেন্দ্র পটিয়া উপজেলার সভাপতি ও মাষ্ঠার সমর কান্তি বিশ্বাসের সভাপতিত্বে ও আবদুস সোবহান রাহাত আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক শাহনাজ বেগমের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন, খলিলুর রহমান মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আবু তৈয়ব, পটিয়া উপজেলা বাসদ সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক ইছহাক চৌধুরী, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সহ সভাপতি আল কাদেরী জয়, উপজেলা ছাত্র ফ্রন্ট নেতা রায়হান উদ্দিন, ছাত্রনেতা মিজানুর রহমান প্রমুখ।
আলোচনা সভা শেষে চারন সংস্কৃতিক কেন্দ্রের শিল্পীদের পরিবেশনায় দেশাত্ববোধক সঙ্গীত পরিবেশন হয়।