সীমান্তে ফের বাংলাদেশি হত্যা বিএসএফের

প্রকাশ:| রবিবার, ১৬ জুন , ২০১৩ সময় ০২:৩৫ অপরাহ্ণ

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার মেদেনীপুর সীমান্ত এলাকায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী- বিএসএফের গুলিতে এক বাংলাদেশি যুবকের মৃত্যু হয়েছে।সীমান্তে ফের বাংলাদেশি হত্যা বিএসএফের
bsf_4802_0

রোববার ভোর ৫টার দিকের এ ঘটনায় সীমান্ত এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

নিহত ইমরান হোসেন (২৪) জীবননগর উপজেলার সীমান্ত উইনিয়নের হরিহরনগর গ্রামের উত্তরপাড়ার মহির উদ্দিনের ছেলে।

এলাকাবাসী ও বিজিবি জানায়, ইমরান শনিবার রাতে গরু আনার জন্য অবৈধভাবে পুটিখালী সীমান্ত পেরিয়ে ভারতের ভেতরে ঢোকে। রোববার ভোররাতে গরু নিয়ে আসার সময় ইমরানকে ভারতের পুটিখালী বিএসএফ আটক করে।

এ সময় বিএসএফ তাকে নানা ধরনের নির্যাতন করে খুব কাছ থেকে রাবার বুলেট ছোড়ে। এতে ইমরানের একটি চোখ বের হয়ে যায়। এক পর্যায়ে তিনি মারা যান। এ অবস্থায় বিএসএফ ইমরানের লাশ বাংলাদেশ সীমান্ত সংলগ্ন ভারতীয় পুটিখালী বাওড়ের ধারে ফেলে চলে যায়। পরে নিহতে পরিবারের লোকজন লাশ উদ্ধার করে বাড়ি নিয়ে যান।

সীমান্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান জানান, ঘটনার সতত্যা নিশ্চিত করেছেন।

চুয়াডাঙ্গা ৬ বিজিবির অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আসাদুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিএসএফের রাবার বুলেটে ইমরানের মৃত্যু হয়েছে।

ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে বিএসএফকে চিঠি দেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, সীমান্তে বিএসএফের হামলায় বাংলাদেশি হতাহতের ঘটনায় আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থাগুলোও উদ্বেগ জানিয়ে আসছে।
এর আগের রাতেই যশোরের বেনাপোল সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত হন, যা জানা যায় বুধবার সকালেই।

গত ১২ জুন বুধবার বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের হাই কমিশানর ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে বলেন, গত ছয় মাসে সীমান্তে কোনো হত্যার ঘটনা ঘটেনি।

এর আগের রাতেই যশোরের বেনাপোল সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে দুই বাংলাদেশি নিহত হন; যা জানা যায় বুধবার সকালেই।

এছাড়া বুধবার দুপুরে লালমনিরহাটের আঙ্গরপোতা-দহগ্রাম ছিটমহলে বাংলাদেশি এক নারীকে রাইফেল দিয়ে পেটায় বিএসএফ।