সীতাকুন্ড উপজেলা যুবদল সাংগঠনিক সম্পাদক ইসমাইলকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে বিবৃতি

প্রকাশ:| শনিবার, ১৪ মার্চ , ২০১৫ সময় ১০:৪২ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল সীতাকুন্ড উপজেলার সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ ইসমাইলকে শুক্রবার ভোররাতে বিনা কারণে গ্রেফতারের প্রতিবাদ জানিয়েছেন সীতাকুন্ড উপজেলা যুবদলের নেতৃবৃন্দ। উপজেলা যুবদলের সভাপতি ফজলুল করিম চৌধূরী কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক প্রতিবাদ লিপিতে বক্তারা বলেন সীতাকুন্ডজুড়ে প্রশাসন সরকার দলীয় সন্ত্রাসীদের মদদে একের পর এক বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীদের গ্রেফতার করে মিথ্যা মামলা সাজিয়ে জেলে পাঠিয়ে পুরো সীতাকুন্ডকে কারাগারে পরিণত করেছে। নিরীহ নেতাকর্মীদেরকে বিনা উস্কানীতে ধরে রাতের আঁধারে গুলি করে হত্যা ও পঙ্গু করার নগ্ন খেলায় মেতে উঠেছে। সীতাকুন্ড বিএনপি তথা অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনসমূহের নেতৃবৃন্দের নামে একাধিক মিথ্যা মামলা দিয়ে সরকার শুধু ক্রান্ত হয়নি তাদের পরিবার, ঘরবাড়ী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অব্যাহত হামলার মাধ্যমে সীতাকুন্ডকে বিএনপি ছাড়া করার নীল নকশা বাস্তবায়নের চেষ্টা করছে যা কোনদিন সফল হবেনা।

নেতৃবন্দ অবিলম্বে ইসমাইলসহ গ্রেফতারকৃত নেতৃবৃন্দের নিঃশর্ত মুক্তি দাবী করে বলেন হামলা মামলা ও গ্রেফতারের মাধ্যমে আন্দোলন দমানো যাবেনা। শহীদ জিয়ার সৈনিকরা বেগম জিয়ার নেতৃত্বে গণতন্ত্র পুনঃরুদ্ধারের সংগ্রামে অবিচল থেকে অবৈধ স্বৈরচারী সরকারের পতন নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফিরে যাবেনা।

বিবৃতিদাতারা হলেন উপজেলা যুবদলের সভাপতি ফজলুল করিম চৌধূরী, সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন রাজু, সৈয়দপুর ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি মোঃ হেলাল উদ্দিন,সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোহসেন আলী, বারৈয়াঢালা ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, মুরাদপুর যুবদলের মোঃ সালাহউদ্দিন সোহেল, বাড়বকুন্ড যুবদলের সাধারণ সম্পাদক একরাম হোসেন, বাঁশবাড়ীয়া যুবদলের সভাপতি কাজী মোঃ বদর উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, কুমিরা ইউনিয়ন যুবদলের সভাপতি এম.হেলাল উদ্দিন, সাধারণ সম্পাদক আবদুল মালেক মানিক, ভাটিয়ারী যুবদলের সভাপতি খোরশেদ মেম্বার, সাধারণ সম্পাদক সেলিম উদ্দিন, সলিমপুর যুবদলের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রুকন উদ্দিন মেম্বার, যুবদল নেতা ফিরোজ, বাদল, একরাম উল্ল্যাহ নয়ন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।