সিটি কর্পোরেশনের অধিভুক্ত করার ঘোষণা: সিটি মেয়র

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৩ জানুয়ারি , ২০১৭ সময় ১০:০২ অপরাহ্ণ

 

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের শিক্ষা ও স্বাস্থ্য বিষয়ক স্থায়ী কমিটির প্রস্তাব এবং সাধারন সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক শেরশাহ কলোনী ডা. মজহারুল হক হাই স্কুলকে সিটি কর্পোরেশনের অধিভুক্ত করার ঘোষনা দিয়েছেন। ৩ জানুয়ারি ২০১৭ খ্রি. মঙ্গলবার, দুপুরে অত্র বিদ্যালয় মাঠে ২০১৭ সনের শিক্ষার্থীদের সরকার প্রদত্ত নতুন পাঠ্য বই বিতরণ উপলক্ষে অভিভাবক ও শিক্ষার্থীদের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ ঘোষনা দেন। চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান শিক্ষা কর্মকর্তা মিসেস নাজিয়া শিরিন ও সাবেক কমিশনার ফরিদ আহমদ চৌধুরী বিশেষ অতিথি ছিলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শেরশাহ কলোনী ডা. মজহারুল হক হাই স্কুল এর প্রধান শিক্ষক এ কে এম ইমদাদুল আনোয়ার চৌধুরী। অনুষ্ঠানে অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সদস্য নাজিম উদ্দিন,ফজল আমিন, আবু তাহের এবং সাবেক কমিটির সদস্য মাহবুবুল আলম উপস্থিত ছিলেন। শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে পাঠ্য বই বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য একটি নীতিমালা প্রণয়ন করা হয়েছে। এ নীতিমালার আলোকে শেরশাহ কলোনী ডা. মজহারুল হক হাই স্কুল পরিচালিত হবে। মেয়র অত্র শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের হল রুমের তৃতীয় তলার উপর নতুন একটি তলা নির্মাণ করে দেয়ার ঘোষনাও দেন। তিনি আরো বলেন,এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক ও কর্মচারীরা সিটি কর্পোরেশনের নিয়ম-নীতির ভিত্তিতে বেতন ভাতা সহ সকল সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্ত হবেন। মেয়র বলেন, শিক্ষা মৌলিক অধিকার। সরকার শতভাগ শিক্ষিত নাগরিক গড়ার লক্ষে শিক্ষা খাতে বিপুল পরিমান অর্থ ব্যয় করে বিনামূল্যে পাঠ্য পুস্তক গরিব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের বিনা বেতনে অধ্যয়ন, টিফিনের ব্যবস্থা সহ শিক্ষা সহায়ক নানামুখী প্রনোদনা দিয়ে যাচ্ছে। যা বিগত কোন সরকার দেয়নি। জনাব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, নীতি-নৈতিকতায় মূল্যবোধ সম্পন্ন সুনাগরিক ছাড়া দেশ ও জাতির কল্যাণ এবং উন্নয়ন সম্ভব নয়। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন অনুযায়ী ডিজিটাল বাংলাদেশ এবং জাতির পিতার সোনার বাংলাদেশ গড়ার জন্য সুশিক্ষিত সুনাগরিক প্রয়োজন। সেদিক বিবেচনায় সরকার শিক্ষাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে মান ও গুনগত শিক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় সবকিছুই করে যাচ্ছে। তিনি অভিভাবক ও শিক্ষক সকলকে তাদের সন্তানদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করার জন্য সর্বোচ্চ সহযোগিতার আহবান জানান।


আরোও সংবাদ