সিএমপির লতা এশিয়ান কারাতেতে দেশের প্রথম মহিলা রেফারী

প্রকাশ:| শনিবার, ১৯ আগস্ট , ২০১৭ সময় ১০:০৫ অপরাহ্ণ

শ্রীলংকার রাজধানী কলম্বোতে আয়োজনে ৪র্থ সাউথ এশিয়ান কারাতে প্রতিযোগিতা ও এশিয়ান কারাতে ফেডারেশনের জাজ, (রেফারি) হওয়ার গৌরব অর্জন করেছেন চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)র তথা বাংলাদেশ পুলিশের কৃতি খেলোয়াড়, পুলিশের বর্ষসেরা নারী ক্রীড়াবিদ, আন্তর্জাতিক কারাতে প্রতিযোগিতায় হ্যাট্রিক স্বর্ণপদক কারাতে কন্যা মোছাম্মৎ লতা পারভীন।

গত ৩ থেকে ৬ আগষ্ট পর্যন্ত বাংলাদেশ, শ্রীলংকা, ভারত, নেপাল, ভুটান ও পাকিস্তান এতে অংশগ্রহন করে।

বাংলাদেশ কারাতে দলের পাশাপাশি বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশনের সাধারন সম্পাদক শিহান শেখ আলী আহসান বাদলের নেতৃত্বে ৬ জন বাংলাদেশী রেফারি এশিয়ান কারাতে ফেডারেশনের জাজ লাইসেন্স এর জন্য পরীক্ষায় অংশগ্রহন করে। পরীক্ষায় অন্যান্য দেশগুলোকে পিছনে ফেলে বাংলাদেশের পরীক্ষার্থীরা ঈর্ষনীয় সফলতা দেখিয়ে ৬ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৫ জন পরীক্ষার্থী এশিয়ান কারাতে ফেডারেশনের জাজ লাইসেন্স পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ণ হয়, যা বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথম।

.
সিএমপির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, হিমালয় কন্যা লতা পারভীন, পঞ্চগড় জেলার পঞ্চগড় থানার পাটোয়ারী পাড়ার আজিজুল হক ও রহিমা বেগম দম্পতি কন্যা। লতা বর্তমানে সিএমপি’র ইন-সার্ভিস ট্রেনিং সেন্টারে কর্মরত রয়েছেন।

ব্যক্তি জীবনে বিবাহিত লতা পারভীন ৫ বছর বয়সী এক সন্তানের জননী। সে নিয়মিত অফিস করার পাশাপাশি চট্টগ্রাম পুলিশ ইনষ্টিটিউশন এর ছাত্রীদের কারাতে প্রশিক্ষনের দায়িত্বে আছেন।

এ ছাড়াও পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স এর অনুমোদনক্রমে বিভিন্ন সময়ে জাতীয় পর্যায়ে বাংলাদেশ কারাতে ফেডারেশনের কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করে কিশোরী ও তরুনীদের কারাতে, আত্মরক্ষা মুলক প্রশিক্ষণ প্রদান করেন।


আরোও সংবাদ