সিএমপির তিন থানা বৃদ্ধির প্রস্তাবে কৌতূহল সৃষ্টি

প্রকাশ:| বৃহস্পতিবার, ১০ জুলাই , ২০১৪ সময় ০৩:৩৭ অপরাহ্ণ

আইন আদালত প্রতিবেদক>>চট্টগ্রামে নতুন থানা বৃদ্ধির প্রস্তাবকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) ও জেলা পুলিশের মধ্যে দ্বন্দ্ব এখন চরমে। জেলা পুলিশ সুপারের মতামত উপেক্ষা করে মন্ত্রণালয়ে সিএমপির তিন থানা বৃদ্ধির প্রস্তাব পাঠানোকে কেন্দ্র করে এ দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়েছে বলে পুলিশের একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। তবে কেউ এবিষয়ে আনুষ্ঠানিক মন্তব্য দিতে রাজি হননি।
সিএমপিতে ১২টি থানার স্থলে গেল বছর নতুন চারটি থানা বৃদ্ধি করে ১৬টিতে উন্নীত করা হয়। নতুন চার থানা বৃদ্ধির ফলে আইনশৃংখলার উন্নতি না হলেও এসব থানায় পুলিশ সদস্যদের পদোন্নতি ও বদলি বাবদ কোটি টাকার বাণিজ্যের অভিযোগ ওঠে। এক বছর পর পুনরায় নতুন তিনটি থানার প্রস্তাবকে ঘিরে সাধারণ মানুষের মধ্যেও নানা কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে। এ ছাড়া নতুন তিনটি থানা সৃষ্টি করতে জেলার অংশ মহানগরীতে অন্তর্ভুক্তি নিয়েও ঘোর আপত্তি সংশ্লিষ্ট আসনের সংসদ সদস্যসহ স্থানীয় লোকজনের।
সিএমপি সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম মহানগরীতে চারটি নতুন থানার কার্যক্রম চালুর এক বছর পর আরও তিনটি থানা বৃদ্ধির প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে সিএমপি। প্রস্তাবিত তিনটি থানা হল : শাহ মিরপুর থানা, অনন্যা থানা ও ফৌজদারহাট থানা। থানাগুলোর অনুমোদন হলে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের পরিধি বাড়বে। সিএমপির সঙ্গে যুক্ত হবে হাটহাজারী, সীতাকুণ্ড, পটিয়া ও আনোয়ারা উপজেলার বেশ কিছু অংশ।
তিন থানার মধ্যে কর্ণফুলী, আনোয়ারা ও পটিয়ার কিছু অংশ নিয়ে শাহ মিরপুর থানা। হাটহাজারী উপজেলার ফতেয়াবাদ, নজুমিয়া হাট, কুয়াইশ ও চান্দগাঁও থানার কিছু অংশকে নিয়ে ফতেয়াবদ/অন্যনামে থানা ও সীতাকুণ্ড উপজেলার ফৌজদারহাট ও পাহাড়তলী থানার কিছু অংশ নিয়ে ফৌজদারহাট থানা গঠনের প্রস্তাব রয়েছে।


আরোও সংবাদ