সারফেস ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন নিয়েই বাজারে চলে আসতো মাইক্রোসফটক

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর , ২০১৩ সময় ১০:৩৯ অপরাহ্ণ

সারফেসনকিয়া কেনার ঘোষণা দেওয়ার আগে ‘সারফেস’ ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন বাজারে আনার পরিকল্পনা করেছিল মাইক্রোসফট। ‘সারফেস’ ব্র্যান্ডের ট্যাবলেট বাজারে আশানুরূপ সাড়া ফেলতে ব্যর্থ হলেও স্মার্টফোন নিয়ে উত্সাহী ছিল প্রতিষ্ঠানটি। ২০১২ সালের অক্টোবরে উইন্ডোজনির্ভর সারফেস ট্যাব বাজারে এনেছিল মাইক্রোসফট।
মাইক্রোসফটের অভ্যন্তরীণ সূত্রের বরাতে প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট দ্য ভার্জ জানিয়েছে, উইন্ডোজনির্ভর সারফেস ব্র্যান্ডের বেশ কয়েকটি স্মার্টফোন প্রটোটাইপ তৈরি করেছিল মাইক্রোসফট। স্মার্টফোন তৈরির পরিকল্পনার কথা প্রকাশ হওয়ার আগে ‘নিউইয়র্ক টাইমস’-এর বিটস ব্লগে অ্যান্ড্রয়েডচালিত লুমিয়া স্মার্টফোনের তথ্য প্রকাশিত হয়েছিল। ওই ব্লগে দাবি করা হয়েছিল, লুমিয়া সিরিজে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমনির্ভর স্মার্টফোন আনার পরিকল্পনা ছিল নকিয়ার, এ নিয়ে প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষাও করেছিল ফিনল্যান্ডের প্রতিষ্ঠানটি। ২০১৪ সালে নকিয়া অ্যান্ড্রয়েডনির্ভর স্মার্টফোন বাজারে আনার পরিকল্পনা করেছিল। মাইক্রোসফটের সঙ্গে চুক্তি সম্ভব না হলে নকিয়া আগামী বছর অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন বাজারে আনার সব প্রস্তুতি সেরে রেখেছিল।
এদিকে, নকিয়ার সঙ্গে চুক্তি সম্ভব না হলে মাইক্রোসফট কর্তৃপক্ষ সারফেস ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন নিয়েই বাজারে চলে আসতো বলেই মনে করছেন প্রযুক্তি গবেষকেরা।

‘নিউইয়র্ক টাইমস’ জানিয়েছে, নকিয়ার অ্যান্ড্রয়েড পরিকল্পনায় মরিয়া হয়ে মাইক্রোসফটকে দ্রুত নকিয়া কিনে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে।