সাফ নারী ফুটবল: সেমি ফাইনালে বাংলাদেশ

নিউজচিটাগাং২৪/ এক্স প্রকাশ:| শনিবার, ৩১ ডিসেম্বর , ২০১৬ সময় ১০:৫৭ অপরাহ্ণ

দক্ষিণ এশিয়ার নারী ফুটবলে ৩ বারের চ্যাম্পিয়ন শক্তিশালী ভারতকে রুখে দিয়ে সেমিফাইনালে পৌঁছে গেছে বাংলাদেশের মেয়েরা। ভারতের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করায় গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়েই মাঠ ছাড়ে সাবিনা-মার্জিয়ারা। আগের ৬ বার ভারতের মুখোমুখি হয়ে প্রতিবারই হেরেছিল বাংলাদেশ। গোলপার্থক্যে এগিয়ে থাকায় এবার তাই ড্রয়ের লক্ষ্যেই খেলতে নেমেছিল মেয়েরা। বছরের শেষ দিনে পাওয়া দারুণ এই সাফল্যে সেমি-ফাইনালে তারা পেয়েছে কাঙ্ক্ষিত প্রতিপক্ষ। আগামী সোমবার ফাইনালের ওঠার লড়াইয়ে অপেক্ষাকৃত দুর্বল মালদ্বীপের বিপক্ষে মাঠে নামবে গোলাম রব্বানী ছোটনের দল।

এর আগে আফগানিস্তানকে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করা বাংলাদেশ শিলিগুড়ির কাঞ্চনজঙ্ঘা স্টেডিয়ামে শনিবার রক্ষণাত্মক কৌশল নিয়ে মাঠে নামে। ভারতের অভিজ্ঞ আক্রমণভাগকে শিউলি-শামসুন্নাহার-মাসুরা-নার্গিসে গড়া রক্ষণভাগ ভালোভালো সামাল দেয়। তবে দুর্দান্ত কিছু সেভ করে বাংলাদেশকে ১ পয়েন্ট এনে দেওয়ায় বড় ভূমিকা রাখেন গোলরক্ষক সাবিনা আক্তার।

স্বাগতিকদের সঙ্গে শুরু থেকে সমানে লড়াই করে লং পাসে খেলা বাংলাদেশ। প্রতিআক্রমণ থেকে পঞ্চদশ মিনিটে এগিয়ে যাওয়ার ভালো একটি সুযোগ নষ্ট করে তারা। ডান দিক থেকে সাবিনা খাতুনের ফ্রি-কিক ডি-বক্সের মধ্যে পেয়ে যান সিরাত জাহান স্বপ্না। এই ফরোয়ার্ডের ছোট পাসে কৃষ্ণা রানী সরকারের প্লেসিং প্রতিপক্ষের ডিফেন্ডারের পা হয়ে পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়। আফগানিস্তানের জালে ৫ গোল করা সাবিনা ২৩তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে বল নিয়ে ঢুকে পড়লেও তালগোল পাকিয়ে শট নিতে পারেননি।

একটু পর দাঙ্গমেই গ্রাসিকে ডি-বক্সের একটু ওপরে মাইনু মারমা ফাউল করলে ফ্রি-কিক পায় ভারত। সাসমিতা মালিকের জোরালো শট দারুণ দক্ষতায় ফেরান গোলরক্ষক সাবিনা আক্তার। ৩৪তম মিনিটে বাঁ দিক থেকে সাসমিতার ক্রসে বালা দেবির হেড শেষ মুহূর্তে ফিরিয়ে আবারও বাংলাদেশের ত্রাতা তিনি। ৪ মিনিট পর আবারও গোলরক্ষকের দৃঢ়তা আর ভাগ্যের জোরে ম্যাচে থাকে বাংলাদেশ। ডি-বক্সের বেশ বাইরে থেকে সাসমিতার দারুণ শট বাঁক খেয়ে পোস্টে ঢোকার আগ মুহূর্তে সাবিনা ফিস্ট করেন, বল ক্রসবারে লেগে বেরিয়ে যায়।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে মাসুরার ভুলে বল পেয়ে যান গ্রাসি। ভারতের এই ফরোয়ার্ডের শট ঝাঁপিয়ে পড়ে ফেরান সাবিনা আক্তার। ৫৮তম মিনিটে গোলের সেরা সুযোগটি নষ্ট করে বাংলাদেশ। গোলরক্ষক অদিতি চৌহানকে একা পাওয়া সাবিনা খাতুন শট নিলে বল ঠিকানা খুঁজে পেতে পারত; কিন্তু এই ফরোয়ার্ড বল বাড়ান ডান দিকে থাকা কৃষ্ণাকে। কৃষ্ণার শট বল জালে জড়ালেও রেফারির অফ সাইডের বাঁশি বেজে ওঠে।

বাংলাদেশের পোস্টের সামনে দুর্ভেদ্য প্রাচীর হয়ে থাকা সাবিনা খাতুন গ্রাসির শট ফিরিয়ে ৭৫তম মিনিটে আবারও ভারতকে গোলবঞ্চিত করেন। একটু পর বালা দেবির শট ক্রসবারে প্রতিহত হওয়ার পর সাসমিতার শট গ্লাভসবন্দি করেন গোলরক্ষক। ৮৪তম মিনিটে ভারতের কমলার ফ্রি-কিক বাঁক খেয়ে অল্পের জন্য দূরের পোস্ট দিয়ে বেরিয়ে যায়। যোগ করা সময়ে গোললাইন থেকে শিউলি আজিম শট ফেরালে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আনন্দে মেতে উঠে বাংলার মেয়েরা।