সাগরে নৌ-দূঘর্টনায় ট্রলারসহ তিন জেলে নিখোঁজ

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ৮ আগস্ট , ২০১৭ সময় ০৮:৪৭ অপরাহ্ণ

লিটন কুতুবী, কুতুবদিয়া-কক্সবাজার।
কক্সবাজারের কুতুবদিয়া উপকূল থেকে বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে গিয়ে এফ.বি মায়ের দোয়া নামক এক ফিশিং ট্রলার র্দূঘটনার কবলে পড়ে ট্রলারসহ তিন জেলে নিখোঁজের খবর পাওয়া গেছে। নিখোঁজ জেলেরা হচ্ছে, কুতুবদিয়া দ্বীপের লেমশীখালী ইউনিয়নের নুর মোহাম্মদের ছেলে ছৈয়দ করিম (৩২) উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের আমির হোছাইনের ছেলে সালাউদ্দিন (২০) এবং আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নের নুরুল কবিরের ছেলে রেজাউল করিম (৩৫)। এ রির্পোট লিখা পর্যন্ত নিখোজঁ তিন জেলের সন্ধান পাওয়া যায়নি বলে ট্রলার মালিক মোঃ এমরান এ প্রতিনিধিকে নিশ্চিত করেন। ফিশিং ট্রলার নিখোজেঁর ব্যাপারে কুতুবদিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরী করেন বলে ট্রলার মালিক মোঃ এমরান এ প্রতিনিধিকে নিশ্চিত করেন। দূর্ঘটনার কবল থেকে উদ্ধার হওয়া জেলে ট্রলারের মাঝি আমির হোসেন জানান, প্রাকৃতিক দূর্যোগের কবলে পড়ে ট্রলারটি সাগরে ডুবে যায়। তাদের মধ্যে তিন জেলে এখনো নিখোঁজ রয়েছে। ট্রলারের ১৩ জেলে উদ্ধার হলেও তিন জেলেসহ ট্রলারটি নিখোঁজ রয়েছে। নিখোঁজ ট্রলারটির আনুমানিক মূল্য প্রায় ৪০লাখ টাকা হবে বলে তিনি জানান। নিখোঁজ জেলেদের ব্যাপারে থানায় সাধারণ ডায়েরী করার কথা স্বীকার করেন কুতুবদিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি তদন্ত) নোমেল বড়–য়া। জানা গেছে, গত ৪ আগস্ট জুমার নামাজের পর উত্তর ধুরুং ইউনিয়নের আকবরবলী ঘাট থেকে ১৬ জেলে নিয়ে এফ,বি মায়ের দোয়া নামক ফিশিং ট্রলারটি বঙ্গোপসাগরে মাছ ধরতে যায়। সাগরের গুলিরধার নামক স্থানে মাছ ধরারত অবস্থায় ট্রলারটি গত রবিবার দিবাগত রাত দুইটায় প্রাকৃতিক দূর্যোগের কবলে পড়ে ট্রলারটি ডুবে যায়। ট্রলারের ১৬ জেলের মধ্যে ১৩ জেলে সাগরে মাছ ধরতে যাওয়া অন্যান্য ট্রলারের সাহায্যে গত সোমবার সন্ধ্যায় উপকূলে ফিরে এলেও ঐ নিখোঁজ তিন জেলের এখনো সন্ধান পাওয়া যায়নি বলে ট্রলারের মাঝি আমির হোসেনের জানান। কুতুবদিয়া ফিশিং ট্রলার মালিক সমিতির (উত্তর জোন) সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন জানান, দূর্ঘটনার কবলে পড়া এফ.বি মায়ের দোয়া ফিশিং ট্রলারে তিন জেলে নিখোঁজের খবর পেয়ে গত সোমবার সন্ধ্যায় নিখোজঁদের আতœীয়স্বজনসহ দুইটি ট্রলার নিয়ে মালিককর্তৃপক্ষ সাগরে খোজতে যায়। এখনো পর্যন্ত নিখোঁজ জেলেদের সন্ধানে দুটি ট্রলার সাগরে আছে জানান।