সাকার মামলার রায় প্রদান করার পর রাউজানে আনন্দ মিছিল

প্রকাশ:| মঙ্গলবার, ১ অক্টোবর , ২০১৩ সময় ০৪:১৩ অপরাহ্ণ

bus pornoশফিউল আলম, রাউজান (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ যুদ্ধপরাধী সালাউদ্দিন কাদের সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মামলার রায়ে রাউজানে পুলিশের কড়া নিরাপত্তা, সাকার ক্যাডারেরা ভোর রাতে জালিয়ে দিয়েছে একটি বাস, ৭১ সালে স্বজনহারানো পরিবারের সদস্যরা মুখ খুলছেনা, সাকার মামলার রায় প্রদান করার পর রাউজানে আনন্দ মিছিল করেন আওয়ামী লীগ, মুক্তিযোদ্ধারা । বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মামলার রায় ঘোষনার সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে গত সোমবার থেকে রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়েন । রাউজানের বিভিন্ন এলাকায় পুলিশের টইল প্রদান করা হয় । গতকাল ভোররাতে রাউজানের পশ্চিম গহিরা মঘাশাস্ত্রি বড়–য়া পাড়া এলাকায় একটি যাত্রীবাহী বাস পাকিং করা অবস্থায় জালিয়ে দেয়ে সাকার ক্যাডারেরা । গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মামলার রায়ে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ফাঁসীর রায় দেওয়ার পর রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আন ন্দ মিছিল বের করা হয় । মিছিলটি রাউজান উপজেলা সদর প্রদিক্ষন করেন । উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম চৌধুরীর নেতৃত্বে মিছিলে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোসলেম উদ্দিন খান, আওয়ামী লীগ নেতা কাজী ইকবাল, জসিম উদ্দিন চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা ইউছুপ খান সহ আওয়ামী লীগ যুবলীগ, ছাক্রলীগের নেতৃবৃন্দ । সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মামলার রায়ের প্রতিক্রিয়া জানতে শঞীদ নতুন চন্দ্র সিংহের বাসভবণ পুর্ব গহিরা কুন্ডেশ্বরী ভবলে কয়েক দপে গিয়ে ও নতুণ চন্দ্র সিংহের স্বজনদের কারো বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি । ভবণের গেইটে পুরিশের পাহারা রয়েছে । ভবণের নিজস্ব নিরাপত্তা কর্মী জানান, নতুন চন্দ্র সিংহের পুত্র প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহ ও তার পরিবারের সব সদস্য বাইরে রয়েছে বলে জানান । প্রফুল্ল রঞ্জন সিংহ ও তার পুত্র রাজিব সিংহের মোবাইল ফোনে ফোন করলে ও তারা ফোন রিসিভ করেনি । রাউজানের জগৎ মল্ল পাড়া এলাকায় গিয়ে ৭১ সালের ১৩ এপ্রিল পাকহানাদার বাহিনির সদস্যদের হাতে নিহত কিরণ বিকাশ চৌধুরীর ছেলে দোলন চৌধুরী প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে তিনি জানান। মামলার রায়ে আমরা সন্তুষ্ঠ। তবে মামলার রায় কার্যকর করা হবে কিনা এনিয়ে সন্দেহ রয়েছে । তিনি আরো বলেন ৭১ সালে মানবতা বিরোধী অপরাধ করে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে স্বাধীন বাংলাদেশের মন্ত্রী হয়েছেন । তার ছেয়ে আর কি দুঃখ কি হতে পারে বলে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন দোলন চৌধুরী । রাউজানের গহিরা এলাকার মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী প্রতিক্রিয়ায় বলেন সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ফাসীঁর রায় কার্য়কর করা হলে সে দিনই মনে আনন্দ আসবে । রাউজানের কাগতিয়া এলাকার হারুন জানান, আমার প্রিয় নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী তাকে কেউ কিছু করতে পারবেনা । রাউজান থানার ওসি এনামুল হক বলেন রাউজানের পশ্চিম গহিরা মঘাশাস্ত্রী এলাকায় একটি বাস পোড়ানোর ঘটনা বিচ্ছিন ঘটনা । বাস পোড়ানোর ঘটনা ছাড়া রাউজানে পুলিশের সর্তকতার কারনে আর কোন ঘটনা ঘটেনি ।
স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী মুসলিম লীগের প্রার্থী হয়ে ১৭৭৯ সালে রাউজান ও রাঙ্গুনিয়া আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয় । পরবর্তী জাতীয় পাটিতে যোগাদান করে তৎকালিন ক্ষমতাসীন দলের মন্ত্রী সভার ত্রাণ ও পুর্ণবাসন মন্ত্রী, গৃহায়ন ও গণপুর্ত মন্ত্রী, স্বাস্থ্য মন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন । ১৯৮৬ সালের সংসদ নির্বাচনে জাতীয় পার্টিও প্রার্থী হয়ে রাউজান থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয় । ১৯৮৮ সালে স্বৈরচার বিরোধী আন্দোলনের সময়ে এরশাদেও মন্ত্রী সভা থেকে পদত্যাগ করে সালাউদ্নি কাদের চৌধুরী নিজেই ন্যাশনাল ডেমোক্রটিক পাটি ( এনডিপি) গঠন করেন । ১৯৯১ সালে এনডিপির প্রার্থী হয়ে রাউজান আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয় । ১৯৯৬ সালে বিএনপিতে যোগদান করে সংসদ নির্বাচনে রাঙ্গুনিয়া আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়। ২০০১ সালে ও একই আসন থেকে বিএনপির প্রার্থী হয়ে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয় । ২০০১ সালের নির্বাচনের পর বিএনপি ক্ষমতায় আসিন হলে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার সংসদ বিষয়ক উপদেষ্টার দায়িত্ব পালন করেন । গত সংসদ নির্বাচনে ফটিকছড়ি ও রাঙ্গুনিয়া আসন থেকে প্রার্থী হয়ে ফটিকছড়ি আসন থেকে জয়লাভ করলে ও রাঙ্গৃনিয়া আসনে বর্তমান বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ডঃ হাসান মাহমুদের কাছে পরাজিত হয়ে রাঙ্গুনিয়া আসন থেকে বিদায় নিতে হয় সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে । এক সময়ের বাঘা রাজনৈতিক নেতা হিসাবে পরিচিত বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী ৩২ মাস কারাগারে বন্দী থাকলে ও তার জম্মভুমি রাউজান রাজনৈতিক বিচরণ ভুমি রাঙ্গুনিয়া, ফটিকছড়িতে তার মুক্তির দাবীতে তার রাজনৈতিক দল বিএনপি ও তার অনুসারীরা কোন কর্মসুচি পালন করেনি।


আরোও সংবাদ