নগরীর সৌন্দর্যবর্ধন প্রস্তাবনা আহবান

প্রকাশ:| রবিবার, ১ নভেম্বর , ২০১৫ সময় ১০:১৪ অপরাহ্ণ

মবকসিটি কর্পোরেশন সরকারী, বেসরকারী সংস্থা সহ বিভিন্ন শ্রেনী ও পেশার পরামর্শ ও প্রস্তাবনাকে সমন্বয় করে সম্মিলিতভাবে নগরীর সৌন্দর্যবর্ধন করতে আগ্রহী। মেয়র কমিটির সকলকে স্ব স্ব অবস্থান থেকে পরামর্শ ও প্রস্তাবনা আগামী সভায় উপস্থাপনের আহবান জানান।

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন এর সভাপতিত্বে ০১ নভেম্বর ২০১৫ খ্রি. রবিবার, বিকেলে সম্মেলন কক্ষে নগরীর সৌন্দর্যবর্ধনের লক্ষ্যে সাইনবোর্ড ও বিলবোর্ড ইত্যাদি স্থাপন, নীতিমালা প্রণয়ন ইত্যাদি বিষয়ে গঠিত কমিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সিটি মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেন, চট্টগ্রাম নগরীর সৌন্দর্যবর্ধন, নগরীর পরিবেশ দৃষ্টিনন্দন এবং দেশী বিদেশী সর্বস্তরের নাগরিকদের নিকট চট্টগ্রামের গুরুত্ব উপস্থাপনে সিটি কর্পোরেশন সরকারী, বেসরকারী সংস্থা সহ বিভিন্ন শ্রেনী ও পেশার পরামর্শ ও প্রস্তাবনাকে সমন্বয় করে সম্মিলিতভাবে নগরীর সৌন্দর্যবর্ধন করতে আগ্রহী। মেয়র কমিটির সকলকে স্ব স্ব অবস্থান থেকে পরামর্শ ও প্রস্তাবনা আগামী সভায় উপস্থাপনের আহবান জানান। সভায় নগরীর মিড আইল্যান্ড এর অবস্থান, বর্তমান বিলবোর্ডের পরিসংখ্যান ও বিলবোর্ড সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবনা উপস্থাপন করা হয়। সভায় প্রস্তাবনা সমূহ যাচাই বাছাই পূর্বক আগামী সভায় উপস্থাপনের সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। সভায় ১৩টি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের মধ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ এ কে এম রেজাউল করিম, স্থপতি ইনষ্টিটিউট চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক স্থপতি সোহেল মোহাম্মদ শাকুর, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ শাহিনুল ইসলাম, বাংলাদেশ ইনষ্টিটিউট অব প্ল্যানার্স এর সেক্রেটারী পরিকল্পনাবিদ এম এ ইসা আনসারী, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মুহম্মদ জাহাঙ্গীর চৌধুরী, জাতীয় গৃহায়ন কর্তৃপক্ষের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মোহাম্মদ মোর্শেদ মাহমুদ চৌধুরী, বাংলাদেশ রেলওয়ে পূর্ব এর সহকারী মহা ব্যবস্থাপক সুশিল কুমার হালদার, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন এবং নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আবদুল্লাহ আল মুনসুর ছাড়াও সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শফিউল আলম, সচিব রশিদ আহমদ, নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নাজিয়া শিরিন, মেয়রের একান্ত সচিব মোহাম্মদ মঞ্জুরুল ইসলাম, তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী, নির্বাহী প্রকৌশলী সহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।