সর্বক্ষেত্রে শিশু নির্যাতন ও সহিংসতা হচ্ছে

প্রকাশ:| সোমবার, ৩ অক্টোবর , ২০১৬ সময় ০৮:০৭ অপরাহ্ণ

screenshot_368
হোসেন বাবলাঃ
সারাদেশ ব্যাপি শিশু নির্যাতন,সহিংসতা,ধর্ষন,হত্যা-খুন এবং স্কুল কলেজ,মাদ্রাসা,পরিবার ও সামাজিক ভাবে প্রতিনিয়তই শিশু অধিকার লঙ্গিত এবংশিশু- সুরক্ষা আইনের অপ্রয়োগ না থাকায় সর্বক্ষেত্রেই চরম ভাবে নির্যাতনের শিকার হচ্ছে।্
এই শিশু নির্যাতন-সহিংসতা নিরাসন কল্পে বাংলাদেশ ফ্যামিলি প্ল্যানিং এন্ড পরিবার –পরিকল্পনা (এফপিএবি) এর”উদ্যোগে ৩অক্টোবর সোমবার দুপুরে নগরীর আগ্রাবাদস্থ হোটেল সাংরিলাতে সাংবাদিকদের সাথে অবহিত করণ নিয়ে এক মতবিনিময় সভা আয়োজন করে।
সংস্থার চট্রগ্রামস্থ প্রেসিডেন্ট ও লায়ন্সের সাবেক গর্ভনর মোঃ শফিকুর রহমানের স্বাগত বক্তব্যেও মাধ্যমে শুরু হওয়া শিশু নির্যাতন-সহিংসতা নিরাসন কল্পে করনীয় শীর্ষক সভাতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন,এফপিএবি’র জেলা কর্মকর্তা মোঃ জাফরুল বারী।
আলোচনায় অংশ নেন- এফপিএবি’র জেলার অবৈতনিক সাঃ সম্পাদক- অধ্যক্ষ মোঃ কামরুল হোসেন,প্রোগ্রাম অফিসার বেতবেদী মিস্ত্রী,ট্রেনিং ও প্রকল্প অফিসার-রত্মাদাশ,কমিউনিটি অফিসার লিংকন,বিকাশ মিত্র,ফিন্যান্স এন্ড প্রকল্প কো-অর্ডিনেটর আবু জাপর মোঃ ইয়াছিন।
তারা বলেন,শিশুদের বিরুদ্ধে সহিংসতার সব ধরণের আচরণ থেকে মুক্ত করার জন্য রাষ্ট্রীয় ও অরাষ্ট্রীয় সহযোগিদের ক্ষমতা,সামর্থ্য বৃদ্ধি করা এবং নিরাসন কল্পে প্রতিরোধক সংস্থা কে এগিয়ে আসতে সহায়তা করা ।
এছাড়া লঙ্গিত জনগোষ্টিকে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের স্কুল,কলেজ ও মাদ্রাসার র্ধমীয়নেতা,সকল শ্রেনীর শিশু,আইন প্রয়োগকারী সংস্থা এবং শিশু রক্ষানা বেক্ষনের জড়িত ব্যক্তিবর্গ।বর্তমানে দেশের আইনের দূর্বল প্রয়োগ ও রাজনৈতিক ক্ষমতার দাপুটে শিশু নির্যাতন ,সহিংসতা ব্যাপক পরিলক্ষিত হ্েচছ বলে প্রতিবেদনে প্রকাশ পায়।
ইদানিং শিশুরা পরিবার,সমাজ ও স্কুল-কলেজ ,মাদাসা থেতে দৈহিক,মানষিক এবং শাররিকভাবে নির্যাতনের শিকার-সহিংসতার বলি হচ্ছেন।শিশু যদি তার ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হয় তবে সেটিও সহিংসতার পর্যায়ে পড়বে।
তাই দেশের শিশুর সু-রক্ষা আইন,অধিকার এবং ন্যায্য পাওনা যেন ফিওে পাই সে জন্যই এফপিএবি পাশাপাশি আরো ৪টি সহযোগি সংস্থা এই প্রকল্পে কাজ করছেন বলে সভাতে জানান।
ইউরোপীয়ন ইউনিয়ন,জাপান,অপরাজয় বাংলা,ব্লাস্ট(লিগ্যাল এইড) আর্থিক ও কারিগরী সহায়তা দিয়ে এফপিএবি কে চট্রগ্রাম সহ তিনটি সিটি কর্পোরেশনে সঠিকভাবে পরিচালনা করতে সকল প্রচার-প্রচরণায়ে প্রসারতা দানের সহায়তা কামনা করে সভা শেষ করেন।
পরিশেষে জাপানের সহায়তায় শিশু নির্যাতন-সহিংসতা রোধে সচেতনামূলক একটি ভিডিও শো প্রদর্শন করে ।